Quantcast
ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা – বিষয় বৈদ্যুতিক Shock, সাপ দংশন এবং আগুন পুড়লে [সবার পড়া উচিত]

সবাই কে আমার সালাম জানিয়ে আজকের লেখা শুরু করলাম। ত সবাই কেমন আছেন, মনে হয় ভাল। আমি ভালই আছি। এখন একদম ফ্রী। ১৬ ডিসেম্বর থেকে আমার ১ মাসে জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া আশুগঞ্জ পাওয়া প্লান্ট attachment শুরু হচ্ছে, তাই এই কয় দিনে একটু বেশি বেশি লিখে নেই না কি বলেন আপনারা?

ADs by Techtunes tAds

আজ কে আর আমার লেখার বিষয় টা একটূ অন্য রকম, হয় ত এই ব্লগ এর কেটাগোরি সাথে মিলে না, তবে এই লেখা থেকে হয়তবা কোন দিন কার কোন উপকার হতে পারে। আমার লেখার মুল বিষয় ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা। তবে আপনারা ভাব বেন না আমি কোন ডাক্তার বা আমার বাবা মা ডাক্তার। আসলে আজ থেকে ২ বছর আগে আমি যখন ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারং এর ২য় সেমিস্টার এ তখন আমাদের এই ফার্স্ট এইডবা প্রাথমিক চিকিৎসা একটা ভাল ধারনা দেয়া হয়ে ছিল। তাতে আমাদের শেখানো হয়েছি বৈদ্যুতিক Shock, সাপ দংশন, এবং আগুনে পুড়লে প্রাথমিক করনিয় বা প্রাথমিক চিকিৎসা কি দিতে হবে। যাই হোক এটা আমাদের সাবজেক্ট এর বহির্ভুত ছিল তবে আমি এর কোন ক্লাস মিস দেই নাই এবং খুবেই মনযোগ দিয়ে শিখে ছিলাম। তবে আসুন জানি ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা মুলত কি এবং বৈদ্যুতিক Shock, সাপ দংশন, এবং আগুনে পুড়লে প্রাথমিক ভাবে কি করতে হবে বা প্রাথমিক চিকিৎসা কি দিতে হবে।


ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা

আপনার নিজ বাড়ির আশেপাশে বা পথে চলার সময় এমন কি কর্ম ক্ষেত্রে হঠাৎ করেই নানা দুর্ঘটনা ঘটে। এই দুর্ঘটনা কবলিত মানুষদের পাশে দারা বা এগিয়ে যাওয়া একজন সুনাগরিক এর কর্তব্য। তবে এই কাজ করা জন্য থাকে হবে আন্তরিকতা এবং ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা ধারনা। ডাক্তার আসার আগে আহত কোন ব্যক্তিকে আরোগ্যের পথ সুগম করা ও যাতে অবস্থার অবনতি না ঘটে তার ব্যবস্থা করাকে  ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা বলে। কোন আহত ব্যক্তিকে ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার সময় আপনাকে কিছু বিষয় অবশ্যই মনে রাখতে হবে যেমন

  • ব্যক্তি কি কারনে আহত হয়েছে।
  • কতটুকু প্রাথমিক চিকিৎসা তার প্রয়োজন।
  • এবং দ্রুত নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেয়া।



এবার আসি আজকে আমি বৈদ্যুতিক Shock খেলে  সাপ দংশন এবং আগুন পুড়লে ফার্স্ট এইড প্রাথমিক চিকিৎসা হবে তাই আলোচনা করবো। আগেই বলে রাখি আমি কোন ডাক্তার না, আমি যতটূকু শিখেছি ঠিক ততটুকুই আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। ত আর কথা না বাড়িয়ে আজকে ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা কি সেটা জেনে নেই।

বৈদ্যুতিক Shock এর ফার্স্ট এইডবা প্রাথমিক চিকিৎসা

বিদ্যুৎ প্রবাহ আছে এমন কোন খোলা তারের সংস্পর্শে এলে যেকোন ব্যক্তি এর দেহে বিদ্যুতায়ন হয়ে অনেক বড় আঘাত সৃস্টি করে। যার ফলে সেই ব্যক্তির আহত হয় বা তার মৃত্যু হয়। আর এই রকম ঘটনা এখন অনেক বেরে গেছে। আর এই ঘটনা গুলো সংগঠিত হয়ার প্রধান কারন অবহেলা বা অসাবধানতা।


এ ধরনের ঘটনা হলে আপনার সামনে সংঠিত হলে আপনি কি করবেন? হ্যা এ সময় ঘাবরে না গিয়ে মাথা ঠান্ডা রেখে আপনার উপস্থিত বুদ্ধি দিয়ে সেই দুর্ঘটনা কবলিত ব্যক্তি আপনি রক্ষা করতে পারেন। বিদ্যুতায়ন হয়া ব্যক্তিকে রক্ষার করার লক্ষ্যে প্রথমেই আপনাকে মেইন সুইচ খুঁজে বের করতে হবে এবং সুইজ অফ করতে হবে মেইন সুইজ পাওয়া না গেলে কোন শুকনো লাঠি দিয়ে বা কোন শুকনো কাঠ দিয়ে ধাক্কা দিয়ে তার হয়ে ব্যক্তিকে তার হতে বিছিন্ন করুন অথবা আপনার আশেপাশে কোন রাবারের গ্লাভস বা জুতা থাকলে তা পরে তা দিয়ে ধাক্কা দিয়ে দুর্ঘটনা কবলিত ব্যক্তি তার হতে বিছিন্ন করুন করুন।


ADs by Techtunes tAds

এবং এ সময় একটা জিনিস লক্ষ্য রাখবেন আপনি কখন খালি হাতে বিদ্যুতায়ন হয়া ব্যক্তিকে স্পর্শ করবে না, যদি করে এতে আপনাকে দেহে বিদ্যুতায়ন হয়ে যাবে। এ সময় নিচের ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা গুলো দিতে ভুলবেন না যথা,

  • বিদ্যুতায়ন ব্যক্তির শাস প্রশাস সাভাবিক না হয়া পর্যন্ত কৃতিম শাস প্রশাস প্রক্রিয়া চালু রাখতে হবে।
  • গলা, বুক ও কোমরের কাপড় আলগা করে দিতে হবে।
  • যেই স্থান পোড়া গেছে তাতে জরুরী চিকিৎসা দিতে হবে।
  • স্নায়বিক আঘাতের চিকিৎসা চালাতে হবে, এবং
  • যত দ্রুত সম্ভব ডাক্তারের কাছে নিতে হবে বা হাসপাতালে নিতে হবে।

আর বিস্তারিত জানতে নিচের লিঙ্ক গুলো দেখতে পারেন

সাপ দংশন করলে ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা কি হবে?
সাপ প্রকৃতপক্ষে মানুষ শিকার করে না এবং সাপকে কোনো কারণে উত্তেজিত করা না হলে বা সাপ আঘাতগ্রস্থ না হলে তারা মানুষের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলে। মানুষ যত টা সাপ কে ভয় খায় ঠিক ততটাই সাপ মানুষ কে ভয় খায়। ব্যাতিক্রম ছাড়া কনস্ট্রিক্টর ও বিষহীন সাপগুলো মানুষের জন্য কোনো হুমকি নয়। বিষহীন সাপের কামড় মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়, কারণ তাদের দাঁত মূলত কোন কিছু আঁকড়ে ধরা ও ধরে রাখার মতো।

বিষধর সাপ দংশনের লক্ষণগুলো হচ্ছে­ বমি, মাথাঘোরা, কামড়ানোর স্খানে ফোলা, রক্তচাপ কমে যাওয়া, চোখে ডাবল দেখা, ঘাড়ের মাংসপেশী অবশ হয়ে ঘাড় পেছনের দিকে হেলে পড়া, আর কাটা দাগ থেকেও আপনি বুঝতে পারবেন দংশন করা সাপ টি বিষধর না যদি সাপের কামড়ানো জায়গায় প্রায় এক ইঞ্চি ব্যবধানে দাতের চিহ্ন দেখা যায়, মাঝে মাঝে কাটা স্থান অনেক স্পস্ট হয়, এরকম হলে আপনাকে বুঝে নিতে হবে কোন বিষধর সাপ দংশন করেছে। আর যদি কামড়ের দাগ অধিক বা খাড়া বা অধিক চন্দ্রাকার হয় তবে এই সাপ টা বিষধর নয়। সাপ দংশন করার পর আপনার ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা কি হবে তা নিন্মে আলোচনা করা হল।

  • প্রথমেই যে স্থানে দংশন করে ছে তা খুঁজে বেড় করা এবং তার শিরার রক্ত চলাচল বন্ধ করতে হবে।
  • পায়ে কামড় দিলে প্রথমেই উরুর মাঝামাঝি স্থানে একটি বাঁধন দিতে হবে এবং তারপর তার নিচের দিকে অর্থাৎ হাটুর একটু উপরেই আরেকটি  বাঁধন দিতে হবে।
  • ৩০/৩৫ মিঃ পরপর বাঁধন গুলো ৩০ সেকেন্ট এর মত আলগা করে দিয়ে আবার শক্ত করে বাঁধন দিতে হবে। তবে এই সময় একটা জিনিস মনে রাখবেন বাঁধন গুলো যেন শিরার রক্ত চলাচল বন্ধ করে ধমনীর না। মানে বিষ যেন রক্তের সাথে মিশে যেতে না পারে।
  • নিশাস বন্ধ হয়ে গেলে কৃত্রিম উপায় শাস-প্রশাস আনার চেস্টা করতে হবে।
  • রোগী কে গরম রাখার জন্য চা, কফি খায়াতে হবে। কোন ভাবেই বিশ্রাম করতে দেয়া যাবে না।
  • কামড়ের জায়গা ধারালো ব্লেড দিয়ে যোগ চিহ্নের মত করে ৩/৪'' ইঞ্চি পরিমান গভির করে করে কেটে তাতে পটাশিয়াম পারমাংগানেটের গুরা দিয়ে দিতে হবে। তবে হাত বা পা বাদে দেহের অন্য জায়গায় কামড় দিলে ডাক্তার কাছে না নেয়া পযন্ত কোন যায়গা কাটা যাবে না, তবে এই ক্ষেত্রে উপরের কাজ গুলো করা যাবে।

আর বিস্তারিত জানতে নিচের লিঙ্ক গুলো দেখতে পারেন

আগুন পুড়লে ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা কি হবে?

আগুনে  যে ভাবেই দাহ হোক না কেন প্রতিক্রিয়া একই হয়। যে জায়গায় পুড়ে যায় সেখানে অনেক জালা করে, পুড়ে যাওয়া স্থান লাল হয়ে যায়, ফোস্কা পড়ে, এর ফলে আমাদের দেহে যে তন্তু গুলো আছে তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ সময় ভীষন মাথা ব্যাথা হয়। তাই এ সময় আহত ব্যক্তির জরুরী ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হলে অনেক টা আরাম অনুভব করে। আগুনে পুড়ে যাওয়া ব্যক্তিকে নিচের ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে ভুলবেন না।

  • রোগী কে বেশী নরাচরা করতে দেওয়া যাবে না। এজন্য রোগী যাতে বেশি নরাচরা করতে না পারে সেই ব্যবস্থা করতে হবে।
  • দগ্ধ কাপর গায়ে লেগে থাকলে খুলে ফেলা যাবে না এবং কোন ফোস্কা লাগা যাবে না।
  • সম্পূর্ন জীবানু মুক্ত শুকনো ড্রেসিং দিয়ে ক্ষত স্থান ঢেকে দিতে হবে।
  • যদি হাতের কাছে কোন ড্রেসিং পাওয়া না যায়, তবে শুকনো কোন পরিষ্কার ও পাতলা কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে।
  • ক্ষত এর পরিমান অল্প হলে ঠান্ডা পানি ঢালতে থাকুন।
  • যদি ফোস্কা পরে তা হলে খুবেই আলগা ভাবে বাধতে হবে।

আর বিস্তারিত জানতে নিচের লিঙ্ক গুলো দেখতে পারেন

ADs by Techtunes tAds

আমি আপনাদের আমার সীমিত জ্ঞানে ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা সম্পর্কে ধারনা আছে তা শেয়ার করার চেস্টা করলাম। জানি না আপনাদের কেমন লাগলো মন্তব্যের মাধ্যমে। ধন্যবাদ.

[বি: দ্র: আপনারা যারা আমার সম্পুর্ন একটা ব্লগ তৈরীর টিউটোরিয়াল গুলো জন্য যারা অপেক্ষা করছে তাদের আর তিন দিন অপেক্ষা করতে হবে আমি  ১ তারিখ থেকে আবার ধারাবাহিক ভাবে লিখে যাব]

http://www.w3solutionsbd.com

ADs by Techtunes tAds
Level 0

আমি ফাহিম রেজা বাঁধন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 2 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 118 টি টিউন ও 1437 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Domain, Hosting, WebDesign, Logo Design, SEO: http://w3solutionsbd.com


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

টেকটিউন্সের ডান পাশে দেখলাম লেখা, জনপ্রিয় টিউনার ফাহিম রেজা বাঁধন শেখাচ্ছেন........................। আসলেই ভুল লেখা হয় নাই যার টিউন এত সুন্দর সে জনপ্রিয় না হয়ে পারেই না। অসাধারন উপস্থাপনা,জন গুরুত্বপুর্ন একটা বিষয় এবং অনেক সুন্দর একটা লেখনি। অসংখ্য ধন্যবাদ এত সুন্দর একটা টিউন আমাদের উপহার দেয়ার জন্য। *আর উপস্থাপিত বিষয় গুলু আসলেই আমাদের সবার খেয়াল রাখা এবং মেনে চলা উচিত।*
আতাউর ভাইয়ের সাথে সম্পূর্ণরূপে সহমত ।ধন্যবাদ ফাহিম ।
এরকম Tune আরও বেশি হওয়া প্রয়োজন, ধন্যবাদ ফাহিম রেজা বাঁধন ভাই...
Level 0
ধন্যবাদ ফাহিম ভাই গুরুত্ব পুর্ণ তথ্য দেয়ার জন্য। আগুনে পুড়তে পারে, শক লাগতে পারে, কিন্তু সাপ আসবে কই থেকে এই যানজটের শহরে তো মানুষেরই থাকার যায়গা হয় না।
darun likhcen vai.
দারুন জন সচেতন মূলক টিউন ধন্যবাদ আপনাকে।
বেশ প্রয়জ়োনীও টিউন করেছেন। বাধন ভাই আপনার কাছে কিছু ইলেক্টিকের ভাল কিছু বইয়ের লিঙ্কসহ টিউন চাছিলাম। ধন্যবাদ।
    ধন্যবাদ আরিফ ভাই । আমি ইলেক্টিকের ভাল কিছু বইয়ের লিঙ্ক নিয়ে সামনে টিউন করার চেস্টা করবো। তবে আপনি রনি পারভেজ ভাইয়ের টিউন গুলো দেখতে পারেন , তিনি অনেক ভাল বই নিয়ে টিউন করেছিলো
জটিল কাজের টিউন করেছেন।
অনেক ধন্যবাদ বরাবরের মতই সুন্দর একটি টিউন উপহার দেবার জন্য। প্রিয় তে নিলাম।
ধন্যবাদ এমন কিছু শেয়ার করার জন্য
খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা টিউন। ধন্যবাদ ফাহিম রেজা।
খুব সুন্দর টিউন এটা সবারই কাজে লাগবে
একেই বলে ক্ল্যাসিক টিউনিং ..... এরকম টিউনগুলো আজকাল অনেক মিস করি .... কিপ ইট আপ ফাহিম .....BRAVOO
আমি অবশ্য আগেই পড়েছি। কারণ আপনি এইটা ফেসবুকে সেয়ার করেছিলেন। ধন্যবাদ। সাবইকে জানানোর জন্য।
ভাল লাগলো।
শেখার কোন শেস নাই।ধন্যবাদ এই রকম টিউন এর জন্য।
Level 0
অসাধারণ............... THANX
ধন্যবাদ। ভাল লাগলো।
অনেক অনেক ধন্যবাদ তোমাকে - এত সুন্দর ভাবে উপস্ছাপন করার জন্য। সত্যি বলতে কি - এই টাইপের তথ্য বহুল টিউনস (যে টিউন গুলো পড়ে একটা পরিস্কার ধারনা লাভ করা যায়) আমাদের টেকটিউনস পরিবার কে সমৃদ্ধ করেছে এবং ভবিষ্যৎতে ও করবে - সেই অপেক্ষায় থাকলাম.........
ধন্যবাদ। ফাহিম রেজা বাঁধন অসমভব সুন্দর একটা টিউন উপহার দেয়ার জন্য
পরিপূর্ণ একটা টিউন। Golden A+ প্লাস Golden A+ = Diamond A+ অনেক ভাল হয়েছে। ধন্যবাদ।
অসাধারন টিউন ফাহিম
হাজার হাজার চাকুরির খোজ এখানে... আপনার লিঙ্ক টা মুছে ফেলা হয়েছে
ভালো এই ভাবে এদের শিক্ষা দেওয়া উচিত।
    আসলে আউয়াল ভাই ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য ।
    আসলে আমরা টিউনার যদি নিজ দায়িতে এদের প্রতিরোধ করার চেস্টা করতাম , তাহলে হয়ত এই হীজরা [ নারী বেসে পুরুষ জাতি ] হাত হতে টেকটিউনস এবং এবং সাধারন পাঠক রা মুক্তি পেত ।
আহ, জীবনডা বাচাইলেন !
সত্যই খুবই প্রয়োজনিয় বিষয় নিয়ে টিউন করেছেন। >>>ধন্যবাদ তথ্যগুলো শেয়ার করার জন্য।<<<
ফাহিম ভাই কাজে লাগতে পারে শিখে রাখলাম এবং প্রিওতে রাখলাম ধন্যবাদ। দারুন হয়েছে।
বস জটিল হয়েছে...............
Comment আর কী করব এক কথায় জটিলস্ এটি আমার Engineering পড়াশুনার পাশাপাশি একটি ডাক্তারির মাইলফলক হিসাবে চিহ্নিত করে রাখলাম.
Level 0
জেনে রাখলাম। পোষ্টের জন্য ধন্যবাদ।
অনেক ভালো লিখেছেন।মনোযোগ দিয়ে পড়লাম ভাইয়া।কিন্তু মজার কথা কি জানেন? 'বিপদের সময় এগুলা কিছুই মনে থাকে না'।তাই বিপদের সময় প্রাথমিক চিকিৎসকের প্রথম কাজই হচ্ছে মাথা ঠান্ডা রাখা।তারপর বাকি কাজগুলো করা।ধন্যবাদ আপনাকে :)
    হুম যাদের মাথা গরম তাদের মাথা ঠান্ডা রাখা উচিত এবং যাতা ঠান্ডা মাথা মানুষ তাদের এই বিষয়গুলো মনে রাখা উচিত । আপনাকেও ধন্যবাদ :)
ধন্যবাদ
আপনাকেও ধন্যবাদ জিনিয়াস ভাই
উপকারী লেখা, ধন্যবাদ।