Quantcast
ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

লিনাক্স অনেক কঠিন ফালতু আর বাজে এক জিনিস এইসব কি কেউ চালায় নাকি???

আশা করি সবাই ভালোই আছেন।

ADs by Techtunes tAds

বর্তমানে লিনাক্স নিয়ে অনেক লেখালিখি হয়, এবং এসব দেখে অনেকে হয়ত ঝোঁকের বশে লিনাক্স চালাতে গিয়ে কিছু বুঝতে না পেরে হতাশ হয়ে ছেড়ে দেয় বা অনেকে ঠিক মত ইন্সটল করতে না জানার ফলে পুরো হার্ডডিস্ক ফরম্যাট দিয়ে বসে।

আবার অনেকে আছে যারা কিনা ইন্সটল করার পর ভালো না লাগার পরে আনইন্সটল করতে গিয়ে বুট লোডার নষ্ট করে ফেলেন ইত্যাদি আরো কত সমস্যা......

ফলাফল কি হয়?
লিনাক্স অনেক কঠিন, ফালতু আর বাজে এক জিনিস এইসব কি কেউ চালায় নাকি???

হ্যা যারা এরকম বলেন তাদের জন্য আজকের এই লেখা। আপনাদের জন্য বলছি আসুন দেখি আমাদের সাথে আর কে কে লিনাক্স চালায়......

Google

হ্যা নামটি ঠিকই পড়েছেন, Google – The search engine giant। বিশ্বাস করুন আর নাই করুন, গুগলের সার্চ ইঞ্জিন এবং সকল সেবা নিয়ন্ত্রন এবং প্রদান করা হয় লিনাক্স পাওয়ারড সার্ভার পিসি দিয়ে! তাছাড়া তাদের প্রতিস্থানের সকল পিসি চলে লিনাক্স দিয়ে। গুগল মূলত “Goobuntu” ব্যবহার করে। এটি মূলত গুগলের কাস্টমাইজড করা উবুন্টু ভার্সন।

NASA

হ্যা আবারো অবাক হবার বিষয় যে নাসা ও তাদের সকল কাজ এই লিনাক্স পাওয়ারড পিসি দিয়ে করে! শুধু তাই নয়, সবচেয়ে বেশি লিনাক্স ব্যবহারকারি বড় প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে অন্যতম হল নাসা। নাসা তাদের প্রেরিত সকল রোবটে হাইলি কাস্টমাইজড ইউনিক্স অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে থাকে। আর পৃথিবীতে বসে তাদের কন্ট্রোলও করা হয় লিনাক্স দিয়ে!

IBM

ADs by Techtunes tAds

International Business Machine (IBM) তাদের সকল পিসি এবং সার্ভারে লিনাক্স ব্যবহার করত। যদিও বর্তমানে এই কোম্পানিটি কোন পিসি বাজারজাত করে না তারপর আজকের লিনাক্স ডেভেলপমেন্ট এর পিছনে এই কোম্পানিটির বেশ আর্থিক সহযোগিতা ছিল। বর্তমানে এদের পিসি উৎপাদনের শেয়ার লেনোভো নামের একটি কম্পানি কিনে নেয় এবং এরাই এখন তাদের নামে নিজস্ব ব্রান্ডের ল্যাপটপ ও ডেস্কটপ সরবারহ করে থাকে।

Wikipedia

উইকিপিডিয়া হল বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় এনসাইক্লোপিডিয়া। আমরা যারা ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট আছি তাদের কাছের উইকিপিডিয়া হল সকল সমস্যার সমাধান। আর উইকিপিডিয়ার সার্ভার চালিত হয় উবুন্টু দিয়ে।২০০৮ সালে প্রথম উইকিমিডিয়াতে উবুন্টু ব্যবহার শুরু হয়। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি প্রতিমাসে উইকিপিডিয়ায় প্রায় ১০ বিলিয়ন ওয়েব পেজ দেখা হ্য় আর তা দেখা সম্ভব হয় লিনাক্সের কল্যাণে!

CERN

CERN এর নাম হয়ত অনেকেই শোনেননি অথবা শুনলেও জানেন না যে এটা আসলে কি? এটা হল একটি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান যার লক্ষ্য হল পৃথিবীর সবচেয়ে বড় Particle Physics Laboratory নিয়ন্ত্রন করা। বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে ব্যায়বহুল রিসার্চ (Particle Collisions) যা Large Hadron Collider (LHC) নামের একটি মেশিন দিয়ে করা হচ্ছে। এটি করতে প্রায় ১০বিলিয়ন ডলার খরচ করা হচ্ছে। এটি দিয়ে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সাবএটমিক রিসার্চ করা হচ্ছে (আর বিস্তারিত লিখলাম না)। তাছাড়া LHC এর সম্পূর্ণটাই কন্ট্রোল করা এবং পরিচালানাও করা হচ্ছে এই লিনাক্স দিয়ে!

আমরা এখন এই যে ইন্টারনেট ব্যবহার করি, মানে WWW (World Wide Web) এর জন্মও কিন্তু এই CERN এ, যা আমরা অনেকই জানি না। এর আবিস্কারক হলেন টিম বারনাস লি – একজন পদার্থবিজ্ঞানী, যিনি ৮০’দশকে CERN এ কাজের সুবিধার জন্য Hypertext Link আবিস্কার করেন যা পরে WWW তে রূপ নেয়। মজার বিষয় হলেও সত্যি যে CERN তার শুরু থেকেই লিনাক্স ব্যবহার করে আসছে! বর্তমান এই ইন্টারনেট যা ছাড়া আমরা একদমই অচল তাও কিন্তু এসেছে লিনাক্সের হাত ধরে।

মূলত CERN তাদের ডেভেলপ করা SCIENTIFIC LINUX তাদের নিজস্ব ২০,০০০ হাজার সার্ভারে ব্যবহার করে।

IBM iDataPlex

নাম শুনে মনে হতে পারে এ আবার কি জিনিস রে বাবা? এটা হল একটি সুপারকম্পিউটার যা কিনা কানাডার টরেন্টো ইউনিভার্সিটি তে অবস্থিত। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি এতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহার করার জন্য বেছে নেয়া হয়েছে লিনাক্স কে। শুধু তাই নয় বিশ্বের প্রায় ৯১% সুপার কম্পিউটার এ ব্যবহার করা লিনাক্স। এর মূল কারন হচ্ছে লিনাক্স এর superior performance, flexibility, speed এবং lower cost।

Laptop

ADs by Techtunes tAds

বর্তমানে অনেক বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড তাদের ল্যাপটপ রিলিজ করার সময় প্রিইন্সটল্ড অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে বেছে নিয়েছে লিনাক্সকে। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য নাম হল ডেল, এইচ পি এসার, লেনোভো, আসুস। ডেল ব্যবহার করে উবুন্টু, এইচপি ব্যবহার করে রেড হ্যাট লিনাক্স, লেনোভো ব্যবহার করে সুসে ইত্যাদি।

Panasonic

ইলেক্ট্রনিকস জায়ান্ট প্যানাসনিক প্রথম দিকে তাদের কিছু ক্ষেত্রে লিনাক্স ব্যবহার করত। আর তাদের কাজের সকল ক্ষেত্রে ব্যবহার হত WINDOWS NT OS। কিন্তু দেখা গেল উইন্ডোজ তাদের ভয়েস মেইল সিস্টেম এর জন্য একটি পরিপূর্ণ সিস্টেম নয়। তাছাড়া উইন্ডোজ এর উচ্চ লাইসেন্স ফি থেকে মুক্তি পেতে এবং ভয়েস মেইল সিস্টেম ম্যানেজ এর জন্য তারা লিনাক্স কে বেছে নেয় এবং একটি পরিপূর্ণ ভয়েস মেইল টেকনোলজি ডেভেলপ করে। এই ডেভেলপকৃত সিস্টেম এতটাই কার্যকর এবং স্বয়ংসম্পূর্ণ হিসেবে কাজ করা শুরু করে যে প্যানাসনিক অবশেষে সম্পূর্ণভাবে উইন্ডোজকে বিদায় করে দিয়ে লিনাক্স বেজড সিস্টেম ব্যবহার করা শুরু করে।

Cisco Systems

কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং এবং রাউটিং জায়ান্ট সিসকো সিস্টেমস ও তাদের সার্ভারে Windows NT অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করত। কিন্তু এতে করে সিসকোর নেটওয়ার্ক প্রিন্টিং সিস্টেম ঠিক মত কাজ করত না। তাই এই সমস্যা কাটিয়ে উঠতে তারা লিনাক্সকে বেছে নেয়। বর্তমানে তাদের সকল সিস্টেমই লিনাক্স চালিত।

US Department of Defense

বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী এবং সবচেয়ে সুরক্ষিত সিস্টেম হল এই আমেরিকান ডিফেন্স সিস্টেম। এরা মূলত রেড হ্যাট লিনাক্স ব্যবহার করে। তাদের মতে ওপেন সোর্স সফটওয়্যার গুলো হল একটি ইন্ট্রিগ্রেটেড ফ্যাব্রিক এর মত যা কিনা তাদের কমান্ড এবং কন্ট্রোল সিস্টেমকে নিয়ন্ত্রন করতে পারে খুবই দক্ষতার সাথে।

একবার ভেবে দেখবেন কি আপনি ছোট বেলায় যখন উইন্ডোজ ৯৮ চালানো শুরু করেছিলেন তখন আপনি এর ব্যাপারে কতটুকুই বা জানতেন?

লিনাক্স একটি নতুন জিনিস তাই শিখতে অবশ্যই সময় লাগবে, কিন্তু আমাদের সেই ধৈর্য এবং সময় কোনটাই নেই। বরং আমরা চুরি করা উইন্ডোজ চালাতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি।

আসলে এতগুলো কথা শুধু একটি কারনেই লেখা, আর তা হল আমরা জাতি হিসেবে সব সময় নিজের দোষ আরেক জনের উপরে চাপিয়ে দিতে চাই।
আপনি লিনাক্স চালাতে না পারলে তা আপনার ব্যর্থতা, লিনাক্সের নয়। আর যদি তাই হত তাহলে বিশ্বের এই বাঘা বাঘা কম্পানিগুলো কি কখনো লিনাক্সকে বেছে নিত?

ADs by Techtunes tAds

কেউ হয়ত বলতে পারেন এগুলা বলে আমার কি লাভ?
দেখুন ক্যানোনিকাল লিমিটেড যদি তার নিজের টাকা খরচ করে বিদেশ থেকে আমার জন্য উবুন্টুর ডিভিডি পাঠাতে পারে তাহলে আমি তাদের জন্য এইটুকু কি সবাইকে বলতে পারি না?

কিন্তু আপনি যদি একটি ওরিজিনাল উইন্ডোজ এর ডিভিডি পেতে চান তাহলে? এর উত্তর আমি বা নাই দিলাম......

আমার টিউন গুলো ভালো লাগলে অবশ্যই আমার টিউন বেশি বেশি জোসস করুন

আমার টিউন গুলো আপনার 'টিউন স্ক্রিন' নিয়মিত পেতে অবশ্যই আমাকে ফলো করুন। আমার টিউন গুলো সবার কাছে ছড়িতে দিতে অবশ্যই আমার টিউন গুলো বিভিন্ন সৌশল মিডিয়াতে বেশি বেশি শেয়ার করুন

আমার টিউন সম্পর্কে আপনার যে কোন মতামত, পরামর্শ ও আলোচনা করতে অবশ্যই আমার টিউনে টিউমেন্ট করুন

আমার সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য 'টেকটিউনস ম্যাসেঞ্জারে' আমাকে ম্যাসেজ করুন। আমার সকল টিউন পেতে ভিজিট করুন আমার 'টিউনার পেইজ'

ADs by Techtunes tAds

আমি সাজ্জাদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 11 টি টিউন ও 144 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Freedom does matter...... I believe in freedom thats why I use LINUX. Are you?


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

CA

সবাই বলে আমরা চুরি করে উইন্ডোস চালায়। হাইরে বাঙালি, কেউ কিছু জানলে আরেকজনকে তাচ্ছিল্য করতে দেরি করে না। বর্তমানে ২৬,০০০ টাকায় একটি জেনুইন win7 এর উচ্চ পারফর্মেন্সের একটি লেপি পাওয়া যায়। আর বাজারে ফ্রিওয়ার সফটেরও এখন অভাব নাই। সুতরাং আরেকটা ঝামেলা নিয়ে আমাদের মূল্যবান সময়টা কেন নষ্ট করব?

    @CA: ভাই আমি কিন্তু একবার ও লিখি নাই যে উইন্ডোজ খারাপ। তাছাড়া আমি তাদেরকে উদ্দেশ্য করে লিখেছি যারা না বুঝেই লিনাক্স সম্পরকে খারাপ ধারনা ছড়ায়। আশা করি বুঝতে পেরেছেন।

    আরেকটা কথা আপনি বললেন ২৬,০০০ টাকায় হাই পারফরমেন্স win7 ল্যাপটপ পাওয়া যায় সেটা কোনটা? জানবেন কি?

    আর চিন্তা করুন যদি উইন্ডোজ না কিনতে হত তাহলে ল্যাপিটার দাম কত হত?

      CA

      @সাজ্জাদ: HP মিনি লেপি, Dual core intel atom processor, 2gb ram, 3gb hard disk. 1 year warranty. আর কি চাই বলুন। উইন্ডোস ছাড়া হলে এর দাম ২৫০০০ টাকা। বর্তমানে চট্টগ্রামে কম্পিঊটার ভিলেজ এ আছে।
      ভাই আপনি না কিন্তু অনেকেই এটা নিয়ে টিটকারি মারে, আমি তাদেরকে বলেছি।

        CA

        @CA: ৩০০জিবি

        @CA: HP মিনি তো নেটবুক – আমারও আছে একটা জেনুইন উইন্ডোজ সহ। এটার অ্যাটম প্রসেসর আবার হাই পারফর্মেন্স হইলো কবে থেকে। আমার নেটবুকে এর আগে অটোক্যাডের বিকল্প একটা ফ্রী ট্রায়াল ইনস্টল করতে গিয়েছিলাম – বলে এই প্রসেসরের জন্য উহার সাপোর্টই নাই!!

        পরবর্তীতে ওটার এক পার্টিশনে নপিক্স ইন্সটল করে ওতে ক্যাড (লিব্রে ক্যাড) চালাই। লিব্রে ক্যাড অবশ্য উইন্ডোজেও চলে, কিন্তু উইন্ডোজে তো পেন ড্রাইভ বা নেট ব্যবহার করতে গিয়ে কুল্লু খাল্লাস কিংবা চিচিং ফাক হয়ে যেতে পারে।

      @সাজ্জাদ: ভাল বলেছেন।

      @সাজ্জাদ: ভাই আমি উইন্ডোজ ও লিনাক্স দু’টোই ব্যবহার করি। আমি দুটা থেকেই সুবিধা গ্রহন করি । ভাই Linux-এ IDM এর মত কোন Downloader আছে যা দিয়ে youtube থেকে Video Download করা যাবে । এবং যেকোনো Application নামানো যাবে IDM এর মত ।

        @Tasnim Ahmed RiSAN: এজন্য আলাদা সফটওয়্যার ব্যবহার করা যায়। তবে, ফায়ারফক্সের DownThemAll এ্যাড অনটা দিয়ে ডাউনলোড ম্যানেজারে কাজ বেশ ভালভাবেই চলে যায় (এই নাম দিয়ে সার্চ দিয়ে স্ক্রিনশট দেখে নিতে পারেন)। ইউটিউব সহ অসংখ্য সাইট থেকে মিডিয়া নামাতে DownloadHelper নামে একটা ফায়ারফক্স এ্যাড অন ব্যবহার করি। আর বিল্ট ইন টরেন্ট ক্লায়েন্ট তো থাকেই …।

          @শামীম: ভাই বিল্ট ইন টরেন্ট ক্লায়েন্ট শুধু eyewash কাজ করে না । ধন্যবাদ ।

          বিল্ট ইন টরেন্ট ক্লায়েন্ট দিয়ে আমি এখন পর্যন্ত অন্তত শ-খানেক আইএসও ফাইল নামিয়েছি।

চরম পোস্ট! ++++ 😀
এতদিন মিন্টু ব্যবহার করতেছিলাম, আজকে উবুন্টু আর কুবুন্টু নামাইলাম 🙂

ধন্যবাদ।
ভাই কুবুন্টু তো চরম, চালায় দেখেন।

    @সাজ্জাদ: পেনড্রাইভ দিয়া কুবুন্টু লাইভ চালায়া দেখলাম! ইন্টারফেসটা সেইরকম!! 😀
    রেড হ্যাট, ফেডোরা, ওপেন স্যুসে, এইসব ডিস্ট্রো নিয়ে আপনার কাছ থেকে টিউনের প্রত্যাশা থাকল। ধন্যবাদ 🙂

ভাই আমি লেনাক্স মিন্ত ব্যবহার করছি। আমি লেনাক্স রেড হ্যাট ব্যবহার করতে চাই। আমি কি করে লেনাক্স আনইন্সটল করে লেনাক্স রেড হ্যাট ব্যবহার করবো ??? বিস্তারিত জানালে উপকৃত হতাম। আমি নতুন…

টাকা দিয়ে উইন্ডোজ কিনব। তারপর ও লিনাক্স না। সি শার্প / asp.net নিয়ে আসি। লিনাক্স নিয়ে আমার ভাবার টাইম নাই আমার।

ভাই আমার খুব ইচ্ছা করে উইন্ডোজ বাদ দিয়া অন্য কিছু ব্যবহার করতে । উবুন্টুর ডিস্ক কিনেছি কিন্তু ইন্সটল দিতে পারছি না একবার চেষ্টা করলাম কি থেকে কি হল সি ড্রাইভ ২ ভাগ হয়ে গ্যাল পরে ইন্সটল হল কিনা তা বুঝতে পারলাম না ।আবার এক্সপি দিলাম তারপর দেখি অর্ধেক জাইগা নাই ৪০ জিবির বদলে ২০ জিবি দেখাচ্ছে মন্তা খারাপ হয়ে গেল আবার এক্সপি দিতে গিয়ে দেখি ড্রাইভ ২ ভাগ ১ ভাগ এ উইন্ডোজ নিচ্ছে কিন্তু অন্য ভাগটা দেখাচ্ছে না কোনোভাবেই ২ ভাগ একজায়গায় হচ্ছে না বাধ্য হয়ে মনের দুঃখে হার্ড ডিস্ক পারটিসান দিয়ে ঠিক করলাম । তারপর আর ভয়ে চেষ্টা করিনাই কিন্তু আজও আমার খুব ইচ্ছে উবুন্টু ব্যবহার করার । ভাই যেকথাগুলো বললাম সেই সমস্যা ছাড়া সহজেই কিভাবে ইনিস্টল দেওয়া যায় যদি জানাতেন তবে আমি খুব উপকৃত হতাম । অনেক বড় করে লিখলাম কষ্ট করে পড়ার জন্যে ধন্যবাদ । উত্তরের অপেক্ষাই থাকলাম ।

    @nayonb:
    ভাই বাজারে যে সকল ডিস্ক পাওয়া যায় তাতে প্রায়ই সমস্যা থাকে। চেস্টা করুন কার কাছ থেকে Ubuntu র iso জোগাড় করতে। আর যদি পারেন তাহলে ডালো করুন এখান থেকেঃ
    http://www.ubuntu.com/download/desktop

    আর আপনি না জেনেই এই কাজ করে ভুল করেছেন। আপনার উচিৎ আগে এটা ভালো করে শিখে নেয়া। উবুন্টুকে উইন্ডোজ এর ভিতরেই অন্য প্রোগ্রাম গুলার মত ইন্সটল করা এবং রিমুভ করা যায়। তবে এক্ষেত্রে গ্রাফিক্স কার্ড কিছুটা ঝামেলা করতে পারে। এই টিউন টা দেখুনঃ
    http://www.techtunes.com.bd/linux/tune-id/110754

    আপনি যখন চালানো ভালোভাবে শিখে যাবেন তখন আলাদা পার্টিশন করে ইন্সটল করে নিবেন। তার জন্য এটা দেখুনঃ
    http://minhazulhaquebn.blogspot.com/2011/12/blog-post_31.html

    আর বুট করানোর জন্য এই টিউনটা দেখুনঃ
    http://www.techtunes.com.bd/linux/tune-id/119512

    মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

    @nayonb: আপনার ইমেইল আইডি দেন, ইন্সটলেশন গাইড পাঠায়ে দিব।

লেখাটা অসাধারণ। কিন্তু , আমি খেয়াল করলাম, অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানই server চালানোর জন্য linux ব্যাবহার করে।

vai linax er por windows set up dile grub/boot loader recover korbo kivabe?

আসলে লিনাক্স ইউস করলে আমাদের দেশের মানুষের কোনও উন্নতি হবে না। লিনাক্স এ ত কিছুই করা জায় না। নেটওয়ার্ক করে আমাদের দেশের মানুশ কি করবে ? কোনও গেম খেলা জায় না , কোনও প্রফেশনাল সফটওয়্যার ইউস করা যায় না। ফ্রি সফটওয়্যার দিয়ে কখনই প্রিমিয়াম প্রয়োজন পুরন করা সম্ভব না। তাই আমাদের লিনাক্স পরিহার করা উচিত।

    @মোঃ এহসানুল ইসলাম: আপনার মত মানুষের কাছে নেটওয়ার্ক করতে গেলেই লিনাক্স আসে। তো এতই উইন্ডোজের শখ, সার্ভার লাগলে নেটওয়ার্ক বানাতে লিনাক্সে দৌড় লাগান; কেন? তার মানে স্বীকার করে নিলেন যে উইন্ডোজের সিকিউরিটির বেইল নাই।

    আপনার কথিত “প্রিমিয়াম” সফটওয়্যারগুলোর নাম বলেন দেখি? দেড় বছরের বেশী সময় ধরে লিনাক্স এবং শুধুই লিনাক্স ব্যবহার করে চলেছি। যে কাজ সবাই ভিজুয়াল স্টুডিও, MFC, এডোব ড্রিমওয়েভার, সার্ভারএক্সপ্রেস, অটোক্যাড, এফএল স্টুডিও, ইউলিড ভিডিও স্টুডিও, “মাইক্রোসফট অফিস ২০১০” দিয়ে করে, সেটা আমি মাসের পর মাস “ফ্রি” সফটওয়্যার দিয়ে আরো ভালমত চলে যাচ্ছে। এমনকি আমার প্রিন্টারের ড্রাইভারও ফ্রি এবং ওপেনসোর্স। শুনেন, ফ্রি এবং ওপেনসোর্স সফটওয়্যারে এমন কিছু জটিল ফিচার থাকে যেগুলো আপনার “প্রিমিয়াম” সফটওয়্যারে পেতে ঘাম ফেলতে হবে। সংকীর্ণ মানসিকতা দূর করুন। বলতে পারতেন যে লিনাক্স ব্যবহার না করলেও ফ্রি আর ওপেনসোর্সকে সবাগত জানাই।

    এইসব পাইরেসির কারণে দেশের দুর্ণাম না হয় বাদ দিলাম। কিন্তু ভাইরাস সারানো আর সেটআপ দেওয়া বাবদ প্রতিদিন কতগুলা পিসি রিপেয়ার করা লাগে জানেন? সুযোগে পিসির টেকনিশিয়ানরা মোটা টাকা কামাচ্ছে। তার উপর নতুন উইন্ডোজ চালাতে প্রসেসর, কার্ড সব আপডেট করতে হবে। সেখানেও খরচের ঠ্যালা। আপনার কাছে তো প্রিমিয়াম সফটওয়্যারের কদর বেশী। কয়টা প্রিমিয়াম সফটওয়্যার কিনেছেন? বলবেন যে প্যাচ করে চলছে সমস্যা ছাড়াই। প্যাচ করে যে ট্রোজান ব্যাকডোর দিয়ে আনছেন সেদিকে খেয়াল নেই।

    দয়া করে চোখটা খুলে তাকান।

      @মিনহাজুল হক শাওন: শুনেন , বিকল্প ধারা দিয়ে কোনদিন পরিবরতন আনা যায় না। ৯৯.৯ ভাগ কম্পিউটার ইউসার সার্ভার বানানর দরকার নাই। নেটওয়ার্কিং যা লাগে টা ভালই আছে উইন্ডজ এ। ওপেনসোর্স সফটওয়্যার উইন্ডোজ এও চলে , এইটা লিনাক্স এর প্লাস পয়েন্ট কিভাবে হল ? ভাইরাস আর ট্রজান এর ভয় দেখিয়ে মানুষকে উইন্ডোজ থেকে দূরে আসলে রাখা যাবে না। ফ্রি জিনিস আসলে কোনদিন ভাল হয় না , এদের ফলোআপ সার্ভিস ও ভাল হয় না। আপনি চুরি করেই ইউস করেন আর অরিজিনাল কপি এ ইউস করেন , উইন্ডোজ ইউস করে আপনি যে Value for money পাবেন অইটা লিনাক্স এ পাবেন না। আমার পরিচিত এক পরিচিত ওয়েব ডেভেলপার কোম্পানি লিনাক্স ইউস করত , এখন উইন্ডজ ৭ এ কনভার্ট হয়ে গেছে।

      আপনি প্রিমিয়াম সফটওয়্যার এর কথা বলছেন , দিন না আমাকে পৃথিবীর সবচাইতে জনপ্রিয় 3d সফটওয়্যার 3D Studio Max এর লিনাক্স ভার্সন। লিনাক্স এর গ্রাফিচস কার্ড ড্রাইভার সাপরত খুব বাজে , ড্রাইভার আপডেট হয় না বললেই চলে।
      দুনিয়া ত খালি আপনার টাইপিং আর মুভি দেখা না , এখানে অন্যান্য জিনিস ও দরকার আছে। লিনাক্স এ একটা ভাল লেটেস্ট গেম দেখান।

      উইন্ডোজ ৭ এর স্টেবিলিটী লিনাক্স থেকেও অনেক ভাল। আমার তো আজ পর্যন্ত কোনদিন পিসি হেং করে নাই উইন্ডোজ ৭ এ। আমি ফ্রি Microsoft security Essential আন্টিভাইরাস ইউস করছি। আর কেনার কথা বলছেন কেন ? আমার উইন্ডোজ কেনাও আছে , পাইরেটেড ও আছে । দুইটাই সাপোর্ট পাচ্ছি , আপডেট পাচ্ছি আর এর রিসোর্স আছে সারা দুনিয়া জোড়া।

      ফ্রি OS ইউস করতে ভান ভাল কথা , করেন ; আপনাকে তো কেউ আটকায় নাই। সুধু সুধু লিনাক্স থেকে একটা বেটার OS কে আন্ডারমাইন করার কি দরকার।

        @মোঃ এহসানুল ইসলাম: আপনার সবার আগে উচিত টেকটিউনস, ফায়ারফক্স, ক্রোম ইত্যাদি ব্যবহার করা বন্দ করে দেওয়া। কারণ এইসব ফ্রি। আপনার পিসিতে মনোস্পেস, লিবারেশন ফন্ট থাকলে তা মুছে ফেলুন, ওগুলাও ফ্রি। আপনার ভাষ্যমতে ফ্রি জিনিস আসলে কোনদিন ভাল হয় না ।

        আর কেও না জেনে কিছু বললে আমার কাছে চরম ফালতু লাগে। আপনি কিসের ভিত্তিতে বলেন গ্রাফিক্স ড্রাইভার সাপোর্স বাজে? ক্যাটালিস্ট ১২.০৪ কদিন আগেই লিনাক্স, উইন্ডোজের জন্য একসাথে ছাড়া হয়েছে। সেটা ব্যবহার করেই কার্ড চলছে, ওপেনজিএল প্রোগ্রামিং, এন্টিএলাইজিং টেস্ট, রেন্ডারিং সবই স্মুথলি চলছে। বিশ্বাস না হলে এএমডি আর এনভিডিয়ার সাইটে ঢু মেরে দেখুন, ড্রাইভার ক্যাটাগরিতে লিনাক্স জ্বলজ্বল করছে।

        3D MAX চাইলেই পাচ্ছেন বলেই লাফাচ্ছেন। নইলে ঘুরে ঘুরে ফ্রিই খুজতে হত। তা আপনি পাইরেটেড উইন্ডোজ দিয়ে আপডেট করছেন, লজ্জা লাগেনা যে জিনিস “দুনিয়া জোড়া” খ্যাত তার সিকিউরিটি এত যে রিআর্ম করে কোরে ক্রাক ধরিয়ে দিল!!!

        আমি সবসময়ই স্বীকার করি লিনাক্সে উইন্ডোজের তুলনায় ভাল গেম নেই। তবে আপনি এরপর কিছু বলার আগে ভেবে দেখবেন কম্পিউটার মানে কারো কাছেই মুভি দেখা আর টাইপিং করা নয়। আরেকটা কথা বলতে চাই, hp, amd, nvidia, intel, broadcom, samsung, dell এসব কোম্পানি লিনাক্সের জন্য ওপেনসোর্স প্রোজোক্ট শুরু করে দিল, সবকিছুর সাথে লিনাক্স জুড়ে দিল কি শুধু আপনার প্রোপাগান্ডা শুনে? উত্তরটা একদিন নিজেই পাবেন।

        ধন্যবাদ।

          @মিনহাজুল হক শাওন: লিনাক্স ইন্সটল করতে গিয়ে আমার দেখা অনেকের এ হার্ড ডিস্ক নষ্ট হয়ে গেছে ডাটা স্ট্রাকচারের এর ভিন্নতার জন্যে। মডেম আর গ্রাফিক্স কার্ড এর ড্রাইভার সমস্যা সবচাইতে বেশি আর চোরাই সফটওয়্যার এর কথা বলছেন ? দুই বেলা দুই মুঠ ভাত খাইতে পারেন না মিয়া চোরাই সফটওয়ারে এর কথা বলতে আসছেন। লিনাক্স নিয়া মুভি দেখেন আর টাইপিং করতে থাকেন , আর কিছু করা লাগবে না , করতে পারবেন ও না।

        @মোঃ এহসানুল ইসলাম: আরেকটা জিনিস যোগ করা হয়নি, উইন্ডোজে সার্ভারের সবই আছে, তাহলে উইন্ডোজ সার্ভার আলাদা করে কিনতে হয় কেন? উদ্দেশ্যটা কি বুঝেন না একদমই?!?

          @মিনহাজুল হক শাওন:
          মোঃ এহসানুল ইসলাম @মিনহাজুল হক শাওন “লিনাক্স নিয়া মুভি দেখেন আর টাইপিং করতে থাকেন , আর কিছু করা লাগবে না , করতে পারবেন ও না।”
          পড়িয়া প্রীত হইলাম,

          নিয়া প্রজন্ম ফোরামে ছাইড়া দেওন দরকার…..

          @iftakhar.elius, লিনাক্সে মুভি দেখা যায় এটাই বা কম কি! ভাবলাম উনি বলবেন যে লিনাক্সে মুভিও চলেনা!

        @মোঃ এহসানুল ইসলাম: মিনহাজ ভাইতো ঠিকি কইছেন!! তাইতো, টেকটিউনসও ফ্রি, এইটা দেখার জন্য যদি শিয়াল ব্যবহার করেন সেইটাও ফ্রি। ফ্রি মানেই তো বাজে, 😀 তাই টেকটিউনস ভিসিট করা অতিসত্ত্বর বন্ধ করা দরকার! :mrgreen: এখন তো প্রিমিয়াম টেকটিউনসের দরকার, ভাল কথা সেইটার ক্র্যাক/কিজেন পাওয়া যাবে তো? 😉

          @নিওফাইটের রাজ্যে: টেকটিউন্স ফ্রি আপনাকে কে বলল ? টেক্টিউন্স থেকে কি পরিমান আয় হয় অইতা আপনার ধারনাতে থাকার কথা না। আপনি যে সময় দিচ্ছেন এই সাইট এ অইটাই হচ্ছে আজকের জগতে শবচাইতে দামি জিনিষ।

          @ মোঃ এহসানুল ইসলাম:
          টেকটিউনস আয় করে – ঠিকাছে, কিন্তু আপনি কি এতে লেখার জন্য, বা লেখাগুলো পড়ার জন্য টাকা দেন??

          লিনাক্সের পেছনে ও অনেক সময় ব্যয় করি – কারণ এটা শুরু থেকে ব্যবহার করিনি।

          যখন আমার বর্তমান অফিসে উইন্ডোজ ব্যহার করতে হত, তখন ভাইরাস এন্টিভাইরাস, সিস্টেম রিস্টোর ইত্যাদি করে করে উইন্ডোজের পেছনে এর চেয়ে অনেক বেশি সময় ব্যয় করতে হত। একদিন এমন হয়েছিলো যে আগে থেকে স্কেজ্যুল করা একটা পরীক্ষা নিতে পারিনি শুধুমাত্র ভাইরাসের কারণে — মেশিনই স্টার্ট হচ্ছিলো না।

        @মিনহাজুল হক শাওন: @মোঃ এহসানুল ইসলাম: ভাই আমি বুঝলাম যে আপনি ইউন্ডোজের অন্ধ ভক্ত, কিন্তু আমার লেখায় আমি কোথায় লিখেছি যে উইন্ডোজ খারাপ? প্রশ্নের উত্তর পাবো আশা করি।
        আমার মনে হয় না আপনি কখনো লিনাক্স চালিয়েছেন, চালালে এই কথাগুলা বলতেন না।

        আপনি শাওন ভাইকে বলেন মুভি দেখতে আর গান শুনতে লিনাক্সে? আপনি উইন্ডোজে কি করেন জানতে পারি?

        আপনি হয়ত শাওন ভাইকে চেনেন না। উনি আমদের দেশের সবচেয়ে মেধাবী প্রোগ্রামারদের মধ্যে একজন। আশা করি না জেনে কোন কিছু বা কারো সম্পর্কে কোন উক্তি করবেন না। আপনার মত ১জন লিনাক্স না চালালে লিনাক্সের জয়রথ তো আর থেমে থাকবে না।

        খালি সার্ভার কেন? আমার লেখায় সুপার কম্পিউটার এর অংশটুকু কি পড়েন নি? যখন কিছু না লিখেই এত কিছু শুনলাম তাইলে এইবার কিছু লিখি।
        সুপার কম্পিউটারে গান আর মুভি দেখার জন্যই লিনাক্স ব্যবহার করা হয়, তাই না ভাই? আশা করি আপনি জানেন সুপার কম্পিউটার কি জিনিস। আপনার উইন্ডোজ যে এত ভালো তাহলে কেন সুপার কম্পিউটার এ তা ব্যবহার করা হয় না? উত্তর দেবেন?

        আপনি বলেন লিনাক্স এর হার্ডওয়ার সাপোর্ট খারাপ? এইটা শুনলে ভাই যে কেউ হাসতে হাসতেই মরে যাবে। আপনাকে একটা অপশন দেইঃ আপনি আপানার উইন্ডোজটা ফরম্যাট করে আবার ইন্সটল করুন তারপর কনো ড্রাইভার ইন্সটল না করে পিসি চালান তো দেখি কেমন চলে……
        আর ঠিক এই কাজটাই লিনাক্স এ কখনই করা লাগে না।

        সত্যি করে একটা উত্তর দিয়েন, বছরে কয়বার উইন্ডোজ সেটাপ দেয়া লাগে আপনার? উইন্ডোজ ৭ সেটাপ হইতে লাগে ১ ঘন্টা আর স্লো পিসি হইলে তো কথাই নাই। আর লিনাক্সে কতক্ষণ লাগে জানেন? বেশি হলে ১৫মিনিট (পেন্টিয়াম ২ পিসি হইলে)।

        একটা কথা স্বীকার করে নিন যে আপনি লিনাক্স চালাতে জানেন না বা এই সম্পর্কে কিছুই জানেন না। তা আপনার ব্যর্থতা। শাক দিয়ে মাছ ঢাকার তো কোন দরকার নাই।

        আর আপনি পারলে নেট ব্যবহার করাও ছেড়ে দিন কারন অইটাও তো লিনাক্সের অবদান। ফায়ারফক্স, ক্রোম সব বাদ দিয়ে দিন। ওপেন সোর্স যখন চালাবেন তখন কিছু চালায়েন না।

        ও হ্যা কখনো android চালাবেন না, কারন আপনাকে জানিয়ে রাখি অইটাও গুগলের ডেভেলপ করা মোবাইল ওএস যা লিনাক্স কার্নেল পাওয়ারড!

        ভালো থাকুন আপনার উইন্ডোজে………

      @মিনহাজুল হক শাওন:

      আপনি যদি কম্পিউটার দিয়ে কিছু নাই করেতে পারেন তাইলে অই কম্পিউটার আর আমার রান্না ঘরের ডেকচির সাথে পার্থক্য কি ? শরীর ভিজবে বলে সাতার কাটব না , এই হল আপনাদের ভাইরাসের ভয়।
      আর কয়জন গুগল আর নাসা তে জব করে যে তাদের উবুন্টু লাগবে ? ফালতু একটা OS

        @মোঃ এহসানুল ইসলাম: ভাই লিনাক্স ব্যবহার করে নন-আইটি প্রফেশনে থেকেও তো করে খাচ্ছি। এটার সফটওয়্যারগুলো ব্যবহার করে বড় বড় রিপোর্ট, অ্যানালাইসিস, ইঞ্জিনিয়ারিং ডিজাইন, ড্রইং, থ্রিডি মডেল, জিআইএস ম্যাপিং সবই করেছি।
        নিয়ত থাকলেই করা যায়। করতে না পারার জন্য অযুহাতের অভাব হয় না।

        আমার বাসা কিংবা অফিসে এসে সত্যাতা যাচাই করে নিতে পারেন। আমার ইউজারনেম (ইংলিশে যেটা আমার টিউনার পেজের ঠিকানায় দেখায়) দিয়ে গুগলকে বললেই আমাকে খুঁজে নিতে পারবেন।

        এছাড়া যদি সার্ভার ছাড়া আরও ব্যবহার জানতে চান তাহলে উইকিপিডিয়ার লিনাক্স পরিগ্রহণ নামক লেখাটা দেখে আসতে পারেন।
        লিনাক্স পরিগ্রহণ

      @মিনহাজুল হক শাওন: ভাই আপনার চমৎকার বর্ণনার জন্য ধন্যবাদ। আর যে না বুঝতে চায় তাকে বোঝাতে ঘাম ফেলার দরকার নাই।

    @মিনহাজুল হক শাওন:

    ফ্রি এবং ওপেনসোর্স সফটওয়্যারে এমন কিছু জটিল ফিচার থাকে যেগুলো আপনার “প্রিমিয়াম” সফটওয়্যারে পেতে ঘাম ফেলতে হবে।

    চরমভাবে সহমত! মোঃ এহসানুল ইসলাম ভাই, বেশিরভাগ প্রিমিয়াম সফটওয়্যারের পাওয়ারফুল ওপেনসোর্স অল্টারনেটিভ পাওয়া যায় যা প্রিমিয়াম থেকে কোন অংশেই কম নয় বরং অনেকাংশে মেদ বর্জিত! মাইক্রোছফট আপিস যেখানে ৮০০ মেগাবাইট সেখানে তার সব কাজই ১২০ মেগাবাইটের লিব্রে স্যুট দিয়ে করা যায়। আর লিব্রে/ওপেন অফিসের ইক্যুয়েশন এডিটরের মত এত ইউজার ফ্রেন্ডলি এডিটর MS কেন, কোন অফিসেই পাই নাই।
    3D Studio Max না কিজানি! ঔটার অনেক কাজই তো 36MB এর ব্লেন্ডার দিয়ে করা যায়। অন্য কিছু বাদই দিলাম!
    যাই হোক, চোরাই জানলা হোক কী জেনুইন! ফ্রি-ওয়্যার ব্যবহার থেকে কাউকে বিরত করা বা নিরুৎসাহিত করা ভাল না 😡
    বর্তমানে প্রতিটি সফটওয়্যারের যেমন ফ্রি-অল্টারনেটিভ পাওয়া যায়, তাতে প্যাচ-পুচ ব্যবহার করার কোন কারণ দেখি না 🙄

      @নিওফাইটের রাজ্যে: ভালই বলেছেন ( গুগল সার্চ করে উত্তর টা দিলেন মনে হয় ) । কোথায় ব্লেন্ডার আর কোথায় 3ds Max । জিনিস্টা এরকম হল অনেকটা যে ইয়ারফন দিয়েও তো স্পিকার এর কাজ চলে , তাহলে স্পিকার এর দরকার কি ? হা হা হা । চালিয়ে যান।

        @মোঃ এহসানুল ইসলাম: কিঞ্চিৎ ভুল করলেন ভাইজান, এইসব উত্তর পাওয়ার জন্য গুগলের প্রয়োজন নাই। ৬ মাস আগেই সফটওয়্যার সেন্টারে পাইছিলাম, আর গত ৩ মাস যাবৎ শিখতেছি। 😛
        বরঞ্চ, আপনাদের গুগলের কাছে বায়না করা লাগে প্যাচ-ক্র্যাক কিজেনের জন্য 😆
        জিনিসটা ওরকম না, জিনিসটা হল আমার জেনুইন হেডফোনে যখন প্রয়োজনের তুলনায় বেশি আউটপুট পাচ্ছি তখন শুধু বড় ও চোরাই স্পিকার ব্যবহার করাটা বিব্রতকর না? 😛
        যাই হোক, আমার সীমিত চাহিদা পূরণে এইসব ফ্রি/ওপেনসোর্স যথেষ্ট। যাদের চাহিদা আকাশচুম্বী তাঁদেরই তো আকাশচুম্বী দামের মেদবহুল প্রিমিয়াম সফটওয়্যার দরকার!
        ধন্যবাদ 🙂

        @মোঃ এহসানুল ইসলাম:

        লিনাক্স ইন্সটল করতে গিয়ে আমার দেখা অনেকের এ হার্ড ডিস্ক নষ্ট হয়ে গেছে ডাটা স্ট্রাকচারের এর ভিন্নতার জন্যে।
        এটার কি একটু ব্যাখ্যা দিবেন?

          @Mashpy Says: ভাই আমার মনে হয় উনি ২০০২ সালের আগের কথা বলেছেন, কারন বর্তমানে যত ডিস্ক ড্রাইভ আছে সবই লিনাক্স কার্নেল ২.৪ অথবা তার পরের ভার্সন সাপোর্ট করে। আর কার্নেল ২.৪ রিলিজ হইছিল ২০০১ সালে।

          আর উনি যদি না জেনে কাজ করতে যেয়ে ওনার হার্ডডিস্ক খেয়ে বসেন সেই দোষ কি লিনাক্সের নাকি? তবে ওনার কথায় উনি দোষ লিনাক্সকে দিবেন!!!!

    @মোঃ এহসানুল ইসলাম: আগাগোড়া কি ভুল বললেন না? আমি নিজে ১জন গেমার, তবু আপনার কাছে জিজ্ঞেস করছি গেম খেলে আমাদের কোন উন্নতিটা হয়? আর এই সিস্টেমটা দিয়ে যদি প্রফেশনাল কাজ না করা যেত, তাইলে আপনি আমিই লিনাক্স ইউস করতাম, আর এই বড় বড় কোম্পানিগুলা উইন্ডোজ ইউস করত। আমি নিজে গেম খেলার জন্যে উইন্ডোজ ইউস করি, কিন্তু তথ্য প্রযুক্তির বিকাশে লিনাক্স যা করছে তার বিরোধিতা আমি কোনভাবেই করতে পারিনা।

    @মোঃ এহসানুল ইসলাম: ভাইয়া আপনি উইন্ডোজের অন্ধ ভক্ত হতে পারেন কিন্তু তাই বলে অন্য কারো ভালো কাজকে ছোট করে দেখার যৌক্তিকতা কোথায়?লিনাক্স ইউজ করে বাংলাদেশের উন্নতি হবে না?কোথায় পান এই জাতীয় ভুয়া ভাবনা?বাংলাদেশে শিক্ষা প্রতিস্থানে লিনাক্সের জোর ব্যবহার হচ্ছে।লিনাক্সের বয়স আর উইন্ডোজের বয়সের পার্থক্য জানেন?ফ্রী সফটওয়্যার দিয়ে প্রিমিয়াম প্রয়োজন পূরণের দরকার প্রায় পড়েই না বলা চলে কারণ প্রিমিয়াম সফটওয়্যারের চাইতেও ভালো ফিচার ফ্রী সফটেই পাওয়া যায়।আমি কিছুদিন সাইবারলিঙ্ক এক্সপ্রেস ব্যবহার করলাম মিডিয়া সলিউশনের জন্য। কিন্তু তার চাইতেও অনেক ভালো সমর্থন কেএম,ভিএলসি,গমে পাচ্ছি।এটা আসলে প্রত্যেকের মানসিকতার ব্যাপার।আপনার লিনাক্স ভালো লাগে না সমস্যা নেই,এটা ব্যবহার করবেন না।কিন্তু অন্যদের বিভ্রান্ত না করলেই কি নয়?আর এই পোস্টে কোথাও তো উইন্ডোজের বিড়ূপ কিছু বলা হয় নি।আপনার টাকা থাকলে অবশ্যই উইন্ডোজ ব্যবহার করুন কিন্তু তাতে অন্য কেউ যদি একজন রেড হ্যাট সার্টিফাইড লিনাক্স ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তার দক্ষতাকে ছোট করবেন না।পৃথিবীর কোন কিছুই পারফেক্ট হয়ে শুরু হয় না একে পারফেক্ট করা হয়।আশা করি বুঝবেন

      @Ochena Balok: আপনার সখ হলে আপনি ইউস করেন কিন্তু বস্তাপচা রদ্দি মালকে জদি কেউ ভাল বলে তাহলে ত মুখ খুলতেই হবে …

        @মোঃ এহসানুল ইসলাম: উঠানের দোষ দিয়ে লাভ কি! নাচ শেখেন।

          @শামীম: আমি ভেবেছিলাম এহসানুল ইসলাম আর তরঙ্গ ভাইজানদের জবাব দিবো আপনার ১ লাইনারের পর এখন মনে হচ্ছে দরকার নাই এটুকুই যথেষ্ট 😀

উইন্ডোস হল বেস্ট । যারা আমার মত কিছু জানে না তাদের জন্য আরকি ।

vai amar mone hoy windows tao valo ,………………. tobe amar ubuntu chalanor beapok iccha ase………..

    @A learner: ভার্চুয়াল বক্স ইউজাইয়া ইন্সটল কইরা দেইখা লন, ভালো লাগলে ইন্সটল দিবেন।

এত প্রশংসা শোনে লিনাক্স ইন্সটল করলাম এখন্ অবস্থা খারাপ, সাজ্জাদ ভাই আপনার ফেইসবুক বা অন্য কিছুর মাধ্যমে আপনার সাথে একটু যোগাযোগ করতে পারলে ভাল হত, https://www.facebook.com/arif.khan.148

আরে ভাই আমি কিন্তু এটা পড়ে কাউকে ইন্সটল দিতে বলি নাই। আর ভাই না জেনে কাজ করাটা ঠিক না।

আপনার সমস্যাটা এখানে বলুন, দেখি সমাধান করে দিতে পারি কিনা। (ফেবু তে অতটা বসা হয় না)

    @মোঃ এহসানুল ইসলাম: @সাজ্জাদ: ভাই আমি লিনাক্স কয়েক ঘণ্টা চালাইছি ভালই লাগছে, ইন্সটল দেওয়ার পর ১ বার উইন্ডোজ ৭ তে ঢুকি আবার লিনাক্সে ঢুকি, ঢুকাঢুকি করে একটা জিনিস ভালই বুজলাম উইন্ডোজ হল ভারী জিনিস আর লিনাক্স হল পাতলা কাগজ, আর লিনাক্স চালাতে ভালই মজা, এখন সমস্যা হল লিনাক্সে বাংলা লিখতে পারতেছি না, লিনাক্সে কি ইয়াহু মেসেনজার, স্কাইপ এই গুলা কি চালানো যায় না ??? যদি না যায় তাহলে দরজা ভেঙে জানালাই পাকা পোক্ত করা লাগবে 🙁

android , iphoner base holo linux, ami jotutuku jani,

ar jara windows er guno gan gai tara 2 din por pori dekhi virus niao lafai, haire bangali kunu kisu use na koirai kii kharap

ভাই টিউন খুব ভালো লাগছে । এখন windows ইউস করছি কিন্তু জেনুইন না তাই ইচ্ছে আছে ubunto ইউস করার ।

অনেক সুন্দর টিউন। টিউনারকে অনেক ধন্যবাদ… আর আপনি যে কথা গুলো বলেছেন সেটা একদম ঠিক।।

ভালো টিউন। কিপ ইট আপ!

valo lage na

আরে ধুর মিয়া আগে বাঙ্গালী আছিল এনালগ ফকির, আর নেট আইস্যা সব হইছে ডিজিটাল ফকির । তা ফকিরদের আবার মান-সম্মানের প্রশ্ন আসে কোত্থেকে ?? যেভাবে বড় বড় কোম্পানীর টাইটেল লাগাইছেন – তাতে মনে হচ্ছে লিনাক্স ব্যবহার করলে বাঙ্গালীর ফকির নামটা ধুইয়্যা লাট সাহেব হইয়া যাইবো !! এইসব বাংলা ছবির সস্তা মানের হাই-ক্লাস ডায়লগ বাদ দিয়া যান মিয়া ভিক্ষা করেন – ওইডাই আপনের বাঙ্গালীর আসল পরিচয় । চালের পোকা নিয়া চিন্তা করাটা ফকিরদের জন্য প্রযোজ্য নয় ।

    @মিনহাজুল হক শাওন: আপনার উত্তর হল , লিনাক্স যদি এতই ভাল হত তাহলে আপনাকে এখানে এসে পাব্লিসিটি করা লাগত না।@তরঙ্গ: সম্পূর্ণ একমত

      @মোঃ এহসানুল ইসলাম: হা হা হা হা পাবলিসিটি!!! আপনার উইন্ডোজ একটা রিলিজ করার আগে কইবার প্রমো হয় বলতে পারেন? তারপরও খালি বাগ আর বাগ। আপনি বলেন পাব্লিসিটি!!!!!!!

      @মোঃ এহসানুল ইসলাম: উইন্ডোজ ৮ লিখে একটা সার্চ দেন টিটি তে পাব্লিসিটি কিসের হইসে বুঝতে সময় লাগবে না 🙂

      @মোঃ এহসানুল ইসলাম: publicity ত করতেই হবে কিছুটা। windows এর জন্য কি পরিমাণ publicity হয় প্রতিদিন?

      @fisalabdin: ভাই বেষ্ট বলা যাবেনা।@মোঃ এহসানুল ইসলাম: ভাই আপনার কথার সাথে একমত হতে পারলাম না। Linux এর প্রোমোশন করে ওনার কি লাভ। উনার বাস্তব অভিগগতা share করেছেন মাত্র।

মজার কথা হচ্ছে এই টিউন এর হেডলাইন আর কন্টেেন্ট সবাই এক্তু পেচ লাগিয়ে গেছে , এখানে উডাহরন দেখান হইসে কয়েকটা সার্ভার এর জেগুলা লিনাক্স এ চলে। সার্ভার জনিস টা ত মেইনস্ট্রিম কম্পিউটিং না , আমি পারসনাল কম্পিউটীং এর কথা বলছি। সার্ভার হিসাবে লিনাক্স ভাল হতে পারে কিন্তু পারসনাল কম্পিউটার এ লিনাক্স এর কন জায়গা নাই । কোন জিনিষ জনপ্রিয় এম্নিতেই হয় না ,(উইন্ডোজ এর কথা বলছি ) … লিনাক্স খারাপ বলছিনা কিন্তু এর রিসোর্স/সফটওয়্যার এতই লিমিটেড যে আপনি হেন্ডিকেপ্ট হয়ে জাবেন লিনাক্স ইউস করলে। তারা যদি আন্ড্রয়েড এর মত সফটওয়্যার আভেইলাবল করতে পারত তাহলে এক কথা ছিল।

    @মোঃ এহসানুল ইসলাম: ব্যবহার হিসেবে সার্ভার লিখেছি, কিন্তু ঐ কোম্পানিগুলার সব পিসিই লিনাক্স পাওয়ারড। ওখানে লেখা আছে যে গুগল তাদের সকল পিসিতেই উবুন্টু ব্যবহার করে থাকে। এখন নিশ্চয়ই আমি এভাবে লিখব না যে তমুক কম্পানির অমুক মানুষ কিন্তু এই লিনাক্স ইউজায়!!!!!

    ভাই android এর যে কালেকশান তা থেকে লিনাক্স এর কালেকশান আরো অনেক বেটার।

লিনাক্স এর শেষ ভারসন টা আমি চাই?

    @আব্দুর রব: দেখুন লিনাক্স কনো অপারেটিং সিস্টেম নয়। এটা একটা কার্নেল মাত্র যা উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্ট তৈরি করা হয়েছে। আপনি কোনটি চান তা লিখুন। সবচেয়ে জনপ্রিয় হল উবুন্টু এবং এর সর্বশেষ স্ট্যাবল রিলিজ ভার্সন হল ১২.০৪, যা পাবেন এখানেঃ
    http://www.ubuntu.com

আমার মতে জাদের পিসি পুরাতন তাদের জন্য লিনাক্স বেটার । আমি উবুন্তু চালাইসি । খুবই ভাল লাগসে । কিন্তু আমার কিছু কিছু অ্যাপ্লিকেশান ছালাতে হয় জা উইন্ডোজ ছাড়া সম্ভব না । আবার উবুন্টু কেও ভালবেসে ফেলসি । তাই আর কি করা পিসি তে মাইক্রোসফট এর ৭ম জানালা লাগাইসি । আর নোট বুক আ উবুন্টু । শিখুম যখন তখন সব এ শিখুম ।

ও আর একটা কথা । আমার মতে কেউ ই খারাপ না ।লিনাক্স ও ভাল জানালও ভাল ।আমাদের দুটোই রপ্ত করে আমাদের নিজের একটা অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করব যেটা হবে বন্টু , মিন্টু ও জানালার থেকে ১০০০ গুন ভাল ।

দ্রুত টাইপ করতে গিয়ে কিছু বানান ভুল হয়েছে । নিজ গুনে ক্ষমা করবেন । 😀

linux mint is about 100 mb only.Do any one need the iso?

আমি ভাই technology man না। আমি সাধারন কম্পিউটার ইউজার, Word এ রিপোর্ট লিখি, Excel এ analysis করি, powerpoint এ প্রেজেন্টেশন তৈরি করি, অবসর সময়ে নেট ব্রাউজ করি, মুভি দেখি, গান শুনি ইত্যাদি। আমার যতটুকু বিদ্যা তাতে মনে হয়, এই সকল সাধারন কাজের জন্য Windows একটি ভালো ইউজার ফ্রেন্ডলি অপারেটিং সিস্টেম। কিন্তু যারা সফটওয়ার ডেভেলপারের কাজ করে কিংবা এক কথায় কম্পিউটারই যাদের রুটি রুজি তাদের Lenux বেস্ট। এবং আমার সীমিত বুদ্ধিতে যেটি মনে হয়, কম্পিউটার বিষয়ে ভালো কিছু শিখতে হলে Lenux ই সঠিক অপারেটিং সিস্টেম। Window হলো ঠেকা মারা কাজের জন্য ভালো।

    @nil josna: মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। আমি কিন্তু লিখি নাই যে উইন্ডোজ খারাপ। শুধু যারা না জেনেই বলে লিনাক্স খারাপ তাদের উদ্দেশ্য করে লিখেছি। ভালো থাকবেন।

    @nil josna: ভাই ঠিক এই কাজগুলোই আমি, আমার কম্পু বিশেষজ্ঞ (!) বউ আর বায়না করা সন্তান লিনাক্স পাওয়ারড মেশিনে করে। এমনকি আমার সাথে যেইসব পোলাপান থিসিস করে তাঁদেরকে থিসিস, ক্যাপস্টোন ডিজাইন রিপোর্ট এবং ফাইনাল প্রেজেন্টেশন লিব্রে অফিসে করে দিতে হয় (সেটা উইন্ডোজ থেকেও হতে পারে) … … না হলে আমার লিনাক্স মেশিনে ওগুলো ঠিকভাবে যেমন দেখাবে না, আমার করা সাহায্যও ওরা নিতে পারবে না।

    মজার ব্যাপার হল, ওরা লিব্রে অফিস খুব ভালভাবেই চালানো শিখে যাচ্ছে। শিখিয়ে দেয়ার পর এখানে যা কাজ (রিপোর্ট, প্রেজেন্টেশন) করতে পারে, মাইক্রোসফট অফিসেও সেই আউটপুট আনতে পারে না। আমি নিজে আগে উইন্ডোজে মাইক্রোসফট অফিসে কাজ করেছি (বাচ্চাকালে পাইরেটেড, আর বিদেশ গিয়ে লাইসেন্সড) – ওখানে আর লিব্রে অফিসে আমার আউটপুটের মান একই রকম। দুই সফটওয়্যারেই দুই একটা ফাংশন বাদে সবই করা যায়। আপনি জেনে অবাক হবেন যে লিব্রে অফিসের ক্যালক প্রোগ্রামে (যা এক্সেলের মত) এক্সেলের কমান্ডগুলো একই সিনটেক্সে কাজ করে।

    আপনি কাজের জন্য একটা অফিস সফটওয়্যার ব্যবহার করেন, নেট ব্রাউজের জন্য একটা ব্রাউজার ব্যবহার করেন, মুভি দেখা, গান শোনার জন্য প্লেয়ার ব্যবহার করেন। এগুলো ব্যাক এন্ডে হার্ডওয়্যারের সাথে লিনাক্সের মাধ্যমে নাকি উইন্ডোজের এনটি কার্নেলের মাধ্যেমে যোগাযোগ করছে তাতে আসলেই কিছু এসে যায় না। আপনি যদি উইন্ডোজে বসেই লিব্রে অফিস বা ওপেন অফিসে এই কাজগুলো করেন, ফায়ারফক্স বা ক্রোমে ব্রাউজ করেন, ভিএলসি প্লেয়ারে মুভি/গান চালান তাতে লিনাক্সে চালালেও আপনার কিছুই অপরিচিত লাগবে না। কারণ সব প্লাটফর্মেই এই সফটওয়্যারগুলোর কমান্ড ও ইন্টারফেস সব ৯৯% একই আচরণ করে। বাকী ১% বোঝার ক্ষমতা সকলের আছে বলেই জানি।

Vai, Pls Help me. Ami Ubuntu 12.04 LTS er DVD kinchi. C drive a windows ache. tai G Drive a Ubuntu Direct boot korchi. Tobe kono Partition na kore. Akhon ami uninstall korte partechina.. amar G drive ta show korteche na.. Ami ki korbo????????

পুরো পোস্ট টা এবং এর সকল কমেন্ট পড়লাম।
শুধু একটা কথায়ই বলবো। লিনাক্স কখনোই সাধারণের ব্যাবহার উপযোগী হয়ে উঠবেনা। একটাই কারণ, বদখত ইন্টারফেইস।

অনেক লিনাক্স বিজ্ঞকে দেখলাম বড় বড় কথা বলতে। একটা প্রশ্নের জবাব দেন তো। লিনাক্সে কি সফটওয়্যার ইনষ্টল করা যায়?
আমার উত্তর হলো “না”। এখন আপনারা অনেক কথা বলা শুরু করবেন। আগে বলে নিই, আমি গত ২ (দুই) বছর ধরে লিনাক্স ইউজ করতেছি। অনেক বিজ্ঞ ব্যাক্তি আর ফোরামে ঢুঁ মেরেছি। হার্ডডিস্কে রাখা সফটওয়্যার যখন ইচ্ছা ইনষ্টল করবো কিভাবে অদ্যাবধি তা কেউ বলতে পারে নাই। কোন না কোন প্রব্লেম থেকেই যায়।
এখন অবশ্য আপনি বলা শুরু করবেন, আমি তো অমুক এক্সটেনশানের ফাইল, তমুক এক্সটেনশানের ফাইল এক ক্লিকেই ইনষ্টল করি। আপনার এই কথাগুলো হয়তো শুধু আপনার ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। উইন্ডোজ একবার সেট-আপ দেয়ার পর যখন যে সফটওয়্যার খুশি, হার্ডডিস্কের যেখানে থাকুক না কেন, ডাবল ক্লিক করে ইনষ্টল শুরু করেন। ব্যাস হয়ে গেলো। লিনাক্সে কি তা হয়?

টেকটিউনসে মীনহাজুর ইসলাম শাওন ভাই আর নিশাচর নাইম ভাই কে পাগল করে ফেলেছি। উনাদের প্রতি সম্মান রেখেই বলছি, কেউ সিম্পল উপায়টা বলতে পারেন নাই। আসলে উপায় টা যে নাই। উনাদের দোষ দিয়ে কি হবে?
একটা উদাহরণ দেই, ধরুন আপনি অভ্র ইউজ করতে চান। উইন্ডোজে সহজ উপায়ঃ সফটওয়্যার-এর উপর ডাবল ক্লীক করে ইনষ্টল করুন, হয়ে গেলো। এবার, ল্যাঙ্গুয়েজ চেঞ্জ করার জন্য F12 চেপে লিখতে থাকুন।
লিনাক্সে কি তা সম্ভব? প্রথম উত্তর না। এত সহজে ইনষ্টল তো করতে পারবেনই না, আর ইনষ্টল করলেও কাজ শেষ হলো না। এবার সেটিংস-এ গিয়ে ইনপুট মেথড চেঞ্জ করুন। কত ঝামেলা!

আমি শুরুতেই বলেছি, “আমি পারি, আমার তো সহজে হয়, আমার কোন ঝামেলা হয়না” ইত্যাদি কথা চলবেনা। কারণ, সাধারণ ইউজারদের ক্ষেত্রেই তা হয় না।

গুরুত্বপূর্ণ, আপনি (লিনাক্স ব্যাবহারকারী) হয়তো এডভান্সড ইউজার বা একজন প্রোগ্রামার। একজন সাধারণ ব্যাবহারকারী কিন্তু ঝামেলা চাইবে না। আর হ্যাঁ, ৯৯.৯৯% ব্যাবহারকারী কিন্তু সাধারণ ব্যাবহারকারী। কে ভাই খাল কেটে কুমির আনতে চায়?

সর্বশেষ, একটা লিঙ্ক দেই, আপনাদের হয়তো বুঝতে সুবিধা হবেঃ http://www.techtunes.com.bd/linux/tune-id/78806

    @বাংলার নবাব: ভাই আমার মনে হল না যে আপনি পুরাটা পড়েছেন। কারন আমি লিখেছি আমরা উইন্ডোজ প্রায় ১০ থেকে ১২ বছর ধরে চালাই কিন্তু লিনাক্স আমরা চালাতে চাই না। তাই অবশ্যই উইন্ডোজ সহজ এবং লিনাক্স কঠিন!
    আর ভাই আমার লেখা কনো ভাবেই উইন্ডোজ আর লিনাক্সের তুলনা ছিল না, যা অনেকেই বুঝে নাই। আমার টিউন এর প্রথমেই তো লেখা আছে লেখাটা কাদের জন্য।

    ভাই আপনি বললেন যে লিনাক্সের UI বদখত?!!! (মিন্ট আমার কাছে দেখতে ভালো লাগে না, কুবুন্টু ট্রাই করুন) শুনে খুবই অবাক হইলাম! কারন কুবুন্টুর ট্রান্সপারেন্ট থিম যখন উইন্ডোজ কপি কইরা অ্যারো থিম করছে সেইগুলা আপনার কাছে ভাল আর লিনাক্সের চেহারা বলেন ভালো না!!!!! লিনাক্সের স্ক্রিনলেট কপি কইরা যে গেজেট দিসে অইগুলা ভালো লাগে কিন্তু লিনাক্স ভালো লাগে না!
    আপনি কি কম্পিজ চালিয়ে দেখেছেন? এটা দিয়ে যা করা সম্ভব পুরা মাথা খারাপ হইয়া যায় এইটার এফেক্ট দেখলে! আপনার জন্য এই ভিডিও টা দিলাম দেখবেন আশা করিঃ http://www.youtube.com/watch?v=hzfvUKgjJtg&feature=related

    আপনি ডেব ফাইল নামিয়ে “gDebi” দিয়ে এক ক্লিকেই ইন্সটল করতে পারবেন, আবার কম্পিউটারে রেখেও দিতে পারবেন। আর অন্য ফাইল যেমনঃ tar.bz2, rpm ইত্যাদিকে ও ডেব এ কনভারট করা যায়।

    আর ভাই ঝামেলা কেন থাকবে না? উইন্ডোজে কি কোন ঝামেলা নাই?
    মনে করে দেখুন উইন্ডোজ কবে থেকে চলতেসে আর লিনাক্স কবে থেকে যাত্রা শুরু করেছে। এই সাত বছরেই উবুন্টু, উইন্ডোজের মাথা নস্ট করে ফেলেছে। উবুন্টুই এক মাত্র ডিস্ট্রো যাকে কিনা মাইক্রোসফট সমিহ করে চলে। ভেবে দেখুন সাত বছরের শিশু কে ৩৫ বছেরের মাইক্রোসফট সমীহ করে, তাহলে সামনে কি হইতে পারে!!!!

    আর ভাই আমি তো সাধারন ইউজার আমি তো প্রগ্রামিং এর “প” ও জানি না। কিন্তু তারপর ও তো আমার কাছে লিনাক্স কঠিন লাগে নি।

    লিনাক্সে কিছু জিনিস আরো সহজ হওয়া উচিত তা আমি ও মানি। কিন্তু সেটা অইরকম কঠিন নয় যে একজন ইংরেজি পড়তে পারা মানুষ না করতে পারবে।
    ভালো থাকুন।

    @বাংলার নবাব: Vai LINUX er UI jodi bodkhot hoy tobe WINDOWS er classic theme ki? UBUNTU 12.04 er UI dekhsen, WINDOWN 7 er tulonay onek Valo r stylish. LINUX a WINDOWS er sob software install kora jay WINE software die sudhu driver r games chara. Jodi WINDOWS er moto LINUX bebohar korte chan tobe ZORIN-OS namer LINUX install korte paren. ZORIN-OS er UI WINDOWS er motoi. tobe ami UBUNTU recommand kori 2 din use korlei moja poiben, verry ezzzy.

Vai, Pls Help me. Ami Ubuntu 12.04 LTS er DVD kinchi. C drive a windows ache. tai G Drive a Ubuntu Direct boot korchi. Tobe kono Partition na kore. Akhon ami uninstall korte partechina.. amar G drive ta show korteche na.. Ami kivabe uninstall korbo????????

    @Rahad: কিভাবে ইন্সটল করেছেন বিস্তারিত লিখুন।

ভাই, আমি উবুন্তু ১২.০৪ LTS use করি laptop a ………..skype install করতে পারছি না …..সাহায্য চাই

Vai, Ami Ubuntu er DVD dukiye Pc Restart diyechi. Tokhon Direct G drive select kore Ubuntu install korchi. Akhon amar Ubuntu and Windows 2tai ache. ami Ubuntu uninstall korbo… pls help… @সাজ্জাদ

Vai, Ami Ubuntu er DVD dukiye Pc Restart diyechi. Tokhon Direct G drive select kore Ubuntu install korchi. Kono Partition na kore.. Akhon amar Ubuntu and Windows 2tai ache. ….. Akhon Notun vabe windows setup dite gele Ager 4ta shoho New 1ta Drive dekhai…New drive tar name- Unallocated and size 10mb. কিভাবে uninstall korbo?????

দেখুন আপনি যেই ড্রাইভ এ ইন্সটল দিছেন অইটা এখন ext4 JFS এ আছে যা কিনা উইন্ডোজ মাউন্ট করতে পারে না, তাই আপনি উইন্ডোজ এ অই ড্রাইভ দেখতে পান না। ভয়ের কিছু নেই।
ভাই ইন্সটল দিবেন তো বুঝে দিবেন তো নাকি! আপনার বুট লোডার কি উইন্ডোজ না গ্রাব? যদি গ্রাব হয়ে থাকে তাহলে ঝামেলা আছে।

Boot loader mane???
Ami akhon pc Open korle Shober Upore linux ashe and Niche Windows 7 (Loader) ashe..and majhkhane aro 3ta ki koto gulo ashe… Ami Drive 2take Ntfs format kore dekhchi… Tokhon pc r open e hoina. Grub system error dekhai…

Boot loader mane???
Ami akhon pc Open korle Shober Upore linux ashe and Niche Windows 7 (Loader) ashe..and majhkhane aro 3ta ki koto gulo ashe… R Windows setup deoar shomoi amar new 1ta drive show kore jetar size 10mb.. Ami Drive 2take Ntfs format kore dekhchi… Tokhon pc r open e hoina. Grub system error dekhai…… Ki korbo????

    @Rahad: লিনাক্স ইন্সটল দেয়ার সময় আপনার ডিফল্ট বুট লোডার সেট হইছিলো গ্রাব। আপনি লিনাক্সের ড্রাইভ ফরম্যাট করার ফলে তা নস্ট হয়ে গেছে।
    যাই হোক আপনি যদি আপনার উইন্ডোজ এর ড্রাইভ ফরম্যাট না দিয়ে থাকেন এবং রিইন্সটল না করতে চান তাহলে জানাল ৭ এর ডিভিডি দিয়ে বুট করান এবং “Install now” এর নিচে লেখা দেখবেন “Repair your computer”, এটা দিয়ে দেখতে পারেন।
    আর যদি রিইন্সটল করতে চান তাহলে এভাবে কাজ করুনঃ
    C ড্রাইভ ফরম্যাট করে আবার উইন্ডোজ ইন্সটল করুন এবং যে ড্রাইভ এ লিনাক্স দিসিলেন তা উইন্ডোজ সেটাপের সময় আবার ফরম্যাট করে নিন (unallocated size) সহ। তবে একটা থাকে ১০০ মেগা ঐটাতে আবার হাত দিয়েন না।
    আর যদি আপনার লিনাক্স দেয়া ড্রাইভ, ইন্সটলের পরও না দেখায় তাহলে এইটা নামানঃ
    http://download.cnet.com/Aomei-Partition-Assistant-Home-Edition/3000-18512_4-75118871.html
    এইটা দিয়ে এনটিএফএস পার্টিশন করে দেখুন। আর তাও না হলে কোন লিনাক্স ভ্যারিয়েন্টকে লাইভ চালান, সেখান থেকে gparted দিয়ে এনটিএফএস এ ঐ ড্রাইভ টুকু ফরম্যাট করে নিন। আশা করি সমস্যা হবে না।

    আর তাও যদি বুট ঝামেলা করে তাহলে এখানে দেখুনঃ
    http://neosmart.net/wiki/display/EBCD/Recovering+the+Windows+Bootloader+from+the+DVD

    আশা করি সমস্যার সমাধান হবে। আর না বুঝে এই কাজ করবেন না।
    উবুন্টুর iso জোগাড় করুন তারপর ওইটাকে extract করে “wubi” তে ডাবল ক্লিক করে উবুন্টু (inside windows) ইন্সটল দিন। এভাবে করে করলে উবুন্টু উইন্ডোজের ভিতিরে সাধারন প্রগ্রামের মত ইন্সটল হবে, যাকে আপনি উইন্ডোজে ঢুকে সাধারন সফটওয়্যারের মত আন ইন্সটল করে দিতে পারবেন।

Mac mini এপোলোর আছে কিন্তু এতে কি মিন্ট দেয়া যাবে। গেলে কি ভাবে বলবেন?

হাসতে হাসতে শেষ হয়া গেলাম, লিনাক্স ডেস্ট্রো গুলোতে থ্রিডি স্টুডিও ম্যাক্স চালানো যায় না তাই লিনাক্স ভুয়া!!!!!!!!!!!!!!!
১। ভাই ২৬০০০ টাকার নেটবুকে আপনেরে উইন্ডোসের স্টার্টার ভার্সন দেয় যেইটার রিটেইল প্রাইস এখন ৪৫০০/= ……. কি পারলেন খুব একটা লাভ করতে??…. ইন্টেল অ্যাটম ২৬০০/৫৫০/৫৭০/৪৪৫/৪৫০ দেয়া এই সব নেট বুকের দাম ২০-২১০০০ এর বেশি হওয়ার কোনও কারনই নেই….

২।উইন্ডোসের অ্যারো বা ট্রান্সপারেন্সি থিম গুলা কিসের থেকে মারা জানেন ভাই???
৩।লিনাক্সের ওএস চালাইতে গিয়া আপনের পরিচিত অনেকের হার্ডডিস্ক নষ্ট হইয়া গেসে??
ভাই মাফ ও চাই ক্ষমাও চাই……… একটু খুইলা বলেন…
আমি তো জানি হার্ডডিস্ক বিগড়াইলে তখন ডেটা ফরেনসিকস এর জইন্যে লিনাক্সের কাসেই আসন লাগে…
৪। ইদানিং কালে লিনাক্সের ডিস্ট্রো গুলোর ড্রাইভার সাপোর্ট সেইরকম…. হ্যা বাংলাদেশের সার্ভিস প্রোভাইডার রা যেই সব ম্যালা মার্কা জিনিষ নিয়ে আসে এবং সেগুলোর ডিটেইলস সাপোর্ট প্রোভাইড করে না, উদাহরণ স্বরূপ বলা যায় কিউবির ইউ এইচ-২৩৫ এর কথা , আপনি কি যানেন একটা সময় পর্যন্ত লিনাক্সে এর সাপোর্ট ছিলো???? এই মোডেমটা এতটাই ব্যাকডেটেড হয়ে গেছিলো যে এর ড্রাইভার সাপোর্ট লিনাক্সের কার্নেল আপডেটেড হওয়ার সাথে সাথে আপডেটেড হয় নাই….

বাইরের দেশে ৯৯.৯৯% এরকম প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেই জানালার পাশাপাশি লিনাক্সের জন্যও সাপোর্ট দয়া হয়……………..।
“৯৯.৯৯% মানুষ উইন্ডোস ব্যবহার করে”…… এর চাইতে ভুল ধারণা আর হয় না, ভাই দুনিয়া ঘুরিয়া দেখেন……. বেশির ভাগ ডেভলাপমেন্ট এর কাজ, কম্পিউটার ল্যাব ………. সব খানেই লিনাক্সের ডিস্ট্রো গুলো ব্যবহৃত হয়।

গেমস একটা মাইনাস পয়েন্ট, কিন্তু ১০ জিবি গেমস আর ক্রাক ডাউনলোড কইরা খেলার দিন শেষ হইয়া আসতেসে….. ভবিষ্যতে অনলাইন গেমিং এগুলো কে ছাপিয়ে যাবে…….

    @iftakhar.elius: মন্তব্যটি ভাল লাগলো। খারাপ লাগে যখন মানুষ কোন কিছু সম্পর্কে না জেনে অযথা ব্লেইম দেয়। ২০০৭ এর উইন্ডোজ ৭ এ যে ট্রান্সপারেন্সি ইফেক্ট দেওয়া হয় সেটা ১৯৯০ আর আগে থেকেই কেডিই প্রোজেক্টে ছিল। হার্ডওয়্যার বললে মানুষ দোষ দেয় লিনাক্সে ডিভাইস চলেনা। অথচ কতশত ডেভলপর মডিউল বিল্ড করে কার্নেলে লাগাচ্ছে ফলে বাজার থেকে যেকোন ভিডিও কার্ড, অডিও ভিডিও ডিভাইস, প্রসেসর, মোবাইল ফোন লাগালেই কাজ করে সেটা বলেনা। শুধু থার্ড ক্লাস EEPROM ছাড়া মডেম কাজ করেনা বলেই চিল্লায়। আসলে ক্র্যাক কইরা খাইতে খাইতে এমন অবস্থা যে পারলে ব্রাউজারটাকে ক্র্যাক কইরা চালায়।
    আর উনি আমার টেকনিকাল কথার পাল্টা যুক্তি না দিয়া নৈতিকতা দেখালেন। আসলে না জেনে ঢিল মারলে যা হয়!

Vai,apnake onek thanks.. Dekhi try kore. N
a hole abar apnake janabo.. @Sajjad

Vaia amar BANGLALION USB modem ta jodi kono linux distro te chole taile aj k e upgrade kortam 🙁 ami linux live cd diey use kori majhe majhe. Kintu internet er jonno Windows a firey jete hoy. Ami linux er khub khub khub kom bujhi. So BANGLALION USB install korar ekdom easy ekta tutorial er link den or TT te tutorial post koren. Erokom ekta tutorial hole amader onekei linux a ashbe.

Thanks in Advance

    @Julian Assange: ভাই আপনার মডেম যদি ax226,wu216 অথবা us211 হয় তাহলে আপনি বাংলালায়ন লিনাক্স কার্নেল ২.৬.৩৮-৮ (উবুন্টু ১১.০৪ বা তার পরের ভার্সন) এর পরের ভার্সনের যে কোন ডিস্ট্রোতে চালাতে পারবেন। এই লিঙ্ক দেখুনঃ
    http://www.techspate.com/minhazul-haq/7074

    তাছাড়া এখন খুব সহজেই কিউবির শাটল মডেমটি লিনাক্সে চালানো যাচ্ছে। 😀

অনেক ধন্যবাদ ভাই। কাজ হইছে। এখন আর একটা সাহায্য করেন। আমি limited Net use করি, তাই উবুন্টুর ISO file downlowd করতে পারতেছিনা। আমার কাছে উবুন্টু 12.04 LTS এর DVD আছে। এইটা দিয়ে কিভাবে Windows 7 এর সাথে উবুন্টু ব্যবহার করতে পারব। যেন Easily Install এবং Uninstall করা যাই। @sajjad

সবার জন্য এই লিঙ্কটা দিলাম (বিশেষ করে যারা ডেল চালায় (আমি ও চালাই) )ঃ

http://iloveubuntu.net/canonical-and-dell-sell-ubuntu-powered-computers-850-stores

চোরের মায়ের বড় গলা।

শাহী মির্জা ভাইয়ের ফেসবুক ওয়ালে একটা ফেসবুক পোস্ট দিসে দেখুন
আমারা মনে জানেন সাজ্জাদ ভাই ? যারা লিনাক্স এর ব্যাপারে বাজে মন্তব্য করে তারা ওই ম্যানেজারের মত

একসময় আমি এমন একটা জায়গায় চাকরী করতাম, যেখানে আমার উপরের পোস্ট-এর লোকটা বিশ্বাস করতো, সিসকো রাউটার চাইনিজ রাউটার থেকে দুর্বল, এবং এই কারনে আমাকে না জানিয়েই তিনি ঐ রাউটার-এর সব কিছু রিসেট করে ফেলেন, যেটাকে আমার কনফিগার করতে ২ দিন লেগেছিলো আর রিসেট করার পরে উনি আমাকে একটা চাইনিজ রাউটার ব্যাবহার করার নির্দেশ প্রদান করেন।

আমি আশ্চর্য হয়েছিলাম, কারন, ঐ রাতের আগে আমি জানতামই না, যে আইটি ডিপার্টমেন্ট-এ
আরো একজন আছে, যার পোস্ট আমারো উপরে। উনি আইটী ম্যানেজার ছিলেন। আর এই ব্যাপারটা জানতে পারলাম চাকরীর ২০ দিন পরে।

আমার বিস্মিত হয়া ঐদিন থেকে শুরু, নিচে একটা লিস্ট দেই,

১, একবার একটা ক্যানন লেজার-এর ড্রাইভার সফটওয়্যার হারিয়ে গিয়েছিলো। এদিকে সিডিটাও গায়েব। উনি, ফোন মারফত বিভিন্ন জায়গায় খবর নিতে লাগলেন, সিডিটা বাজারে কিনতে পাওয়া যায় কিনা।
কান্ড, দেখে আমি চেয়ারে আয়েস করে ব্যাপারটা শান্তিপুর্ন অবস্থানে থেকে উপভোগ করতে লাগলাম।

তো, তিনি এই ঘটনা, অফিসের ম্যানেজমেন্ট-কে জানালেন, এত গুরুত্বপুর্ন একটা সিডি হারিয়ে যাউয়া নিয়ে তিনি ঝড় তোলে ফেললেন।
উনি বললেন, এখন প্রিন্টার কিনতে হবে, কারন সিডি কেউ প্রিন্টার ছাড়া দিতে রাজি নয়। তবে একজন আছেন, যিনি ২ হাজার টাকায় এই সিডির একটা কপি দিতে রাজী হয়েছেন।

কিছুক্ষন পরে আমি উঠে গিয়ে ক্যানন-এর সাইট থেকে ড্রাইভার ডাউনলোড করে সমস্যাটা ফ্রীতেই সমাধান করে দিলাম। উনি লাফ দিয়ে বললেন, আরে আরে দেখি দেখি, কিভাবে কি করলে???

তখন, টপ ম্যানেজমেন্ট-এর একজন রুম-এ ঢুকলেন, আমাদের হাসি মুখ দেখে বুজলেন প্রব্লেম সল্ভড। আমার ‘আইটি ম্যানাজার’ এই ঘটনার সমস্থ ক্রেডিট নিজের করে নিলেন। উনি কিভাবে এত বড় একটা সমস্যা সমাধান করলেন তার একটা ‘আরব্য রজনী’ বলা শুরু করলেন। আর আমি, গল্প শোনে লজ্জা পাচ্ছিলাম। এই সমস্যার সমাধান ক্লাস ফাইভ পড়া ছেলেটাও করতে পারে। আর উনি এইটাকে ‘তাল গাছ’ বানাচ্ছেন।

২, একই ন্যাটওয়ার্ক-এ দুটা ডিএইচসিপি সার্ভার ইন্সটল করে রেখেছিলেন, এবং দুইটাই সচল ছিলো। তিনি ভাবতেন একটা ফেইল করলে, আরেকটা কাজ করে যাবে। এই বিষয়ে কিছু বলে সময় নষ্ট করতে চাই না।

আরো অনেক ঘটনা আছে, বলে শেষ করা যাবে না। 🙁

বাংলাদেশে আইটি ম্যানেজার বলতে আসলে একজন ননটেকনিক্যাল লোক-কেই বোঝানো হয়। [মনে মনে]

যদিও উইন্ডোজ ৭ হোম প্রিমিয়াম ওরিজিনাল ভার্সন ব্যবহার করি, ল্যাপি কিনার সময় পেয়েছিলাম, এরপরও লিনাক্স শিখতে আগ্রহী,
কোনটা দিয়ে এবং কিভাবে শুরু করব, পরামর্শ চাচ্ছিলাম।
কোনটার ইন্টারফেস সবচেয়ে ভালো?

    @মিজান: মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। আপনি লিনাক্স মিন্ট দিয়ে শুরু করতে পারেন। এটা তে সকল প্রয়োজনীয় কোডেক দেয়াই থাকে। তবে আমি কুবুন্টু ব্যবহার করি। এটা উবুন্টুরই আলাদা একটি ডেস্কটপ ভার্সন। এখানে দেখুন উবুন্টু সম্পর্কে বেশ ভালোই জানতে পারবেনঃ

    http://adnan.quaium.com/blog/category/banglablog

আমি প্রাকটিক্যাল কথা বলি, আমি উইন্ডোজ ও লিনাক্স দু’টোই ব্যবহার করি। গত ১ বছরে আমার ৩ বার উইন্ডোজ সেট-আপ দিতে হয়েছে। কারন উইন্ডোজ কিছুদিন ব্যবহার করার পর ঐটা ঘোড়া থেকে গাধা হয়ে যায়।
কেউ কেউ উইন্ডোজ স্লো হবার জন্য আমাকে দোষ দিতে পারেন কিংবা প্রতিকার বলতে পারেন যেমন- ডিফ্রেগমেন্ড, টিএমপি ফাইল মুছা, রেজিস্ট্রি পরিষ্কার রাখা ইত্যাদি কিন্তু আমি সব করে দেখেছি কোন কাজ হয়না তাই নতুন করে সেট-আপ দিতে হয়। কিন্তু লিনাক্সের বেলায় তা করতে হয়নি। তবে লিনাক্সের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়ে গেছে তাই পুরোপুরি উইন্ডোজ পরিহার করতে পারছি না।

    @Iqbal: ভাই সবাই যদি আপনার মত ব্যবহার করে বুঝত তাইলে তো হইতই!

আমি আজাইরা কামের লেইগা উইন্ডোজ ইউজ করি । প্রফেশনাল সব কাম লিনাক্সে ট্রান্সফার করতাছি, যেদিন আজাইরা কাম গুলাও লিনাক্সে নিয়া আসতে পারমু ……উইন্ডোজরে চিরজীবনের লাই চিরবিদায় দিয়া দিমু ……লিনাক্সে আজাইরা কাম না করতে পারলেও প্রবলেম নাই ……গেম খেলার খিচ বেশী হইয়া গেলে একটা PlayStation 3 / XBOX 360 কিন্না লমু …আজাইরা কামের লেইগা একদম পারফেক্ট জিনিস । ১০০০০ টেকা দিয়া খালি গেম খেলার লেইগা উইন্দুজ এর অরিজিনাল কপি কিনার চাইতে ওইটা ৩০০০০ টেকা দিয়া কেনা অনেক ভালো …… আমি ওয়েব ডেভেলপিং এর কাজ শিখতাছি, আমার মনে হয় এই কামের জন্য সকল প্রয়োজনীয় জিনিস লিনাক্সে আছে …… উইন্ডোজ ছাড়াও আমার দিন যায় …

    @Dark Prince: ভাই আর কিছুদিন অপেক্ষা করেন লিনাক্স গেমিং এর ধারা শুরু হচ্ছে। এনভিডিয়া তাদের বর্তমানে যে ড্রাইভার লিনাক্স এর জন্য বানিয়েছে তা টেস্ট করা গেমস এ উইন্ডোজ থেকে ১৬% বেশি স্মুথ পারফরম্যান্স দিয়েছে। জাস্ট ওয়েট ও সী!

Vai ubuntu-10.10 eita namailam ebong install korlam..So far interface ta valo lagtese kintu problem hoilo qubee shuttle modem ta chalaite partesi na.. keu ki bolte paren qubee modem kivabe install kora jay??

কিছু পোলাপাইন আছে এখানে-সেখানে লিনাক্স, লিনাক্স বলে ভাব নেয় খুব, পিসি তে যাদের কাজ শুধু গানশোনা , মুভি দেখা আর টুকটাক টাইপ করা (এদের ভাইরাস ভীতিও সেইরকম)…….এদের জন্য উবুন্টু, কুবুন্টু পারফেক্ট……..যে বড় বড় অর্গানাইজেশনের কথা বললেন, তাদের জন্য ও পারফেক্ট….কিন্তু মাঝখানে একটা ক্লাস রয়ে গেছে……যাদের কাছে লিনাক্স এখনো উইন্ডোজ এর বিকল্প হয়ে উঠতে পারেনি…..( আশা করছি হয়ে উঠতে পারে যেনো, উইন্ডোজ এর একক আধিপত্য আমারও ভালো লাগেনা)…..কিছু জায়গায় এরা নিজেই যার জায়গায় সে বস…সেখানে বিকল্প দিয়ে কাজ চলেনা (বলদেরাই এখানে একটার সাথে আরেকটার কম্পেয়ার করে) ……পরিশেষে ইউজার ফ্রেন্ডলি বলে একটা কথা প্রচলিত আছে…..যাই হোক, জয়তু লিনাক্স…..জয় হোক ওপেন সোর্স এর …..

    @কৌশিক: আমি কোথায় কম্পেয়ার করলাম বলবেন কি? আমার লেখার উদ্দেশ্য একটাই ছিল তাহল না জেনে লিনাক্সকে কেউ কেন খারাপ বলবে বা লিনাক্স ভিতি ছড়াবে?

আমি ভাই অত শত বুঝি না । আমি Windows-7 আর Kubuntu দুটোই Install করে রেখেছি । মুভি দেখা, গান শোনা বা শুধুমাত্র Internet Browsing করার জন্য Kubuntu ওপেন করি । কারণ উনি আবার Hardware এর সর্বোচ্চ Performance দেন -বিশেষ করে গান শোনার ক্ষেত্রে । তাছাড়া অন্য সব ক্ষেত্রে Windows OS ব্যবহার করি । উনি আবার Software Giant কিনা …

আসলে মূল ব্যপার হচ্ছে- Windows Platform কম্পিউটার জগতে বেশীদিন যাবৎ দাপিয়ে বেড়ীয়েছে । যেরকমটা হয়েছে Australian Cricketer দের বেলায় । ওদের বয়স,অভিজ্ঞতা আর শক্তি বেশী । তাই ওরা বেশীদিন যাবৎ Top Ranking ধরে রেখেছিল ।
=========================================================================
আর Linux হচ্ছে বাংলাদেশী Cricketer. ওদের বয়স, অভিজ্ঞতা আর শক্তি কম । তাই ওরা বেশীদিন যাবৎ Down Ranking ধরে রেখেছিল ।

=========================================================================
শেষে “মিনহাজুল হক শাওন” ভাইকে একটু বকে দিতে চাই । আগে টুকটাক Linux Based প্রশ্ন করতাম বলে এখন মনে হয় আমাকে Blacklisted করে রেখেছে । Call করলে Receive করে না । মাত্র ২বার কল দিয়ে এই অবস্থা ! উনি নিজে কিন্তু Windows . স্বার্থপর আর Not OpenMinded মানে উনি OpenSource নন … ClosedSource=Windows

    @Tanjamin: অচিরেই লিনাক্স টপ র‍্যাঙ্ক এ আসবে এমনই আশা করি!

Dear tuner, please enclose your source first. I am wondering that you have some worng concept. Can you tell me how can you compare commercial software vs open source software? your write-up indirectly indicates this compairsion specially in the last para. You should go through research reports by Gartnar or IDC or you can track via Net Market Share/ StatCounter Global /W3Counter etc. In the laptop section you writing is totally misleading…please go through HP, ACER, LENOVO, DELL, ASUS other PC vendors websites for pre-installed OS in Laptop & Desktop. Please don’t tell us that linux is less expensive than Windows. TCO is high in linux. For very large enterprise linux is perfect as they require mass customization. Please check market share before suggest anyone anything.

    @Tutul: I didn’t mention to use linux. I was wanted to say that do not say anything without knowing proper thing. If you need you may go through the reasearches but I am not here to deal with the market share. Remaber thaht & revision my post if you need.
    Dell , HP, Lenovo, Acer, Asus all have the option to choose the pre-iinstalled OS. Whether you want & here I mentioned that one. If you dont want to use linux dont do it . Who cares!

      @সাজ্জাদ: Please justify “কেউ হয়ত বলতে পারেন এগুলা বলে আমার কি লাভ?
      দেখুন ক্যানোনিকাল লিমিটেড যদি তার নিজের টাকা খরচ করে বিদেশ থেকে আমার জন্য উবুন্টুর ডিভিডি পাঠাতে পারে তাহলে আমি তাদের জন্য এইটুকু কি সবাইকে বলতে পারি না?” but you said to me “I didn’t mention to use linux”. Please relate your these two statements. FYI Microsoft also sends service pack DVD’s & evaluation copy of their new versions if you hold genuine license or MSDN registration.(I got windows 8 Pro dvd before final release) I must share to you that In my organization previous IT team rolled out linux based OS for low cost & high performance issue. Red Hat Enterprise Linux 5 was for server & ubuntu 9.10 for desktops & laptops in 2009. It was devastating. All the employees was needed to trained-up & you can not imagine how much costly it was. Software vendor’s maintaince charge & in-house engineer cost very high for linux based enviroments. Later in early 2011 we were forced go back windows in desktops later in server also. That’s why first i told you “please enclose your source first”. When you recruit people 99% will say they are not familiar with Linux. Anyway We give *000 USD per annum to microsoft for various support purposes. But Red Hat charged *0000 per annum. Now we do not maintain in house large IT team for support as MS send army of engineers if we are in trobule & if they failed they give remote support. Why i use “market share” term do you know that? because you said ” আর যদি তাই হত তাহলে বিশ্বের এই বাঘা বাঘা কম্পানিগুলো কি কখনো লিনাক্সকে বেছে নিত? “. Please please be more specific whatever you write. Finally Thanks for you reply

লিনাক্স হইল লিনাক্স। উইন্ডোজ হইল উইন্ডোজ।
দুইটারই যেমন ভাল দিক আছে(ভাইরাস,কনফিগ), আবার খারাপ দিকও আছে(গেম,সফটওয়্যার ইন্সটল)।

তবে উবুন্টু ব্যবহার করে কেনজানি মনেহল তেমন একটা ইউজার ফেন্ড্রলি না, এখনো এর অনেক কাজ বাকি আছে। বিশেষ করে গ্রাফিকস ড্রাইভার আপডেট দিতে গিয়ে ঝামেলায় পরেছিলাম। এখন আপাতত ব্যাকআপ হিসেবে রেখে দিয়েছি।

    @dracula_: আমি এখনও মাইক্রোসফট অফিস ২০০৭ এর পর থেকে রিবন ইন্টারফেস ব্যবহার করতে পারিনা। পুরাতন ভার্সনে যেই কাজ ৫ মিনিটে করতে পারি, সেটা এই ভার্সনে করতে ৩০ মিনিট লাগে। মেনু সিস্টেম আমার মুখস্থ, চোখ বন্ধ করে কীবোর্ড শর্টকাট দিয়েও কাজ করতে পারতাম।

    কিন্তু নতুন যারা মাইক্রোসফট অফিস শিখছে — আগের মেনু সিস্টেম তাদের কাছে দূঃস্বপ্নের মতই লাগে। মেনু সিস্টেম বেশি ভাল আর রিবন ফালতু বলাতে আমাকে প্রায় মারতে বসেছিলো!!

    কাজেই ইউজার ফ্রেন্ডলিনেস জিনিসটা একটা আপেক্ষিক ব্যাপার। এক দিনে ফ্রেন্ডশিপ তৈরী হয় না। চিনুন জানুন অভ্যস্থ হউন – তারপর ক বলেই কলা নাকি কলিকাতা বলেছে এমনিতেই বুঝে যাবেন।

      @শামীম: কিন্তু মাঝে মাঝেই যে অমুক-তমুক কমান্ড দিতে হয়, এটা থাকলেত আর ইউজার ফ্রেন্ডলিনেসটা থাকলো না। এত কমান্ড মনে রাখবো কিভাবে?

        @dracula_: লিখে কমান্ড দেয়ার মত যেই কাজ সেগুলো না করলেই তো হয়! সাধারণ কাজ কর্মে লিখে কমান্ড দেয়া লাগে না। সফটওয়্যার ইনস্টল তো উইন্ডোজের চেয়েও সহজ – সফটওয়্যার সেন্টারে খালি কাজ লিখবেন – ও উপযুক্ত সফটওয়্যার খুঁজে দেবে – আর ইনস্টল বোতামে চাপ দিবেন; কোনো পাসওয়ার্ড, সিরিয়াল কিংবা ক্র্যাক/কিজেন – এসব খোঁজার/পেস্ট করার ঝামেলা নাই। উবুন্টু বা মিন্ট ইনস্টল আর উইন্ডোজ ইনস্টল কোনোটাতেই কোনো কমান্ড লিখতে হয় না। লিব্রে অফিস, গিম্প বা অন্য সফটওয়্যারে কাজের জন্য কমান্ড লেখার দরকার নাই। গত এক বছরে নিজের পিসিতে (বাসায়/অফিসে উবুন্টু/লিনাক্স মিন্ট চালাই) মোট ৫টা কমান্ডও লিখে দেয়ার দরকার হয়েছে বলে মনে পড়ে না।
        আর কিছু ক্ষেত্রে ১০ টা ক্লিক দেয়ার চেয়ে এক লাইনের কমান্ড দেয়া বেশি ফ্রেন্ডলি মনে হয় আমার। যদি কোনো বিশেষ কাজের জন্য ঘন ঘন একটা কমান্ড ব্যবহার করা ছাড়া গতি না থকে তাহলে সেটার একটা লাঞ্চার (শর্টকাট কী/আইকনের মত) বানিয়ে রাখেন — তারপর খালি ক্লিকাইবেন :‌)

          @শামীম: কিন্তু কিছু কিছু কাজে/ট্রাবলশুটিং/সফটওয়্যার কনফিগের সময়তো কমান্ড ছাড়া কোন উপায় পাই না।
          যেমন, কনকি সেটাপ দিতে গিয়ে নেটে দেখে দেখে প্রচুর ঝামেলা করে কোনমতে সেটআপ দিলাম (অবশ্যই একগাদা কমান্ড দিয়ে :p ) কিন্তু এখন কমান্ড ছাড়া চালু হয়না (সেটআপের পর আর গুতাগুতি করি নাই, ঝামেলা হইলে আবার এক ঘন্টা!) ।

          আবার একবছর আগে ডেক্সটপে গ্রাফিকস ড্রাইভার ইন্সটলের সময়ও কি কি হাবিজাবি কমান্ড দি্তে হয়েছিল(উবুন্টুতে দেয়া ড্রাইভার আনইন্সটল করতে, নাহলে এনভিডিয়ারটা কাজ করে না) যদিও কোন লাভ হয়নি (এনভিডিয়ার উবুন্টু সার্পোট তখন ভালো ছিল না, এখন কেমন তা অবশ্য জানিনা) ।

          কিন্তু উইন্ডোজে রেইনমিটার দেয়ার সময় তেমন কোন কমান্ড-টমান্ড দিতে হয়নি।

          আর নেটে কম্পিজের সহজ কোন টিউটো পাইনি। (অবশ্য পেলেও লাভ নাই, বারবার গ্রাফিকস ড্রাইভার চায়, আমার আর ড্রাইভার সেটআপ দেয়ার শখ নাই :p )

        @dracula_: আপনার কথা সত্য। কংকি সেটাপের কোন গ্রাফিকাল পদ্ধতি পাই নাই। তবে কংকি যদি বেশিরভাগ লোকের জন্য কোন প্রোডাক্টিভ জিনিষ হত (যেমন অফিস সফটওয়্যার, গ্রাফিক্স সফটওয়্যার বা ক্যাড সফটওয়্যার) তাহলে এটার সহজ ইন্টারফেস চলে আসতো বলেই আমার বিশ্বাস।

        আমি একবারই শুধু দেখার জন্য কংকি সেটাপ করেছিলাম, শুধু একটা ফাইল খুলে কিছু লেখা কপি-পেস্ট করে দিয়েছিলাম (কৃতজ্ঞতা অয়ন খান)। তখন কোডগুলো দেখে মনে হয়েছিলো, এটাতে আসলে নির্দিষ্ট কিছু সিনটেক্সে কিছু নির্দিষ্ট প্যারামিটার (ভ্যারিয়েবল) দিতে হয়, যা দেয়ার জন্য চাইলেই গ্রাফিকাল ইন্টারফেস বানিয়ে দেয়া খুব কঠিন কিছু হবে না।

        প্রথম প্রথম কম্পিজ, ডক ইত্যাদি নিয়েও বেশ ইফেক্ট-টিফেক্ট দিতাম, তবে এখন সবই বন্ধ রাখি — কারণ কম্পিউটারে কিছুদিন যাবত বেশ প্রোডাক্টিভ কাজ হয় (কনসালটেন্সি/ইঞ্জিনিয়ারিং রিপোর্ট, অ্যানালাইসিস, প্রেজেন্টেশন ইত্যাদি) যাতে অফিস সফটওয়্যার (লিব্রে অফিস – রাইটার, ক্যাল্ক, ইম্প্রেস ইত্যাদি), গ্রাফিক্স সফটওয়্যার (ম্যাপ, পিডিএফ ইত্যাদি মনমত সাজাতে – গিম্প, ইঙ্কস্কেপ, পিডিএফ শাফলার ইত্যাদি), জিআইএস (কোয়ান্টাম জিআইএস, GVSIG), ক্যাড (লিব্রে ক্যাড, ব্লেন্ডার), প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট (প্ল্যানার) এসব লাগে। কোন ক্ষেত্রেই কম্পিজ আর কংকি কোনোই কাজে লাগাতে পারি নাই, তাই শুধু শুধু ওগুলোর পেছনে সময় আর প্রসেসিং পাওয়ার নষ্ট করার দরকার দেখি না আমি। স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করা ডেভেলপারগণের মাথায়ও সম্ভবত সহজ গ্রাফিকাল ইন্টারফেস তৈরীর পেছনে সময় দেয়ার ক্ষেত্রে এই ধরণের প্রায়োরিটি কাজ করে।

আমার এই টিউনটা দেখতে পারেন, অনেক আগের … http://www.techtunes.com.bd/linux/tune-id/32229

আমি গত দুই বছর হলো আমার ল্যাপটপে উবুন্টু ব্যবহার করছি।এর পূর্বেও অনেকবার উবুন্টু ব্যবহার শুরু করেছিলাম, এবং বিভিন্ন কারণে উইন্ডোজে ফিরতে বাধ্য হয়েছিলাম। তারপর পণ করলাম, কিছুতেই ব্যাক করবো না। আমার ডেস্কটপে উইন্ডোজ আর ল্যাপটপে উবুন্টু। এখন আমি উবুন্টু ব্যবহারে পুরোপুরি সাবলীল। সফটওয়্যার ইন্সটল/আনইন্সটল করতে শেখা, উইন্ডোজ এপ্লিকেশনের বিপরীতে উবুন্টুর প্রয়োজনীয় এপ্লিকেশনগুলি খুজে বের করা এবং ইন্সটল করা, বিভিন্ন ফোরামের সহায়তা নেয়া, উবুন্টুতে ফটো এডিট করতে শেখা, ভিডিও এডিট করা, ওয়েব সার্ভার ইন্সটল করা এবং আইডিই ইন্সটল করে ওয়েবসাইট ডেভেলপ করা – আসল কথা হচ্ছে উইন্ডোজ পরিবেশে যে কাজগুলো করতাম তার সবগুলোই উবুন্টুতে করতে পারার চেষ্টায় রত ছিলাম। এখন আমি বলতে পারি এই প্রচেষ্টা আমার পুরোপুরি সফল।

লিনাক্সে ইনডিজাইন সি এস ৫ নাই, VZO নাই, ম্যাথ টাইপ নাই, আইটিউনস নাই, আমার অফিসের জন্য যে সফট বানাইছি তার লিনাক্স ভার্সন নাই, মিডিয়া প্লেয়ার ক্লাসিক হোম সিনেমা নাই, আইডিএম নাই, ভিজুয়াল বেসিক নাই। এসবই আমার জন্য খুবই দরকারী। এসব যেখানে নাই আমি কেন লিনাক্স চালাবো? ঘোড়ার ঘাস কাটতে?

ভালো লাগা ও খারাপ লাগা ব্যাপার গুলো আপেক্ষিক । যার কাছে যেটা ভালো লাগে, ব্যবহার করতে থাকেন। নিজের ভালো লাগা অন্যের উপর চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করবেন না ।

জী ভাই লিনাক্স বোদ্ধারা , আমি আপনাদের অনুপ্রেরনায় উবুন্টু ইনস্টল করতে গিয়ে বিরাট জামেলায় পরেছি . উইন্ডোজ এর সাথে পার্সিয়ালি উবুন্টু সেটাপ দেই . তার পর দেখি আমার উইন্ডোজ গেছে হারাইয়া . কি করি ভেবে নেটে সার্চ করে easy BCD নামের সফটওয়ার পাই . ওটা ইনস্টল করে ডুয়েল বুট চালু করি . কিছু তো হলোই না বরঞ্চ , এখন আমার পিসি গেছে নষ্ট হইয়া . নতুন করে উইন্ডজ রিইনস্টল করে যখন পিসি স্টার্ট করি , দেখি keyboard not found massage দেখাচ্ছে , এর পর দেখি আমার পিসি আর shutdown হচ্ছে না . shutdown দিলে দেখায় যে পিসি shutdown হইছে ,বাট পিসির প্রসেসসর ফ্যান চলতেছে , কুলিং ফ্যান চলতেছে . শেষে এখন পাওয়ার অফ করার জন্য ডিরেক্ট পিসি উন্প্লাগ করতে হয় . ও আরেকটা ব্যাপার যে, আমি OZ Unity ইনস্টল দিয়ে দেখি পিসি ঠিকই shutdown হচ্ছে ,কিন্তু ওটা আমার কাছে বিরাট ফালতু লাগে . আমি আপনাদের রিভিউ আর উবুন্টুর ফোরামের পোস্ট পড়ে উবুন্টুর প্রেমে পরেছিলাম . আর এখন এই প্রেম আমারে পোড়াইয়া অঙ্গার করতেছে . আমি এখন কি করতে পারি জানালে খুবই উপকৃত হব . এভাবে আর কিছুদিন চালালে যে আমার পিসির র্যামের বারোটা বাজবে তাতে আমার বিন্দু মাত্রও সন্দেহ নাই . আপনারা জামেলায় ফেলছেন, এখন কষ্ট করে আমারে উদ্ধার করেন . 🙁 🙁

আমার মত এ লিনাক্স হল ডেভেলপার দের জন্য.অপেন সোর্স এর কারন এ এটার সোর্স কোড একদম ওপেন. ফল এ যে কেউ এটা নি এ কাজ করত এ পার এ.যা আমাদের জন্য আশিরবাদ.এমন কি কোনও প্লাগিন আছ এ যা দি এ উইন্ডোজ এর সফট লিনাক্স এ চালানো যায় ?

    @obscure soul: wine নামক সফটওয়্যার দিয়ে লিনাক্সের ‌ভেতরে উইন্ডোজের অনেক সফটওয়্যারই ইনস্টল ও চালানো যায়।

@সাজ্জাদ প্রথমেই আপনাকে ধন্যবাদ এমন সুন্দর এক্তি পোস্ট উপহার দেয়ার জন্য।
আমি তেমন কিছু বলব না কারন এখানে অনেক লিনাক্স বসরা আছেন,আসলেই বস নাকি অন্ন কিছু জানি না জাই হক, আমি শুধু আপনাকে একটি কথা বলব আপনি যে এত বড় বড় কোম্পানির উদাহরণ দিলেন যেমন cisco,google, ibm তারা কেন লিনাক্স ব্যবহার করে এ কথাটা একবার বলেন নাই,সেটা হল লিনাক্স কাস্টমাইজড করা যাই এবং তাদের নিজস্ব সিকিউরিটি সক্ত করার জন্য নিজের করে সাজানোর জন্য লিনাক্স ব্যবহার করে যেমন-Goobuntu, আর windows os কাস্টমাইজড করা যাই না এবং বড় বড় প্রতিষ্ঠান windows os এড়িয়ে চলে কারন তাদের security systemকে ভরসা করে না।আর এটাই সবচে বড় কারন ওই ফ্রী ট্রি কিচ্ছু না আর এর সবচে বড় উদাহরন BlackBary মোবাইল কে ভারত থেকে ব্যান করা।

    @James: ভাই কি আর বলবো? আপনিই তো বলে দিলেন windows এর সিকিউরিটির কথা! যার সিকিউরিটিতে এত প্রবলেম আমি তা কেন চালাবো? আমাদের দেশে অইভাবে এখনো অনলাইন মানি ট্রান্সফার নাই তাই কোন সমস্যা হয় না। জখন চালু হবে তখন বুঝবেন ঠেলা কাকে বলে!

    উবুন্টু যা আছে তারে আমি কেন কাস্টোমাইজ করতে যাব? এমনেই তো জোস!

    আর ভাই টাকা পয়সা জোগাড় রাখেন, অচিরেই windows চালাতে ১ টেরাবাইট হাড্ডি আর ১৬ গিগাবাইট রামু লাগবো!
    যদিও লেটেস্ট উবুন্টু ভার্সন ১২.১০ এর জন্য প্রয়জন হয়ঃ ৫জিবি স্পেস, ৭৬৮ মেগা র‍্যাম!

লিনাক্স is the best। এখন হয়ত আমাদের দেশে উইন্ডোজ ফ্রি পাওয়া যায় কিন্তু কয়েক বছর পর আর উইন্ডোজ ফ্রি পাওয়া যাবে না। তখন গাঁটের পয়সা দিয়া কিনতে হবে। আমাদের দেশে উইন্ডোজ ফ্রি পাওয়া গেলেও উন্নত বিশ্বে তা নগদে কিনতে হয়। আসলে উইন্ডোজ আমাদের নাকে দরি দিয়ে ঘুরাচ্ছে। বছর বছর নতুন সংস্কন, তাও আবার নগদে কিনতে হবে। তাই অনেক দেশে সরকারি ভাবে স্কুল পযা’য়ে থেকে লিনাক্স কে প্রমোট করা হচ্ছে। আমাদের দেশেও স্কুল পযা’য়ে থেকে সরকারি ভাবে লিনাক্স কে প্রমোট করা উচিৎ।

jader besi security dorkar tarai eiso linux use kore………..apnar proyojon hole apni o linux based ekte os baniye chalate [aren

আমি নতুন উবুন্টু ১২.১০ (windows installer) use করতেসি . কিন্তু আমার banglalion usb মডেম কানেক্ট করতে পারসিনা l গুগল এ ওনেক খুজেও কোনো কাজ হইনি l
মডেম এর মডেল : WIXUBB-116…..
কেউ কি বলবেন কিভাবে উবুন্টু ১২.১০ এ banglalion মডেম কানেক্ট করব?

3d max পরিবর্তে blender only৩৬ মেগাবাইটে সব করা যায় এটা দিয়া হলিউড এ একটা এনিমেটেড মুবি বানানো হইয়াছে

2o টি উন্ডোজ কমন সফট এর বিপরিত লিনাক্স সফট এর লিংক
http://www.datamation.com/open-source/20-linux-alternatives-for-common-windows-applications-2.html এবং যারা এডোব সফট চালান তাদের জন্য আছে ink spece, gimp, আমি একটা টিউন করব উন্ডোজের কমন সফট ব্যবহার করা লিনাক্স সফট এর। তা ছাড়া লিনাক্স থেকেই একটা সফটের মাধ্যমে সব ধরনের উনডোজ চালানো যায়।

http://alternativeto.net/software/3ds-max/?platform=linux
এ লিংক টাও দেখতে পারেন সফটের জন্য

Linux is not cumbersome. It is cool. And Ubuntu is a free software. যারা না জেনে কথা বলছেন তারা আগে আসল কাহিনি জেনে নিন। ধন্যবাদ।

যদি সুযোগ পাই তবে অবশ্যই লিনাক্স ব্যাবহার করব।

হাহাহা
এই খানে যা দেখতেছি তাতে মনে হচ্ছে, আমাদের দেশের আম মানুষ দুই দলে বিভক্ত আও*** আর বি** 😉
এখন দেখছি আরও দুই দল আছে লিনাক্স ইউজার আর উইন্ডোজ ইউজার, এরা কখনও এক হবে না যে যেখানে জাকে পাবে সেখানেই তর্ক করবে। :p
ভাজ্ঞিস এটা ভার্চুয়াল তা না কত গুলো গাড়ির যে জীবন যেত ! 🙁

লিন্যাক্সের উবুন্টু ভার্সন আমি ব্যবহার করছি খারাপ না। বর্তমানে উইন্ডোজের কিছু সফটওয়্যারতো ব্যবহার করা যায়। অবশ্য আমি একটা ধরাও খাইছি ল্যাপটপে উবুন্টু ম্যানুয়ালী না গিয়ে সেটাপ দিতে গিয়ে হার্ডডিস্ক ফরমেট হইছে। আর এখন আমার ডেস্কটপে কেন জানি ইনস্টল হচ্ছেনা।

লিনাক্স নিয়ে এতো আলোচনা হচ্ছে , এটা দেখে খুব ভাল লাগল. যারা ৫০ টাকার ডিভিডি দিয়ে উইন্ডোজ চালান , অফিস , ফটোসপ চালান…তাদের কথা আমরা লিনাক্স ব্যবহারকারী গায়ে মাখি না.
লিনাক্স এর সাপোটের জন্য ইমেল করুন….
আমরা আপনার আসে পাশে আছি …..

    @সোহেল: মেইল আইডি টা দেন, উবুন্টুতে নতুন, মাঝে মাঝে সাহায্য চাইব,

আপনার পোষ্টে মন্তব্য করার জন্যই লগিন করলাম। আমি ভাই একজন গর্বিত মিন্টু..। শান্তিতেই আছি..। পোষ্ট সুন্দর হয়েছে। আমরা এখন লিনাক্সের মর্যাদা বুঝতে পারছি না। তবে, একদিন ঠিকই বুঝতে হবে..। লিনাক্সের উপর আরো লিখুন। অপ্রচলিত ডিস্ট্রো নিয়ে লেখা চাই। শুভ কামনা রইলো।

আরও কারা কারা লিনাক্স ব্যবহার করে (শুধু সার্ভার নয়) জানতে উইকিপিডিয়াতে এ বিষয়ে বাংলা ভুক্তিটাতে চোখ বুলিয়ে চক্ষু চড়কগাছ করতে পারেন।

লিংক: লিনাক্স পরিগ্রহণ

চরম টিউন,অবশ্য আপনার ক্লান্ত হয়ে যাবার কথা,টিউনের চাইতে বেশী মনে হয় কমেন্টে যুদ্ধ করতে হচ্ছে,লিনাক্সের কিছু অচেনা ডিস্ট্রো আমাদের সামনে আনুন।আপনার টিউনের অপেক্ষায় থাকবো 🙂

keu ki ans diben?>????
আমি নতুন উবুন্টু ১২.১০ (windows installer) use করতেসি . কিন্তু আমার banglalion usb মডেম কানেক্ট করতে পারসিনা l গুগল এ ওনেক খুজেও কোনো কাজ হইনি l
মডেম এর মডেল : WIXUBB-116…..
কেউ কি বলবেন কিভাবে উবুন্টু ১২.১০ এ banglalion মডেম কানেক্ট করব?

আপনারা ঝগড়া কইরেন না plz….
আপনাদের জননই তো techtunes এ আসি । যার যেইটা সুবিধা সে সেইটা use koren.
আমি মোবাইল এ android r computer a উইন্ডোজ use kori. :p
সেই জন্য ২ টার ই support নিতে hoilo.

চোরের মার বড় গলা।
এর চেয়ে বেশি আমার কিছু বলার নাই। কতজন উইন্ডোজপ্রেমী চোরাই উইন্ডোজ ব্যবহার করেন না, বলতে পারেন?

এসব বলে লাভ নাই- লিন্যাক্স গুরুগণ আমার একটা সাহায্য দরকার।

আমি পেনড্রাইভে লিন্যাক্স মিন্ট ১১.০ ইন্সটল করে ব্যবহার করি। এবিষয়ে সহায়তা পেতে কোথায় প্রশ্ন করতে পারি।

    @Mamun: @Mamun চোরের মার বড় গলা।
    এর চেয়ে বেশি আমার কিছু বলার নাই। কতজন উইন্ডোজপ্রেমী চোরাই উইন্ডোজ ব্যবহার করেন না, বলতে পারেন?
    আপনার মত আবাল লোকদের কি বলব ভাষা খুজে পাচ্ছি না,আপনি বললেন কতজন উইন্ডোজপ্রেমী আরে ভাই কতজন উইন্ডোজপ্রেমী না সারা বাওলাদেশের ৯৯.৯৯% ইউজার উইন্ডোজ ব্যবহার করে এবং আপনি নিজেও উইন্ডোজ ব্যবহার করেন হটাৎ ব্লগ পরে লিন্যাক্স ভুত চাপল এর চাপাবাজি সুরু করলেন।

সবই ঠিক আছে, তবে এটা কি ভাল নয় যে আমরা সবাই একই ধরনের অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করছি… এতে সুবিধে সবারই।

    @n2roy: জ্বী, তা তো বটেই, হ্যাকার আর ভাইরাস প্রোগ্রামারদেরও কষ্ট কম হয় …

@Mamun চোরের মার বড় গলা।
এর চেয়ে বেশি আমার কিছু বলার নাই। কতজন উইন্ডোজপ্রেমী চোরাই উইন্ডোজ ব্যবহার করেন না, বলতে পারেন?
আপনার মত আবাল লোকদের কি বলব ভাষা খুজে পাচ্ছি না,আপনি বললেন কতজন উইন্ডোজপ্রেমী আরে ভাই কতজন উইন্ডোজপ্রেমী না সারা বাওলাদেশের ৯৯.৯৯% ইউজার উইন্ডোজ ব্যবহার করে এবং আপনি নিজেও উইন্ডোজ ব্যবহার করেন হটাৎ ব্লগ পরে লিন্যাক্স ভুত চাপল এর চাপাবাজি সুরু করলেন।

    @James: ওনারা তো চুরি ছাড়ার চেষ্টা করছেন, একবার ভুলপথে গিয়েছেন বলে আর সঠিক পথে ফিরতে পারবেন না — তা তো না। আর আপনি কি চুরি করার পক্ষেই ওকালতি করলেন, নাকি?

লিনাক্স ভক্তদের কাছে আমার একতা প্রশ্ন লিনাক্স তোঁ উন্মুক্ত(open source) মানে পইসা লাগে না ফ্রী তাহলে কেন Guitar Pro(Price: $39.95 – $59.95 ), Bricscad (Price: $275.00), Zend Studio( Price: $399 – $799) আর অনেক আছে এসবে কেন টাকা লাগে।
মি. সাজ্জাদ আপনার উত্তরের অপেক্ষাই রইলাম।

    @James: উন্মুক্ত সোর্সের সংজ্ঞাটা ঠিক ভাবে জানলেই এই প্রশ্ন আর আসতো না। উন্মুক্ত সোর্স অর্থ হল এর সোর্স কোড আপনি দেখতে পারবেন। পয়সা লাগবে কি লাগবে না সেটা এ থেকে ভিন্ন বিষয়। আপনি যদি অটোক্যাড কেনেন (দাম ৩৯৯৫ ডলার মাত্র!) – এ্যাত ডলার খরচ করার পরেও কিন্তু ভেতরের কোডে কি আছে সেটা জানার অধিকার অর্জন করলেন না — শুধুমাত্র ব্যবহারের অধিকার দেয়া হল। একই কথা প্রযোজ্য উন্মুক্ত সোর্স নয় এমন সকল ফ্রী এবং দামী সফটওয়্যারের ক্ষেত্রে। এতে হয়তো সাধারণ ব্যবহারকারী ভাবছেন — কিচ্ছু যায় আসে না। কিন্তু আসলে যায় আসে।

    একটা রেস্টুরেন্টের কিচেনে কিভাবে সব কিছু করছে সেটা যদি যে কোন কাস্টমার ইচ্ছা করলেই দেখতে পারে, তাহলে খাবার তৈরীর বিভিন্ন পর্যায়ে যে কোনরকম ফাঁকি বা নোংরামি করছে না সেটা অনেকটাই নিশ্চিত হওয়া যায় — কারণ কেউ না কেউ তো তাহলে ঠিকই সেটা ধরে গ্যাঞ্জাম বাঁধাবে। একই ভাবে,

    কোড উন্মুক্ত থাকলে আমি হয়তো সেটা দেখে কিছু বুঝবো না, কিন্তু আমার কোন বন্ধু হয়তো সেটা দেখে ভ্রু কুচকিয়ে বলবে — আচ্ছা এই প্রোগ্রামের মধ্যে এই লাইনটা কি করে … … এটাতো মনে হয় আমার পাসওয়ার্ড চুরি করে কোন একজন হ্যাকারের কাছে চান্স পেলেই মেইল করে দিচ্ছে!!! — জ্বী ভাই ঠিক এই ঘটনাটা ঘটছে উইন্ডোজের NSA key নামক প্রোগ্রামটি দ্বারা — NSA হল আমেরিকার গোয়েন্দা সংস্থার নিয়ন্ত্রক সংস্থা ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সি – সিআইএ, এফবিআই ইত্যাদি সকলের উপরের নিয়ন্ত্রক। এটা ধরা খাবার পর, একেক সময়ে মাইক্রোসফট একেক কথা বলেছে কিন্তু এর কোড বিশ্বাসযোগ্য ভাবে কখনই দেখায়নি। কাজেই এটা আসলেই নিরীহ একটা কাজের ফাংশন নাকি সকলের উপর নজরদারী করার একটা এজেন্ট জানা মুশকিল। তবে ব্যাপার হল এই যে, জার্মানীর পার্লামেন্ট এই ঘটনা প্রকাশের পরেই সম্ভবত উইন্ডোজ বাদ দিয়ে লিনাক্স ব্যবহার করা শুরু করেছে।

    তাই উন্মুক্ত সোর্স সফটওয়্যার বিনামূল্যে দিক আর দাম নিয়ে দিক সেটার ভেতরে দুষ্টু কোড যে দিবে না সেটা মোটামুটি নিশ্চিত হওয়া যায়। এছাড়াও উন্মুক্ত সোর্সের আরো কিছু সুবিধা আছে — শিক্ষার্থীরা ওটা দেখে কোডিং শিখতে পারবে। আর মুক্ত সফটওয়্যারগুলো যদি জিপিএল লাইসেন্সে ছাড়া হয়, তাহলে কোড উন্মুক্ত রাখা ছাড়াও সেটা পরিবর্তন করে নিজের মত কাস্টমাইজ করে নেয়ার অধিকার দিয়ে দেয়। তবে সেটা দিয়ে আবার আরেকজন ব্যবসা করতে পারবে কি না সেটা লাইসেন্সের মধ্যেই উল্লেখ থাকে। প্রতিক্ষেত্রেই লাইসেন্স অনুযায়ী ক্রেডিট সেকশনে মূল ডেভেলপারের নাম সঠিকভাবে রাখতেই হবে।

      যে সব ক্লোজড সোর্স সফটওয়্যার হরদম ডাউনলোড করে ব্যবহার করছি সেটা কি আসলেই আপনার ডেটা চুরি করছে না? আসলেই কি সেখানে কোনো ক্ষতিকারক কোড (যেমন কী-লগার) নাই? এটা আসলেই আপনার পিসিতে কি কোন ট্রোজান হর্স স্থাপন করছে না? — এই যে ক্র্যাকারগণ এ্যাত দামী সফটওয়্যার ক্র্যাক করে পাইরেসীতে সাহায্য করছে তার স্বার্থ কী? ও যে সেই ক্র্যাকড ফাইলের মধ্যে সেইরকম দুই এক লাইন কোড ঢুকিয়ে দেয়নি সেটা ক্লোজড সোর্স ছাড়া জানা সম্ভব না। আমাদের দেশে অনলাইন ব্যাংকিং, লেনদেন এখনও তেমন বড় স্কেলে হয়নি — হইলে হয়তো ক্লোজড সোর্সের মহাত্য (মানে পাসওয়ার্ড চুরি আর ব্যাংকের ব্যালেন্স হাপিস ..) বোঝা যেত।

      ওপেন সোর্স সফটওয়্যার হলে কী ইরানের পারমানবিক স্থাপনার সফটওয়্যারে Stuxnet বা Flame টাইপের স্পাইওয়্যার ঢুকতে পারতো? … … … (Stuxnet আর Flame হল এ পর্যন্ত আবিষ্কৃত সবচেয়ে ভয়াবহ ভাইরাস যা আমেরিকা/ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা কর্তৃক ইরানের পারমানবিক প্রোগ্রামকে ক্ষতিগ্রস্থ করার জন্য তৈরী — গুগল করলেই জানতে পারবেন, এমনকি উইকিপিডিয়াতেও পাবেন।)

    @James: ভাই অপ্লবিদ্যা কিন্তু ভয়ঙ্কর জিনিস!

    ওপেন সোর্স হলে যে সেটা ফ্রী হবে এটা আপনাকে কে বলেছে? এটার সোর্স ওপেন মানে আপনি এর সোর্স কোড দেখতে পাবেন। এডিট করতে পারবেন কিনা তা ঐ প্রতিষ্ঠানের উপর বা ডেভলপারের উপর নির্ভর করে!
    হাসতে হাসতে পইড়া গেলাম!

Thanks brothers for your good advice about lenux.

অবাক হলাম পড়ে , ভাল লাগল জেনে। অনেক অনেক ধন্যবাদ ।

লিনাক্র শক্তিশালী এতে কোন সন্দেহ নাই, তবে হোম ইউজারদের জন্য এটি উইন্ডোজ থেকে অনেক পিছিয়ে।

চরি বালান বুল।

ভাল পোষ্ট।

চলবে……………….

আমি উবুন্টূ ১২.১০ ইন্সটল দিতে চাই। কিন্তু জানা দরকার এটাতে বিজয় চলে কিনা।
কারন বিজয় সফটওয়ার আমার সব সময় লাগে।
আমি অফিসিয়াল কাজ করতে চাই। তাই ইউনিকোড হলে সমস্যা হবে। কারন একই ফাইল ফন্ট অন্য উইন্ডোজ পিসিতেও কাজ করতে হবে।
কোন উপায় থাকলে প্লিজ জানান।
ধন্যবাদ

    @হাসানুজ্জামান রিমন: বিজয়ের পিতা মোজো কাকুকে উবুন্টুর জন্য বিজয় সফটওয়্যার রিলিজ দেয়ার অনুরোধ করা হয়েছে অনেকবার। কিন্তু টেকিমূর্খ উনি সেটা করতে চাইলেও করতে অক্ষম — পোলাপান ওনারটা উবুন্তুতে চালানোর জন্য কোডিং করে দিলে উনি RAB দিয়ে দাবড়ানি দেয়ানোর ভয় দেখান। তাই এটা আর উবুন্টুতে চলে না। তবে ইদানিং শুনেছি উনি পোলাপানের করা সেই কোডগুলো চামে চিকনে কপি করে নিয়ে (কোন রকম কৃতজ্ঞতাস্বীকার ছাড়াই) নিজের বিজয়ের নামেই ছেড়েছেন। তবে সেটাতে বিজয়ের সিস্টেমে টাইপ করা যায় কিনা আমার সন্দেহ আছে — কারণ ইউনিকোডে কথা বলার মত করে টাইপ করতে হয়, আর বিজয়ে দেখার মত করে – অর্থাৎ ইউনিকোডে “ক-একার = কে”: বিজয়ে: “এ-কার+ ক = কে” হয়।

হুম গুড পোস্ট নুব দের জানতে সাহায্য করবে এবং ব্যাবহারে আগ্রহী হবে ।
আর হ্যাকার’রা ব্যবহার করে “ব্যাকট্রাক” 🙂
ধন্যবাদ!

মন্তব্য গুলো কিন্তু ফাটাফাটি । তবে …
আমার মনে হয় আপনার প্রয়োজন ছারা লিনাক্স ব্যবহার না করাই ভাল সব কিছুই পেতে কষ্ট ।
যাদের প্রয়োজন তাররাই ব্যবহার করুন । {লেখকের বলার প্রয়োজন ছিল “}
প্রায় সব ইন্টার টেইনমেন্ত সফটওয়্যার গুলো উয়িনডোজ এর উপযোগী 🙁
তবে ডুয়েল বুট করে শিখে নিতে পারেন এর থেকেও ভাল
Virtualbox ব্যবহার করা 🙂

    @faceb00k: ভাই আমি কাউকে লিনাক্স চলাতে বলি নাই! তবে না জেনে যারা লিনাক্স ভিতি ছড়ায় তাদের দেখাতে চেয়েছি লিনাক্স এর ব্যবহার।
    কি বলেন? ভিএলসি তো লিনাক্সে চলে! অইটা থাকলে আর কি কিছু লাগে?
    জি ভাই অভ্যস্ত হতে হবে আমি সেটাই বঝাতে চেয়েছি!

      @সাজ্জাদ: emon_mrc@hotmail.com মেইল আইডি টা দিয়েন, ইনশাল্লাহ খুব বেশি বিরক্ত করব না, যখন চোখে কিছুই দেখব না শুধু তখন, 🙂

ওরে ড়াম (রাম না) ছাগলের দলেরা, লিনাক্স মাইনসে কেমনে চালায় আমি এ নিয়ে সন্দেহে আছি। ওটা তো পুরাই মোটা চশমা পরা গীকদের জিনিশ 😛

justbeentrained.blogspot.com

ওরে আব্বা ! আমি লিনাক্সকে খুব ভালবাসি ! I love u linux !

আমার প্রথম বউ লিনাক্স, যা আমাকে কাজের যোগান দেয়।

আমার দ্বিতীয় বউ উইন্ডোজ, যা আমাকে খেলতে আনন্দ দেয়।

লিনাক্সকে যারা কঠিন মনে করেন তারা http://www.amarspot.com/ebook/372 বইটি পড়ে দেখেতে পারেন…

VAi ami kokbar ubuntu use ar chesta koresi tobe net disconnect hoe jai….ar somadhan ki….ar ubuntur theme gulo dekte win 8 ar moto sundor na…..dekhar oto akta sudorjo ase taina?

    @mdramim: vai eita kibollen? ubuntur moto simple ar smart look kono os er nai! jaihok apnar alada posondo thaktei pare. shekhetre apni Zorin OS try kore dekhun. ba kubuntu try kore dekhun!

    ki diye net chaalan?

Thanks for reply. Ami ashole ubuntu ar theme ki bhabe use korte hoi janina desktop je merun colour seta amar valo legena ar icon gulao temon valo lagena…….. ami Broad band use……kori (KS Network). ar age dubar set up die net ar problem ar karone abar un install koresi………akhon majhe manjhe live CD use kori.

আপসোস কবে যে লিনাক্স ব্যবহার করবো।

Linux chalaite chai tai hard disk partition formate disi. Ekhon kibabe Windows er pashashi linux chalabo. Ekon kono partition nai. Expert der Phone or Email ID chai. Please help. Kisudin age linux install dewar por broadband connect korte pari nai. I want help from expert. Sazzad, Minhaz, Shamim help please.

Ami 3 ghonta jabot ek nagare comment guli porsi. Help koren. Ami Linux Mint 17 Cinnamon install korsilam.
‘Nazmulhaque@ownmail.net
01195554667
01911929851