Quantcast

অনলাইনে মাত্র ১৫ মিনিট সময় বাঁচিয়ে নিজেকে গড়ে তুলতে পারেন সৃজনশীল মানুষ হিসেবে

6 টিউমেন্টস 669 দেখা প্রিয়
এডুটিউনস

আস সালামু আলাইকুম, আশা করি সবাই ভাল আছেন। ভাল থাকুন প্রতিদিন, প্রতিটি ঘন্টা, প্রতিটি মিনিট আর প্রতিটি সেকেন্ড। এই আমাদের কামনা। প্রতিটি দিনই আপনাদের জন্য কিছু না কিছু নিয়ে আসার চেষ্টা করি। কিন্তু পর্যাপ্ত রেসপন্স পাই না। মানে আপনাদের এই জিনিসগুলো কোনো উপকারে আসছে কি না সেটা তো অন্তত টিউমেন্টে জানাতে পারেন। না জানালে বুঝবো কি করে যে, আপনারা কোন জিনিসটা চাচ্ছেন। যাইহোক, আমার দায়িত্ব আমি পালন করতেছি। আপনার দায়িত্ব আপনি পালন করছেন কি না সেটা তো আমার দেখার অধিকার নাই।

তাই ঐদিকে আর যেতে চাই না। আজ যে টপিক্স নিয়ে হাজির হয়েছি সেটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ সবার জন্য। আমাদের জীবনটা খুবই ক্ষুদ্র। একদিন ছোট ছিলাম, আজ কিছুটা বড় হয়েছি। কিন্তু মনে হয় এই তো সেদিন হাফ প্যান্ট পড়ে ঘুড়ে বেড়াতাম। আবার একদিন হয়ত কবরেও চলে যাবো। আমি বুঝাতে চাচ্ছি সময় কোন দিক দিয়ে চলে যাচ্ছে, আমরা টেরও পাচ্ছি না।

আসলে সময়কে ধরে রাখার কোন প্রযুক্তি এখনও আবিষ্কার হয় নি। তাই আমাদের উচিত হচ্ছে সময়ের সদ্ব্যবহার করা। আমি নিজেও করি না। কিন্তু আমার টিউন পড়ে যদি কেউ উপকৃত হয়, অন্তত তার মন থেকে যে দোয়া করবে সেটা আমার কাজে লাগতে পারে। তাই আজকের টিউনটি।

আসুন আমাদের কিছু রোগের কথা বলি, আমরা অনেকেই অনলাইনে আসি কাজ করার জন্য।কিন্তু দেখা যায়, হয় ইউটিউবে চলে গেছি, আর নাহয় ফেসবুকের কোনো গ্রুপে, আর নাহয় প্রিয় মানুষগুলোর ম্যাসেজের রিপ্লাই দিতে দিতেই সময় শেষ। আমরা আসলে সব সময় বড় সময়টাকে মূল্য দেই। যেমন ৩ঘন্টার পরীক্ষা। চেষ্টা করি সেটার মুল্য দিতে।

কিন্তু এই যে, ফেসবুকে প্রতি মূহুর্তে ক্ষুদ্র ম্যাসেজের কারণে ১২ঘন্টা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে সেটা আমরা বুঝতে পারি না। যখন সময় শেষ হয়ে যায়, তখন মনে হয় সময় কিভাবে চলে গেল বুঝলাম ই না। আমার কাছে তো ২৪ঘন্টাকে ২৪মিনিট মনে হয়। যদিও প্রয়োজন ছাড়া কারো ম্যাসেজের রিপ্লাই দেই না। এক সময় সারাদিন চ্যাটিং করতাম।

একজনকেই এক বছরে প্রায় ৮হাজার ম্যাসেজ দিয়েছি। সেটা ২০১৫ সালের কথা। প্রতিটি ম্যাসেজ এ যদি গড়ে ৩০সেকেন্ড করেও ধরা হয় তাহলে সময় লেগেছে ৪হাজার মিনিট। এরকম আমরা কত জনের সাথে কত চ্যাটিং করি। ফেসবুক গ্রুপ গুলোতে আড্ডা মারি। হিসেব করলে হয়ত জীবনের ১০বছর সময় ফেসবুকেই চলে যাবে।

বাদ দিন সেই কথা যেটা নিয়ে বলার জন্য এই টিউন। আমরা চাইলেই এই অপচয় হওয়া সময়টা থেকে কিছুটা সময় বাঁচিয়ে অনলাইনে অনেক কিছু শিখতে পারি। এতে আমাদের মাথা খুলতে থাকবে। আমাদের মস্তিষ্কে জমা হবে নতুন নতুন জিনিস। তো চলুন কিভাবে সম্ভব সেটা এখন জেনে নিই।

প্রতিদিন নতুন কিছু শিখুন

Now I Know

আড্ডা মেরে বহু সময় নষ্ট করেছি। কিন্তু কোনো লাভ হয় নি। তাই চলুন এইবার আমরা অনলাইন থেকে নতুন কিছু শিখবো প্রতিদিন অল্প অল্প করে। প্রতিটা দিন শুরু করা উচিত নতুন কিছু দিয়ে।কিছু ওয়েবসাইট আছে, যেগুলো আপনার অতি অল্প সময় নষ্ট করে অনেক নতুন নতুন জিনিস সম্পর্কে জানাবে।

আপনি চাইলে উইকিপিডিয়ার ফিচার আর্টিক্যাল এ সাবস্ক্রাইব করতে পারেন। এছাড়া আপনি চাইলে  Now I Know তে রেজিস্টেশন করে রাখতে পারেন। এটা আপনাকে প্রতিদিন আপনার ইমেইলে নতুন কিছু নিউজলেটার পাঠাবে।

আপনি দ্রুত পড়ার অভ্যাস করুন

Learn speed reading

আপনি যদি দ্রুত পড়ার অভ্যাস করুন। এতে কোনো লেখা দেখা মাত্রই আপনি বুঝে ফেলতে পারবেন আসলে সেখানে কি লিখা আছে। এতে আপনার সময় যেমন বাঁচবে, তেমনি বোঝার ক্ষমতা কে বাড়িয়ে দিবে। প্রথমদিকে একটু কষ্ট হবে তবে আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে যাবে। এর জন্য আপনি  Spreeder অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন।

যেকোনো লেখা কপি করে এনে বক্সে পেস্ট করুন আর পড়তে থাকুন। স্পিড কমবেশি করতে পারবেন.১৫টি এ4 সাইজের পেইজ ১৫মিনিটে পড়ে শেষ করার চেষ্টা করুন। এতে ৩০০ওয়ার্ড প্রতি মিনিটে শেষ করার যোগ্যতা আপনি অর্জন করতে সক্ষম হবেন।

গুগল স্টেট ভিউ ব্যবহার করে ঘুড়ে বেড়ান পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে

Google Street View

আপনার বস আপনাকে ছুটি দিচ্ছে না?? কিন্তু আপনার মন চাচ্ছে কোনো দর্শনীয় স্থান দেখতে? তাহলে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া আপনার যেখানে ভ্রমণ করা কখনো সম্ভব না এমন স্থানও পরিদর্শন করতে পারবেন এই স্ট্রেট ভিউ এর মাধ্যমে।

এটাকে এক রকম ভার্চুয়াল টোর বলা যায়। আপনি  geeky virtual tours অথবা  amazing Street View mashups ব্যবহার করতে পারেন। আপনি মাত্র ১৫মিনিটে স্ট্রেট ভিউ এর মাধ্যমে পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে ভ্রমণ করতে পারেন।

অবসর সময়ে টেড টক দেখুন

TEDTalks

ভাইরে দেখতে ইউটিউবের মত মনে হলেও এটা হচ্ছে শুধু জ্ঞানের এরই একটা সমুদ্র। আমি প্রথম যখন ঢুকেছি তখন বের হতেই ইচ্ছে করতেছিল না। আমার মনে হয় একটা মোভিও আপনাকে এতটা আকৃষ্ট করতে পারবে না যতটা আপনাকে এই  TED Talks আকৃষ্ট করবে। নতুন সব টেকনোলজি ও আইডিয়াগুলো এই ওয়েবসাইট ফ্রীতে পৃথিবী ব্যাপি শেয়ার করতেছে।

একেকটা ভিডিও এর ভিউ দেখে আমি নিজেই ক্রাশ খেয়েছি আর বুঝতে পেরেছি আমরা কেন পিছিয়ে। আমরা ইউটিউবে নাটক দেখি। আর উনারা টেকনোলজির নতুন সব আইডিয়াগুলোর ভিডিও দেখে।তাই আমরা পিছিয়ে। আপনি প্রতিদিন মাত্র ১৫মিনিটে ২-৩টা ভিডিও দেখতে পারেন। একদিনে সব দেখতে যাবেন না। তাহলে আবার সমস্যা।

প্রতিদিন একটা করে বিদেশি ওয়ার্ড শিখুন

Learn a foreign language

আপনি যদি প্রতিদিন ১টা করে বিদেশি ওয়ার্ডও ১৫মিনিট সময়ে শিখেন তাহলে বছর শেষে আপনি হয়ে যাবেন ৩০০+ ওয়ার্ডের মালিক। আপনি চাইলে এই  Duolingo থেকে সম্পূর্ণ ফ্রীতে যেকোনো ভাষা শিখতে পারেন।

আপনার প্রিয় শখ বাছাই করুন

Hobbies

আমার প্রিয় শখ কি? সেটা হচ্ছে, কম্পিউটার নিয়ে বসে থাকা। কিন্তু না, এমন শখ দিয়ে কাজ হবে না। শখ টা স্পেসিফিক হতে হবে।মেমন, ফটোশপ হতে পারে। আপনার শখ নির্বাচন করার ক্ষেত্রে দেখতে হবে বিশিষ্ট মানুষগুলোর কোন কোন শখ থাকে। আপনি সেগুলো খুজে বের করুন।

আর সেটাকে শখ হিসেবে গ্রহণ করে প্রতিদিন কমপক্ষে ১৫মিনিট সময় দিন।আপনি চাইলে এই শখ হিসেবে Reddit কে বেছে নিতে পারেন। কারণ এখানে সব পাওয়া যায়।সেখান থেকে ভাল জিনিসগুলো গ্রহণ করুন।

আপনার অপারেটিং সিস্টেম এর কাজ জানুন

Learning on YouTube

আপনার অপারেটিং সিস্টেম কিভাবে কাজ করে সেগুলো জানুন। প্রতিদিন যে অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতেছেন তার অনেক কিছুই আপনি জানেন না। তাই সেগুলো জানার জন্য প্রতিদিন ১৫মিনিট সময় আপনি দিতে পারেন। আপনি যদি ইউটিউবে এই সম্পর্কে ভিডীও দেখতে যান তাহলে অবশ্যই সার্চ করার পর ফিল্টার এ গিয়ে টাইম টা নির্দিষ্ট করে দিবেন যেন তা ১৫মিনিটের বেশি সময় নষ্ট না করতে পারে।

আপনার বইয়ের তালিকা তৈরি করুন

Listopia

আপনার প্রিয় বইগুলোর তালিকা তৈরি করে রাখতে পারেন  Goodreads   অথবা এই Listopia. থেকে পড়তে পারেন।

আপনার চিন্তাগুলো নিয়ে জার্নালে লিখুন

Writing a life log

অবশ্যই আপনি আপনার লাইফ নিয়ে জার্নাল লিখতে পারেন টুইটারের মত ব্লগে। জার্নাল লিখলে আপনি মানসিকভাবে অনেক উপকৃত হবেন। এছাড়া আপনি চাইলে  OhLife ব্যবহার করতে পারেন। মাত্র ১৫মিনিট ব্যয় করতে পারেন এখানে।

আপনার স্মৃতিশক্তিকে আরও বাড়িয়ে নিন

Memorize

আপনি যে জিনিসগুলো সচরাচর ভুলে যান সেগুলো চাইলেই লিখে রাখতে পারেন। আর যখনই ভুলে যাবেন তখনোই সার্চ করে উত্তর জেনে নিবেন। এতে আপনার স্মৃতিশক্তি বাড়বে। আপনি চাইলে Memorize Now  ওয়েবসাইট থেকে অনলাইন ফ্ল্যাশ কার্ড তৈরির মাধ্যমে এই কাজ করতে পারেন।

শরীরচর্চা করুন

7-min-workout

7-minute workout খুবি জনপ্রিয় শরীরচর্চা বিষয়ে সাহায্যের জন্য। আপনি চাইলে সেখান থেকে শরীর্চর্চা শিখতে পারেন। এটা আপনার শরীর আর মনের মধ্য সমন্বয় সাধঅনে সাহায্য করবে।

ধ্যান করুন

মানে কোনো একটা বিষয় নিয়ে প্রতিদিন ১৫মিনিট ভাবুন। এতে হয়ত আপনি নিজেই নতুন কিছু করতে পারবেন।

তাই আজকের মত আপনাদের মাঝ থেকে বিদায় নিচ্ছি। ইনশাআল্লাহ দেখা হবে আগামীকালই অন্য একটি টিউন নিয়ে। ততক্ষন, ভাল থাকুন,সুস্থ থাকুন, প্রযুক্তিকে ভালবাসুন আর প্রযুক্তির সাথেই থাকুন।

আল্লাহ হাফিজ

ফেসবুকে আমি

আমি একজন প্রযুক্তি প্রেমী।কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং এ লেখাপড়া করছি।পৃথিবীকে নতুন কিছু করে দেখাতে চাই।

টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

দুর্দান্ত , অনেক টেকসই একটা টিউন. আপনাদের কারণেই বার বার এই ব্লগে ফিরে আসি . মানসম্মত টিউন বলতে যা বোঝাই ..এটা একটা আদর্শ হয়ে থাকবে . সুখ ও দীর্ঘ আয়ু কামনা করছি আপনার . অনেক ধন্যবাদ .

ভাই ভাল পোষ্ট

You must be logged in to post a Tumment.