muktijodha

মুক্তিযোদ্ধার সনদ পত্র নিয়ে নিন অনলাইনে :: সহজ ও সু্ন্দর!!!

9 টিউমেন্টস 101,491 দেখা 81 প্রিয়

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম। আসসালামুআলাইকুম । সবাইকে আমার আন্তরিক প্রীতি, সম্মান, শুভেচ্ছা ও ভালবাসা জ্ঞাপন করছি। আশাকরি আল্লাহ্‌র অশেষ রহমতে সবাই ভালো আছেন।

যাচাই-বাচাই করা লিস্ট থেকে মুক্তিযোদ্ধার সার্টিফিকেট এখন অনলাইন থেকে তোলা যাচ্ছে। আমার কাছে অনলাইনে মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট প্রিন্ট করার ব্যবস্থাটি খুব ভালোলেগেছে। এতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের পিয়নদের ইনকামে একটু ভাটা পরলের। আমাদের মতো সাধারণদের ভালো হয়েছে। এখন সার্টিফিকেট হারাবার কোনো ভয় নেই আবার কেউ ভুয়া সনদে চাকুরী বা অন্যকোনো সুবিধা পেতে চাইলে সহজেই সনাক্ত করা যাবে।

আমি স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি আমার প্রাণপ্রীয় বাংলাদেশ খুব শিষ্র বিশ্বে মাথা উচু করে দাঁরাবে।

মুক্তিযোদ্ধার সনদ পেতে এখানে ক্লিক করুন।

হোম পেজের ডানপাশে অবস্থিত মুক্তিযোদ্ধা অনুসন্ধান লিংকটিতে ক্লিক করুন অথবা সদা জাগ্রত বাংলার মুক্তিবাহিনী ছবিটিতে ক্লিক করুন।

প্রদর্শীত অপশনগুলো থেকে ‍আপনার বিভাগ, জেলা, ‍উপজেলা নির্বাচন করে অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করুন অথবা, ‍আপনার গেজেট নম্বর অথবা, মুক্তিবার্তা নম্বর অথবা, প্রধানমন্ত্রী স্বাক্ষরিত সনদ নম্বর অথবা, আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর
এর যেকোন ‍একটি দিয়ে অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করুন

এবার উপজেলার সব মুক্তিযোদ্ধার লিস্ট দেখাবে।

দ্রুত খুঁজে পাবার জন্য বাংলা ইউনিকোডে সার্চ করুন। এখানে নাম বা পিতার নাম দিতে পারেন।

খুঁজে পাবার পর ক্লিক করলেই মুক্তিযোদ্ধার ছবি সহ সব ডাটা দেখাবে।

এবার প্রিন্ট করে নিন।

এবার এই প্রিন্ট কপিই মুক্তিযোদ্ধার সনদ হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন।

 

Ads by Techtunes - tAds
টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

পোস্টের শিরোনামে ভুল আছে মারাত্বক কারন ওখানে মুক্তিযোদ্ধাদের কোন সনদ পত্র নাই। ওখানে মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানদের ডাটাবেজ তথ্য ফরম পাওয়া যাচ্ছে। ওটা সনদ নয়

ধন্যবাদ ভাইয়া এই বিষয়টি শেয়ার করার জন্য। আমি অনেক খুশি হয়েছি অনলাইনে এর ব্যবস্থা রাখার জন্য। আমিও আমার (মরহুম) আব্বুর মুক্তিযোদ্ধার সনদ পেয়েছি।

এই উদ্যোগটা সত্যি খুবই প্রশংসিত,এত দিনে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা তাদের প্রাপ্য সম্মান পাবেন।স্যালুট টু দেম হু হ্যাভ ডান দিস গ্রেট জব,এন্ড অলসো রিয়াল ফ্রিডম ফাইটারস অফ লিবারেশন ওয়ার ১৯৭১ 😀

উদ্যোগ আসলে প্রশংসিত। কিন্তু আমার প্রশ্ন হল অনেকে যারা সত্যিকার যুদ্ধ করেও এখন পর্যন্ত মুক্তিযোদ্ধা সনদ পাইনি এবং এই উদ্যোগের আগে মারা গেছেন তাদের কি হবে। তারা কি কোন দিনও মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে পরিচিতি লাভ করতে পারবে না। সত্যি কথা বলতে খুজ খবর নিয়ে দেখা যাবে এখন যারা মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে লিষ্টে নাম আছে তার মধ্যে শতকরা 30-40% যুদ্ধ করেনি এমন কি পালিয়ে ছিল কিন্তু এখন এক এক সরকারের রাজনীতির মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে মুক্তিযোদ্ধা সনদ লাভ করেছে।
আমার এই মন্তব্যের জন্য কেউ যদি দুঃখ পেয়ে থাকেন তাহলে আমার দুঃখ্য পাওয়ার কিছু নেই। যেটা সত্য সেইটা আমি লিখলাম।

ভাই আমি ওয়েব সাইটে গিয়ে অনুসন্ধান এ ক্লিক করলে বলে
”নির্দিষ্ট সময় শেষ হবার জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের তথ্য বর্তমানে বন্ধ করা হয়েছে।
পরবর্তী তারিখ নির্ধারন না হওয়া পর্যন্ত মুক্তিযোদ্ধাদের তথ্য সমূহ বন্ধ থাকবে।”

আমাকে একটু হেল্প করবেন। কিভাবে দেখতে পারি।

You must be logged in to post a Tumment.