Quantcast

৩ডি ন্যান্ড ফ্ল্যাশ মেমোরি এবং স্টোরেজ | ভবিষ্যতের ফ্ল্যাশ ড্রাইভ টেকনোলজি!

0 টিউমেন্টস 1,715 দেখা প্রিয়
কম্পিউটিং

মডার্ন লাইফের প্রত্যেকটি দিন কম্পিউটিং এর সাথে জড়িত আর কম্পিউটিং মানে প্রতিদিন বহু প্রকারের ডাটার সাথে ডিল করা। ডাটা স্টোরেজ টেকনোলজি'তে সত্যিই কয়েক বছরে অনেক উন্নতি আনা সম্ভব হয়েছে। মাকানিক্যায়মান ড্রাইভের মতো কোন মুভিং পার্টস থাকে না এবং ফ্ল্যাশ ড্রাইভ গুলো হার্ড ড্রাইভ থেকে অনেক বেশি ফাস্ট হয়ে থাকে। স্টোরেজ টেকনোলজি'তে ফ্ল্যাশ টেকনোলজি আসার পরে ড্রাইভ গুলোর সাইজ, এবং দাম কমানো এবং কম্পিউটিং স্পীড অনেক গুনে বাড়ানো সম্ভব হয়েছে। কিন্তু তারপরেও ফ্ল্যাশ স্টোরেজ গুলোকে এখনো হার্ড ড্রাইভের মতো সস্তা করা সম্ভব হয় নি! তাহলে নেক্সট ফ্ল্যাশ টেকনোলজিতে কি আসতে চলেছে। ৩ডি ন্যান্ড ফ্ল্যাশ মেমোরি বা ভার্টিক্যাল ন্যান্ড বা ভি ন্যান্ড হবে ফিউচার ফ্ল্যাশ মেমোরির স্ট্যান্ডার্ড। ৩ডি ন্যান্ড কি? —সহজ ভাষায় বলতে গেলে, এটি একটি ফিউচার স্ট্যান্ডার্ড ফ্ল্যাশ মেমোরি, যেটা বর্তমান ফ্ল্যাশ মেমোরি থেকে অনেক ফাস্ট এবং অনেক সস্তা। কিন্তু গীকদের ভাষায় ৩ডি ন্যান্ড কি? —এটি জানার জন্য বাকি টিউনটুকু পড়তে হবে!

৩ডি ন্যান্ড ফ্ল্যাশ মেমোরি

কল্পনা করুণ আপনার কাছে ১ কাঠা জমি রয়েছে যেখানে একটি বাড়ি রয়েছে এবং বাড়িতে মোট ৪টি ঘর রয়েছে। এখন যদি আরোবেশি ঘর তৈরি করতে চান অবশ্যই আরোবেশি জায়গার প্রয়োজন হবে? তাই না? কিন্তু আরেকভাবেও একই জায়গার মধ্যে আরো ঘর তৈরি করা সম্ভব। আর এভাবেই আজকের সকল মডার্ন বিল্ডিং গুলো কাজ করে থাকে। একই জায়গার মধ্যে উঁচু করে তালার উপর তালা উঠিয়ে অনেক ঘর তৈরি করা সম্ভব। এতে জায়গার সাইজ তো একই থাকলো, কিন্তু মানুষ বসবাসের ক্যাপাসিটি অনেক বেড়ে গেলো। ২ডি এবং ৩ডি ফ্ল্যাশের মধ্যে এটিই পার্থক্য। ২ডি ফ্ল্যাশ মেমোরি'তে কোন জায়গার মধ্যে ব্যাস চিপ বসানো থাকে, কিন্তু ৩ডি ফ্ল্যাশ মেমোরিতে এই ফ্ল্যাশের লেয়ার তৈরি করে সেটাকে উলম্ব আকারে বাড়িয়ে সেখানে আরো ১ বা ০ স্টোর করার ব্যবস্থা করানো হয়। যেহেতু উচুভাবে লেয়ার তৈরি করা হয়, তাই স্টোরেজ ড্রাইভের আকার বৃদ্ধি পায় না, একই জায়গা বা সেম সাইজের মধ্যে কয়েক টেরাবাইট আঁটানো সম্ভব হয়।

ফ্ল্যাশ নির্মাতা কোম্পানি'রা বছরের পর বছর ধরে এমনই কোন টেকনিকের পেছনে ছুটছিলেন, যেখানে একই সাইজের ড্রাইভে আরো বেশি ডাটা আঁটানো সম্ভব হয়। তাই ফ্ল্যাশ টেকনোলজি'তে এই মাইক্রোস্কোপিক লেয়ার তৈরি করা হয়েছে আর বেশি ডাটা আঁটানোর লক্ষে। শুধু যে, একই জায়গার মধ্যে বেশি ডাটা স্টোর করা যাবে, সেটা কিন্তু নয়, লেয়ার ফ্ল্যাশ স্টোরেজ আর্কিটেকচারের আরো অনেক সুবিধা রয়েছে। লেয়ার বাই লেয়ার আর্কিটেকচারে ডাটা রীড রাইট স্পীড বাড়ানো সহ ফ্ল্যাশ সেলের মধ্যে লেটেন্সি কমানো সম্ভব।

বিজনেস লেভেল এবং কনজিউমার লেভেল, উভয় লেভেলেই ৩ডি ন্যান্ডের ডিম্যান্ড অনেক বাড়তে চলেছে। বিজনেস গ্রেডে প্রয়োজনীয় হয়, হাই স্পীড প্রসেসিং পাওয়ার সেখানে ৩ডি ন্যান্ড তার লো লেটেন্সি'তে আরমে প্রভাইড করতে পারে। কনজিউমার লেভেলে হাই স্পীড স্টোরেজ, র‍্যাম, এসএসডি'র সাথে এর দামও অনেক কমে যাবে, যেটা থেকে সহজেই অনুমান করা যায়, ভি ন্যান্ডই হলো ফিউচার ফ্ল্যাশ স্ট্যান্ডার্ড!

৩ডি ন্যান্ড এর ফিউচার ড্রাইভ

৩ডি ন্যান্ড স্টোরেজের আমরা কেবল প্রথমের স্টেজে রয়েছি, অবশ্যই সামনের দিকে আরো অনেক উন্নতি লক্ষ্য করতে পারবো। বর্তমানে অনেক ফ্ল্যাশ স্টোরেজ নির্মাতা কোম্পানি ৩ডি ন্যান্ডের উপর কাজ করছে এবং এসএসডি'র রেগুলার সাইজ ২.৫ ইঞ্চির কমিয়ে সেখানে ১০ টেরাবাইট পর্যন্ত ডাটা আঁটানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

আপনি নিজেই চিন্তা করে দেখুন, এখনো পর্যন্ত আপনি কেন আগের যুগের হার্ড ড্রাইভকে আপনার কম্পিউটারে রেখেছেন। অবশ্যই এর দুইটি কারণ, প্রথমত, দাম এবং দ্বিতীয়ত ক্যাপাসিটি। কিন্তু যদি মডার্ন এসএসডি গুলো সিঙ্গেল ড্রাইভে অনেক বেশি ক্যাপাসিটি অফার করে কিংবা দাম হার্ড ড্রাইভের মতো হয়ে যায়, তাহলে হার্ড ড্রাইভের যুগ শেষ হয়ে যাবে। হার্ড ড্রাইভ বা মুভিং পার্টস ওয়ালা স্টোরেজ সলিউসন কখনোই ফ্ল্যাশ মেমোরির স্পীড অর্জন করতে পারবে না।

সিলিকনের অনেক গুলো স্তরকে কেটে এই ৩ডি ন্যান্ড ফ্ল্যাশ সেল গুলোকে তৈরি করা হয়, ৩ডি ফ্ল্যাশ মেমোরিতে সাধারণত ৩২ লেয়ারের সেল বসানো থাকে যেখানে সেলের ঘনত্ব অনেক সুগঠিত ভাবে নিয়ন্ত্রন করা হয়, এতে সেলের মধ্যের বাঁধা কমানো সম্ভব হয় এবং ফলে লেটেন্সি কমে যায়। যদি স্টোরেজকে লেয়ার বাই লেয়ার তৈরি না করে একই জায়গার মধ্যে অনেক ক্ষুদ্র করে সেল আঁটানোর চেষ্টা করা হয়, সেক্ষেত্রে মেমোরি স্পীড কমে যাবে এবং পিং রেট বেড়ে যাবে, কেনোনা সেল গুলোর মধ্যে কানেকশন গণ্ডগোল পাকিয়ে যাবে।

ভবিষ্যতে শুধু র‍্যাম, এসএসডি নয় স্মার্টফোনের ক্ষেত্রেও ৩ডি ন্যান্ড ব্যবহার করা হবে, এতে একই স্পেসের মধ্যে আরো ক্যাপাসিটি আঁটানো সম্ভব হবে। যদি মার্কেটের ডিম্যান্ড এভাবেই বাড়তে থাকে, তবে ভবিষ্যতে আরো উন্নত টাইপের ফ্ল্যাশ ড্রাইভ বা স্টোরেজ সলিউসন হয়তো আমরা দেখতে পাবো। কেনোনা প্রস্তুতকারী কোম্পানিরা যথা সম্ভব দাম কমিয়ে আরো বেটার ড্রাইভ বাজারে আনার চেষ্টা করবে। তখন আপনার স্বপ্নের গেমিং পিসি তৈরি করতে পারবেন, যেখানে থাকবে আলট্রা ফাস্ট কয়েক টেরাবাইটের এসএসডি, সাথে র‍্যাম স্পীডের ক্ষেত্রেও অসম্ভব স্পীড আর লো লেটেন্সি প্রদান করা সম্ভব হয়ে উঠবে।


সামনের দিনে এই ৩ডি ন্যান্ড ফ্ল্যাশ মেমোরি সম্পূর্ণ মার্কেট দখল করে নেবে এতে কোন সন্দেহ নেই। সাথে এই টাইপের মেমোরি'তে ব্যবহার করা হবে আলাদা অ্যালগরিদম। বর্তমানে সিঙ্গেল লেভেল সেলের ন্যান্ড ফ্ল্যাশ দেখতে পাওয়া যায়, যেখানে একটি সেলে কেবল ১বিট'কেই সংরক্ষিত করা যায়। কিন্তু ভবিষ্যতে উন্নতির সাথে সাথে ম্যাল্টি এবং ট্রিপল লেভেল সেল উন্নতি করা সম্ভব হবে—যেখানে একটি সেলে ২-৩ বিট স্টোর করা সম্ভব, মানে সেম সাইজে আরোবেশি ক্যাপাসিটি!

তো এই ছিল ৩ডি ন্যান্ড ফ্ল্যাশ মেমোরি এবং স্টোরেজ নিয়ে আজকের টিউন, যেখানে আমি সকল বেসিক ব্যাপার গুলোকে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। এখানে অনেক টাইপের টেকনিক্যাল বিষয় ছিল কিন্তু সেগুলো সত্যিই অনেক কনফিউজিং, তাই যতোটা সম্ভব সহজ ভাষায় উপস্থাপনা করার চেষ্টা করলাম। তবে আপনার যদি কোন গীক টাইপের প্রশ্ন থাকে, সেটা অবশ্যই আমাকে নিচে টিউমেন্ট করে জানাতে পারেন।

আমি তাহমিদ বোরহান। টেক নিয়ে সারাদিন পড়ে থাকতে ভালোবাসি। টেকটিউন্স সহ নিজের কিছু টেক ব্লগ লিখি। TecHubs ব্লগ এবং TecHubs TV ইউটিউব চ্যানেল হলো আমার প্যাশন, তাই এখানে কিছু অসাধারণ করারই চেষ্টা করি!

টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

You must be logged in to post a Tumment.