Quantcast
Ads by Techtunes - tAds

এটা ফিজেট স্পিনার নাকি ড্রোন? উড়তেও পারে আবার ঘুরতেও পারে!

0 টিউমেন্টস 288 দেখা প্রিয়

জানিনা, আজকের মানুষ ফিজেট স্পিনারের পেছনে কেন এতো পাগল হয়েছে। অনেকে বলে এটি স্পিন করার মাধ্যমে নাকি মনের চাপ কমে যায় আবার অনেকের মতে জাস্ট ভালো টাইম পাস হয়। কিছুদিন ধরে দেখছি দেশি বিদেশী ই-কমার্স সাইট গুলো চাল, ডাল, পোশাক বিক্রি করা বাদ দিয়ে ফিজেট স্পিনারের অ্যাড দিতেই ব্যস্ত।

আবার ইউটিউবে যে কতো প্রকারের ভিডিও রয়েছে এই ফিজেট স্পিনার নিয়ে, এক মাত্র গুগল ছাড়া আর কেউ গুনতে পারবে না। তবে সবচাইতে আশ্চর্য হলাম তখন, যখন দেখলাম জেরিমি নামের এক ব্যক্তি একটি ড্রোনকে ফিজেট স্পিনারের উপর সেট করেছে, আর এমন একটি ডিভাইজ তৈরি করেছে, যেটা একসাথে ফিজেট স্পিনার আবার ড্রোনও, মানে স্পিনার ড্রোন।

আর এতো মজার একটি এক্সপেরিমেন্ট সম্পর্কে আপনাদের বিস্তারিত না জানানো পর্যন্ত শান্তি লাগছিল না, তাই টিউন লিখতে বসে পড়লাম।

স্পিনার ড্রোন

স্পিনার আর ড্রোন দুইটির আজকের দিনের সবচাইতে ট্রেন্ড ব্যাপার। আর যদি এই দুইটি'কে মিশিয়ে এমন কিছু বানানো যায় যেটা উড়তেও পারে আবার ঘুরতেও পারে তো কতোটা অসাধারণ ব্যাপার হয়, তাই না? ১০ বছরের অভিজ্ঞ এক ইঞ্জিনিয়ার "জেরিমি" ঠিক এভাবেই ভেবে একটি প্রোজেক্ট শুরু করে। তিনি একটি মিনি ড্রোন কেনেন এবং সেটাকে একটি কাস্টম ফ্রেমে ইন্সটল করার চিন্তা করেন।

কারণ ড্রোনের আসল ফ্রেমে সেটাকে ফিজেট স্পিনারের মতো স্পিন করানো সম্ভব ছিল না। জেরিমি কম্পিউটারে প্রথমে একটি কাস্টম ফ্রেমের মডেল তৈরি করেন এবং কম্পিউটার গ্রাফিক্সের মাধ্যমেই নিশ্চিত হন, যে এই ধরনের কিছু সত্যিই বানানো সম্ভব। তিনি অসাধারণ ভাবে নতুন একটি ফ্রেম ডিজাইন করেন এবং সেটাকে তৈরি করেন, আর এর মধ্যে একটি বেয়ারিং জুড়ে দেওয়ার কল্পনা করেন, যাতে এটি হাতে নিয়ে স্পিন করানো যায়।

তার নতুন ফ্রেম সফলভাবে তৈরি করা সম্ভব হলে, এবার পালা ছিল ড্রোনটিকে এই নতুন ফ্রেমে ভিড়িয়ে নেওয়া। তিনি ড্রোনটিকে খুলে এবং কিছু অংশে ড্রোনটিকে কেটে এর মেইন সার্কিট এবং মোটর গুলো মেইন ফ্রেম থেকে আলাদা করা হয়। তিনি ড্রোনটি'র বিন্দু মাত্র কোন ক্ষতি চাচ্ছিলেন না, কেনোনা সম্পূর্ণ এই সার্কিট গুলো এবং মোটর গুলো তিনি নতুন ফ্রেমে বসাতে চলেছিলেন।

আর তার নিজের তৈরি পলিকার্বনেট ফ্রেমে ড্রোনটির ভেতরের পার্টস গুলোকে ইন্সটল করানো কোন সহজ ব্যাপার ছিল না। এখানে ফিজিক্সেরও অনেক ব্যাপার আছে। কেনোনা যদি ঠিক মতো ড্রোনের আকার অনুসারে চারিদিকের ভর ঠিক না করা হয়, তো ড্রোনটি নতুন ফ্রেমে কখনোই উড়তে পারবে না।

এবার তিনি ড্রোনের ভেতরের পার্টস গুলোকে বেড় করলেন আর তার কাস্টম মডেলে ইন্সটল করার চিন্তা শুরু করলেন। সৌভাগ্য বসত এখানে তিনি সিরামিকের বেয়ারিং ব্যবহার করেছিলেন, না হলে নতুন মডেল ফ্রেমের সাথে ড্রোনটি উড়া সম্ভব ছিল না। যাই হোক, যেহেতু নতুন ফ্রেমটি একটি ফিজেট স্পিনারের ন্যয় আচরন করছিলো, তাই বলতে পারেন তিনি স্পিনারের আর্ম গুলোতে ড্রোনের মোটর গুলো ইন্সটল করলেন আর ব্যাটারি সার্কিট বোর্ডকে ফ্রেমের মাঝ বরাবর ইন্সটল করলেন সেন্টার অফ গ্রাভিটি ঠিক রাখার জন্য।

যেরকম যেকোনো আবিস্কারের ক্ষেত্রে ফেইল হওয়া স্বাভাবিক, ঠিক এভাবেই মডেলটি প্রথম অবস্থায় ঠিক ঠিক মতো কাজ করছিলো না। প্রথমে মোটর গুলো ঠিকঠাক মতো ঘুরছিল না। তারপরে সার্কিট পজিসন ঠিক ছিল না। এভাবেই কিছু অসফল স্টেপের পরে শেষে সফলতা মিলে, যেখানে একটি ফিজেট স্পিনারকে ড্রোনে পরিনত করে ঘুরানো আর উড়ানো দুইটিই সম্ভব হয়ে যায়।

যদিও এই ড্রোন টাইপ ফিজেট স্পিনার এক হাতের দুই আঙ্গুল ব্যবহার করে ঘুরানো যায় না, তবে দুই হাত ব্যবহার করে, আপনি একে আরামে ঘুরাতে পারবেন। সাথে রিমোট কন্ট্রোল ব্যবহার করে একে ড্রোনের ন্যয় উরিয়ে একদম পারফেক্ট লান্ডিংও করতে পারবেন। সর্বোপরি দেখতে গেলে প্রজেক্টি অত্যন্ত সফল ছিল আর জেরিমি যা বানাতে চেয়েছিলেন, ঠিক সেটিই বানাতে সক্ষম হয়েছেন।

এই প্রোজেক্টে এতো স্পেশাল কি ছিল?

আপনি হয়তো চিন্তা করতে পারেন, আচ্ছা আই ব্যাপারে এতো বাড়িয়ে ছড়িয়ে টিউন করার কি ছিল! এখানে ছিল নতুন একটি আবিস্কারের গল্প, নতুন কিছু সাহস আর অনিশ্চয়তা'কে নিশ্চিত আবিস্কারে পরিনত করা। তিনি দুইটি অসাধারণ গাজেটকে মিলিয়ে মিশিয়ে একত্র করে দিয়েছেন, আর তৈরি করেছেন আরেকটি নতুন গাজেট।

তিনি প্রথমের দিকে সিউর ছিলেন না যে এরকম কিছু তৈরি করা আদৌ সম্ভব হবে কিনা। তারপরেও তিনি ব্রিলিয়ান্ট একটি ডিজাইন তৈরি করেন যেটা ঘুরা আর উড়া দুইটির জন্যই পারফেক্ট ছিল। তারপরে তিনি সাহস করে একটি ড্রোন'কে ভেঙ্গে তার ভেতর থেকে পার্টস গুলোকে বেড় করে ফেলেন আর নতুন ফ্রেমে সেট করে দেন, যেটা সম্পূর্ণই অনিশ্চিত ব্যবহার ছিল, স্পিনারটিকে উড়ানো সম্ভব হবে কিনা।

তারপরেও তিনি হার মানেন নি, নতুন কিছু সফল আবিষ্কার করেই দম নিয়েছেন। আসলে নতুন কিছু আবিস্কারের মজাটায় আলাদা। এতে অনেক ভয় মিশিয়ে থাকে, থাকে নতুন কিছু উত্তেজনা। হ্যাঁ, ফেইল হওয়ার ভয় তো কাজ করেই, কিন্তু ফেইল হওয়ার ফলেই আমরা বুঝতে শিখি আমাদের ঠিক কোন বিষয় গুলোকে শোধরানো উচিৎ।


একজন প্রযুক্তি প্রেমি হিসেবে নতুন কিছু আবিষ্কার দেখা, আর সেখান থেকে অনুপ্রাণিত হতে অনেক ভালো লাগে। জেরিমি এই স্পিনার ড্রোনটি তৈরি করার সময় নিজেও অনেক মজা নিয়েছিলেন, তার লেখা আর্টিকেল থেকে এটাই জানতে পেরেছি। সাথে তার এই আবিষ্কার'কে তুলে ধরতে গিয়ে আমিও সমান মজা পেলাম।

নিচে আমাকে টিউমেন্ট করে জানান, এই স্পিনার ড্রোন বা ড্রোন উইথ বিল্ডইন ফিজেট স্পিনার আপনার কেমন লেগেছে। সাথে ফিজেট স্পিনারের আর কোন নতুন প্রোজেক্ট আপনার সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে, সবকিছু আমাদের টিউমেন্ট করে জানান। আর হ্যাঁ, আপনার ফিজেট স্পিনার রয়েছে তো? যদি না থাকে, তো এক্ষনি আপনার কেনা উচিৎ, কেন এই ট্রেন্ড থেকে নিজেকে দূরে রাখবেন। হতে পারে আপনিও নতুন কিছু বানিয়ে ফেলবেন, আর সেটা নিয়ে আমি টিউন কভার করবো।

Ads by Techtunes - tAds
টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

You must be logged in to post a Tumment.