Quantcast
Ads by Techtunes - tAds

ডিজাইনে কালার ফন্ট এর ব্যবহার- টাইপোগ্রাফি পার্ট-২

3 টিউমেন্টস 235 দেখা প্রিয়

আচ্ছা আপনি কি ডিজাইনে কালার,ফন্ট কিভাবে ব্যবহার করা উচিৎ,করলে আরো ভালো ডিজাইন আউটপুট পাবেন কিন্তু ঠিক বুঝে উঠতে পারছেন না কি করবেন? বারবার অনেক টিউটোরিয়াল দেখেও ঠিক কাজ হচ্ছেনা। তবে এই টিউনটি আপনার জন্য।

হয়ে উঠুন টাইপোগ্রাফিতে এক্সপার্ট আর ভালো মানের ডিজাইনার


ঠিক সবার সুন্দর সুন্দর ডিজাইন দেখে নিজের কাজে হতাশ !! প্রতিযোগীতার বাজারে টিকে থাকার লড়াইয়ে দিক বিভ্রান্ত,তবে এবার আপনি সঠিক স্থানে এসেছেন। হ্যা, একটি ডিজাইনের প্রাণশক্তি হচ্ছে ভিজুয়্যাল হায়ারেকি। ভিজুয়্যাল হায়ারেকি হচ্ছে কালার, টাইপোগ্রাফি সব মিলিয়ে ডিজাইনে প্রফেশনাল টাচ দেয়ার একটি প্রক্রিয়া।

ভিজুয়্যাল হায়ারেকি টা মূলত কয়েকটি ভাবে বিভক্ত :

১। কালারের ব্যবহার।

একটি ডিজাইনে কতটা কালার ব্যবহার করা উচিৎ,কোন ব্যাকগ্রাউন্ডের সাথে কোন কালারের ফন্ট ইউজ করলে ভালো হবে। কোন কালার কোন টেম্পলেট এ ব্যবহার করা যেতে পারে এসব কালারের মধ্যে পড়ে।

২। ফন্ট সিলেকশন।

একটি ডিজাইনে ২-৩ টি ফন্ট ব্যবহার করা যেতে পারে।

৩। ফন্ট ও কালারের সঠিক ব্যবহার।

ফন্ট এবং কালার সিলেকশনে আরো বেশি সতর্ক হতে হবে। এমন কোন কালার ব্যবহার করা উচিৎ,যা চোখের জন্য আরামদায়ক।

৪। ডিজাইনে অন্যান্য এলিমেন্ট এর ব্যবহার।

ডিজাইনে বাটন এবং হেডিং ফন্ট কালার সাইজ সেটিও একটি হায়ারেকি মেইন্টেইন কওে চলে। হায়ারেকি থাকলে সার্চ ইন্জিনে আরো কার্যকরী ভুমিকা পালন করে।

এসব কিছু সঠিক ভাবে মেইন্টেইন করতে পারলেই আপনার ডিজাইন হয়ে উঠবে আরো প্রাণবন্ত। এসব ভালো ভাবে বুঝার জন্য নিচের দেয়া লিংকে গিয়ে ভিডিওটি দেখে আসুন।

ভিডিও

ধৈর্য্য ধরে দেখলে আশা করছি আপনার সময় বৃথা যাবেনঅ।

Ads by Techtunes - tAds
টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

এগিয়ে যান আল্লাহ আপনার সহায় হোক ……..

দয়া করে পেইড ফন্টের অথবা ভলো ফন্টের লিঙ্ক দিন

You must be logged in to post a Tumment.