Ads by Techtunes - tAds
Ads by Techtunes - tAds
  • 92 টিউন

সুপ্রিয় টেকটিউনস কমিউনিটি, আমি "তাহমিদ হাসান"। বগুড়া জিলা স্কুলে নবম শ্রেণিতে পড়ি। জানা এবং সম্ভব হলে কিছু জানানোর জন্যই টেকটিউনসে যোগ দিয়েছি। আমার জন্য দোয়া করবেন।

3 মাস 1 সপ্তাহ আগে

পরিচিত হই বর্তমান টেকটিউনসের সাথে!

Ads by Techtunes - tAds

আসসালামু আলাইকুম।

টেকটিউনস!

টেকটিউনস! পৃথিবীর প্রথম ও বৃহত্তম এবং সবচেয়ে জনপ্রিয় বাংলা ভাষার সামাজিক যোগাযোগ, ব্লগিং প্লাটফর্ম ও অনলাইন সংস্থা। প্রায় ২.৫ কোটির উপরে সদস্য আমাদের এই পরিবারের।  কেউ টিউনার, কেউ টিউডার, কিন্তু আমরা সবাই এই পরিবারের সদস্য। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের পদচারণায় মুগ্ধ এই টেকটিউনস। মেধাবী টিউনারদের বিকাশের অন্যতম প্লাটফর্ম এই টেকটিউনস।

কোথায় যেন হারিয়ে গেল?

 

৬০০০০ টির অধিক টিউন রয়েছে আমাদের প্রাণপ্রিয় এই নেটওয়ার্কে। এখানে এসে একত্র হয়েছে বাংলাদেশের সব মেধাবী টিউনারগণ। তবু যেন এক দুঃস্মৃতি তাড়া করে বেড়ায় এই পরিবারের সবাইকে। পুরনো টেকটিউনস!

যারা হয়ত গতকালই টেকটিউনসে যোগ দিলেন, অন্যদের দেখাদেখি তাদেরও হাহাকার, হায়রে! কোথায় চলে গেল সেই পুরনো টেকটিউনস? কালের স্রোতে কি হারিয়েই গেল? পুরনো টেকটিউনস! আগের সেই টেকটিউনস! টেকটিউনসের সোনালি অতীত! ইত্যাদি সব যেন রূপকথার গল্প।

ফিরে দেখা

না, পুরনো টেকটিউনস হারায়নি। এখনো আপনি ফিরে দেখতে পারেন কেমন ছিল পুরনো টেকটিউ্নস। পুরনো টেকটিউনসকে একবার দেখে আসতে চান? এখানে দেখুন। খুব কি পার্থক্য আজকের দিনের সাথে? হয়ত আজকের মত এত স্প্যাম ছিল না, ছিল না এত স্পন্সরড টিউন, তাও সাধারণ টিউনের মানের পার্থক্য কি খুব বেশি? না।

আসলে টেকটিউনসের মান আমরাই কমিয়ে দিয়েছি। আগে দৈনিক ৪-৫ টা টিউন হত, এখন ৫০ টার মত। মোটেও কথাটা মিথ্যা নয় কিন্তু! এই ৫০ টিউনের মধ্যে ২০ টার মানই আগের মত বা আরো বেশি। আর ১০টা মাঝামাঝি। আর ২০টা স্পন্সরড অথবা স্প্যাম বা স্ক্যাম। এই ২০টাই মূলত টেকটিউনসকে খাচ্ছে। এই ২০টা টিউন বাদ দিন, দেখুন তো, টেকটিউনস কি আসলেই খুব খারাপ অবস্থায়?

আজকের টেকটিউনস

আজকের টেকটিউনসে ভিজিটর কিন্তু মোটেও কমেনি। এটা সত্য, আগে একটা টিউন প্রায় ১৫০০ বার এমনিই দেখা হত, এখন হয় ১৫০ বার। কিন্তু টিউনের সংখ্যাও যে ১০ গুণ। টিউমেন্ট আণুপাতিক হারেও এখন অনেক কম হচ্ছে এটা সত্য হলেও অভিষেকদা কিংবা ফাহাদ ভাইদের মত টিউনারদের টিউনে কি টিউমেন্ট মোটেও কম? উত্তর হল না।

তাই আসুন, পুরনো টেকটিউনসের জন্য কান্না না করে পরিচিত হই এবং গড়ে তুলি নতুন এক টেকটিউনস। এটাই কি বুদ্ধিমানের কাজ নয়?

পুরনোদের প্রতীক্ষায়

পুরনো অনেক মেধাবী টিউনারই টেকটিউনসকে ছেড়ে চলে গেছেন, এটা সত্য। তাদের উদ্দেশ্যে সবসময়ই আমাদের আহ্বান থাকবে ফিরে আসার। যে গেছে তাকে যেতে দিন এর পক্ষপাতী আমি না, বরং আপনাদের ফিরে আসার মূল্য কতটা সেটা পুরদমে টের পাচ্ছি। আপনাদের উদ্দেশ্যে আহ্বান, আপনাদের কাছ থেকে অনেক কিছুই আমাদের পাওনা আছে। আ্পনাদের মিস করছি।

আজও যারা আছেন

তবে এখনও অনেক মেধাবীরাই নিজেদের উজার করে দিয়ে যাচ্ছেন টেকটিউনসের জন্য। বিশেষভাবে সানীম মাহাবীর ফাহাদ ভাইয়ের কথা না বললেই নয়। অভিষেক হাজরা দা এবং আমাদের প্রিয় গেমওয়ালা মোহাম্মদ ফাহাদ ভাইরা আগের মত না দিলেও এখনও সময় দিচ্ছেন। আপনাদের কাছে আমরা আরো আশা করি। আর মোহাম্মদ ফাহাদ ভাই সম্পর্কে টেকটিউনসের কাছে আবেদন থাকল, তার গেমস জোনের ২৯২ নম্বর টিউন অনেক বিতর্ক সৃষ্টি করলেও, তিনি টেকটিউনসকে অনেক দিয়েছেন। তবু তার চেইনে ২৮২ নাম্বার টিউনের পরের রিভিউ গুলো অন্তর্ভূক্ত করা হয়নি। অনুরোধ করছি, ২৯২ নম্বরটি বাদে বাকিগুলো  গেমস জোনে অন্তর্ভূক্ত করা হোক।

নতুন টেকটিউনস ও কিছু সমস্যা

বর্তমান টেকটিউনসের ৩টি বড় সমস্যা হল- স্প্যাম, মানহীন টিউন ও মাত্রাতিরিক্ত এড। এডের পরিমাণ কমালে প্রতিটি টিউনারই উপকৃত হবে, ্হয়ত এতে টেকটিউনসের আয় কিছুটা কমবে। তবুও এটা প্রতিটি টিউনারের চাওয়া। রেজিস্ট্রেশন ওপেন রেখে প্রথম দুটির সমাধান খুব কঠিন। তাই, আমার মনে হয় রেজিস্ট্রেশন প্রতি মাসে বা সপ্তাহে নির্দিষ্ট সময়ে অল্প সময় খোলা রেখে বাকি সময় বন্ধ রাখা উচিৎ। কেন না, মেধাবী টিউনারদের জন্যও টেকটিউনসে প্রবেশের সুযোগ থাকা দরকার। প্রত্যেক টিউনারের প্রথম ২-৪ টি টিউন এডমিন কতৃক এপ্রুভের পূর্বে পাবলিশ না করলে ভাল হয়।

একটি হুমকি!

আমার ফেসবুক বন্ধুতালিকায় থাকা একজন(নাম বলব না) আমাকে মেসেজ করেছিল, তার মেসেজের রিপ্লাই দিই না কেন। তাকে জানিয়েছিলাম, আপনার স্প্যাম দেখতে দেখতে ক্লান্ত। তারপর সে আমাকে যে রিপ্লাই দিল তাতে থাকা তথ্য রীতিমত ভয়ানক, তিনি সংকল্প করেছেন টেকটিউনসকে স্প্যামটিউনস বানিয়ে ছাড়বেন। এজন্য এডমিনের ব্যান খাওয়ার ভয় করছেন না। সতর্কতা স্বরূপ টেকটিউনসে ১৮ টি ভিন্ন নামে ১৮ টি আইডি খুলেছেন! এটা সত্য ঘটনা।

আশার কথা

এতক্ষণ নিরাশার কথা বললাম। বর্তমান টেকটিউনসকে নিয়ে আশারও অনেক কথা আছে। ক্রমেই এডমিনরা আরো সতর্ক হয়ে উঠছেন। আগের চেয়ে তারা এখন অনেক সক্রিয়। যা একটি ভাল বিষয়। আমরা টিউনাররা টেকটিউনসকে সহজেই আরো সুন্দর করতে পারি। তাই আসুন নতুন টেকটিউনসকে গড়ে তুলি নতুনভাবে। এজন্য আমাদের কিছু করণীয়-

  • বেশি বেশি নয়, বরং অল্প সংখ্যক হলেও  ভাল মানের টিউন করি।
  • নিয়মিত টিউমেন্ট করি ও টিউমেন্টের রিপ্লাই প্রদান করি।
  • স্প্যাম পরিহার করি।

এডমিনদের উদ্দেশ্যেও অনুরোধ, এরকম একটা সাইট চালানোর খরচ অনেক আমি জানি। তবু সম্ভব হলে বিজ্ঞাপন একটু কমাতে। আর এ বিষয়ে আরো সতর্ক হতে, যেন আমাদের প্রাণের টেকটিউনস স্প্যামটিউনস না হয়ে যায়। রাম-শ্যাম-যদু-মদুরা যেন শয়ে শয়ে আইডি না খুলতে পারে সেদিকেও নজর দেওয়া উচিৎ। বিভিন্ন সময় সাইট ডাউন হয়ে থাকছে। এটিও একটি বড় সমস্যা। এগুলোও সমাধান প্রয়োজন। বিচক্ষণ মডারেটররা আশা করি এদিকে দৃষ্টি দিবে।

আজকের টিউন এখানেই শেষ করছি। আমি কথাগুলো মন থেকে বলেছি। হয়ত, সবার সাথে মিলবে না। তবুও নিজের মনের কথাগুলো লিখলাম। আল্লাহ হাফেজ।

12 টি টিউমেন্ট on “পরিচিত হই বর্তমান টেকটিউনসের সাথে!

  1. সুন্দর টিউন এবং সহমত পোষন করছি।

  2. কি আর বলব রে ভাই. যত্তসব ফালতু টিউনাররা এসে ভিড় জমাইছে এখানে। টিউন যতক্ষন না পর্যন্ত রিভিউ করা হবে ততক্ষন ভাল টিউন হবে না। তবে রিভিউএর পর ভাল টিউন রাখা আর মানহীন টিউন রিমুভ করার সাথে টিউনারকে সতর্ক করে দেওয়া এবং মান সম্পন্ন টিউন উপহার দিতে উতসাহিত দেওয়া।

  3. কত সুন্দর একটা কমেন্ট করলাম সেটাও “awaiting moderation”…

  4. সুন্দর টিউন এবং সহমত পোষন করছি।

You must be logged in to post a Tumment.