Quantcast
ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

মাদকের অপব্যবহার!দাঁত স্বাস্থ্য এর ধারণাতীত ক্ষতি

বর্তমান গবেষণায় মাদকাসক্তদের একটি গোষ্ঠীর দাঁতের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। সমীক্ষায় উপস্থিত ২5 বছর বয়সী (সর্বনিম্ন 18বছর, সর্বাধিক 37বছর) 134 জন ব্যক্তি ছিল। তাঁদের DMFT 18.3 এবং DMFS ছিল 50.2 {DMFT(দাঁতের উপরিভাগ স্বাস্থ্য) DMFS(দাঁতের নিম্নভাগ স্বাস্থ্য) পৃথক পৃথক ভাবে একটি ব্যক্তির মধ্যে দাতের ক্ষয়রোগ এর ব্যাপকতা বর্ণনা করে ব্যক্তির দাতের ক্ষয় হওয়া, হারিয়ে যাওয়া, ক্ষয় পূরণ হওয়া এর পরিসংখ্যানের উপর}। অর্থাৎ মাদকাসক্তির কারনে এবং এর পরবর্তী চিকিৎসার কারনে মাদকসেবীদের বাহ্যিক ক্ষতির তুলনাই অভ্যন্তরীণ ক্ষয় বেশী হয় যা আমাদের চোখে পড়েনা। পরবর্তীতে এটিও প্রস্তাব করা হয় যে কেবলমাত্র মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার নয়, তবে নিম্ন সামাজিক অবস্থা, নিম্ন শিক্ষা এবং দাঁতের চিকিত্সা গ্রহণের ক্ষেত্রে বিভিন্ন বাধাগুলিও একটি বহুমুখী কারণ/প্রভাব হিসেবে বিবেচনা করা উচিত।

ADs by Techtunes tAds

মাদক(আসক্তিমূলক) আপনার মুখের নিম্নরূপ ক্ষতি করতে পারে:
১, সাধারনত মাদকাসক্তদের মুখগহ্বর সর্বদাই শুষ্ক থাকার কারনে ভিতরগত এক প্রকার এসিড তৈরি হয় যা দাঁতের এনামেল (পাতলা বাইরের আচ্ছাদন) ক্ষয় করে।
২, ইয়াবা সেবনকারীদের অন্যতম একটা উপসর্গ নিজের অজান্তে এবং ঘুমের ঘোরে দাঁত কামড়ানো(দাঁতে দাঁত ঘষা), যার ফলে দাঁতের ক্ষয় বৃদ্ধি পাই
৩, পুষ্টিজনিত খাবারের অভাব দাঁত ও মাড়ির উপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে, যার কারনে এনামেল উৎপাদনে কমতি ঘটে, সাধারণ ক্ষত সংক্রামিত হয়।
৪, শুষ্ক মুখে রক্তপ্রবাহ কম থাকার কারনে দাঁতের মাঢ়ী ও চোয়ালে বিভিন্ন প্রকার রোগ দেখা দিতে পারে, যেমনঃ দন্তক্ষয়, দাঁতের মধ্যে গর্ত সৃষ্টি যা ভবিষ্যতে দাঁত হারানোর সম্ভাবনা তৈরি করে।
* বিশেষ করে মেথা এম ফিটামিন(ইয়াবা) ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে সর্বাধিক প্রভাব ফেলে
সুস্থতা প্রাপ্ত আসক্ত ব্যক্তি এবং মাদকাসক্তদের দাঁতের যত্নে আরও বেশী সক্রিয় থাকা উচিৎ। বিভিন্ন ধরনের মাদকাসক্তি পুনর্বাসন কেন্দ্রে ইনহাউজ ও ফলো আপ অবস্থায় এ ধরনের সমস্যা কে উহ্য রাখা হয় যা ভবিষ্যতে শারীরিক ও মানসিক বিকৃতির কারন হয়ে দাড়াই। সকল চিকিৎসা কেন্দ্রের উচিৎ ভিন্ন ধরনের মাদকে দাঁতের উপর ভিন্ন প্রভাব বিস্তার করে তা তুলে ধরা। রিকভারিদের দাঁতের স্বাস্থ্য এর উপর রাসায়নিক দ্রব্যে কি কি প্রাদুর্ভাব বিস্তার করে তার উপর বিস্তারিত ক্লাস ও সেশন শুরু করতে হবে। পরিসংখ্যানে দেখা গেছে রোগীদের ভর্তি করানোর এক সপ্তাহের মধ্যে প্রথম এবং প্রধান যে সমস্যা দেখা দেই তা হচ্ছে দাঁতে ব্যথা। এ ক্ষেত্রে আমরা সাধারণ কিছু পেইন কিলার, গরম পানির কুলি করা নামক ব্যবস্থাপনার দ্বারা সাময়িক পরিত্রাণ পেতে পারি। কিন্তু অদূর ভবিষ্যতে এ সমস্যা যখন প্রকট আকারে দেখা দিবে তখন কোন উপায় থাকবেনা।

কেন দাঁতের স্বাস্থ্য গুরুত্বপূর্ণঃ
সুন্দর দাঁত শুধু সুন্দর হাসির জন্য নয় বরঞ্চ সুস্থ দাঁত সামগ্রিক সুস্থতা বাস্তবায়নে অন্যতম ভূমিকা রাখে। "দাঁত থাকতে দাঁতের মর্ম বোঝেনা" - এ প্রবাদ আমাদের মধ্যে কতটুকু জরুরী তা বলে শেষ করা যাবেনা। দাঁতের যত্নে অবহেলার কারনে আমরা সম্মুখীন হই পাচক রোগ (হজমে সমস্যা), এন্ডোকার্ডাইটিস (সাধারণত ঘটে যখন আপনার শরীরের অন্য অংশ থেকে ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক বা অন্য জীবাণুগুলির আগমন ঘটে) এক হৃদযন্ত্রের রোগ। চিকিৎসা শাস্ত্রে ই, এন, টী (নাক, কান, গলা) বিভাগে বলা হয়েছে দাঁতের সাথে শরীরের অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গের কতটুকু সম্পর্ক বিস্তারিত।
সুস্থ সুন্দর দাঁত ও একটি সুন্দর হাসি ই পারে একজন সুস্থতাপ্রাপ্ত আসক্ত ব্যক্তিকে শক্ত ও সুস্থ করে তুলতে। ক্ষতিগ্রস্ত অথবা অসুন্দর দাঁত আপনার ব্যক্তিত্ব, খাবার দাবার এবং বাচন ভঙ্গির উপর খারাপ প্রভাব ফেলে, যা কোন সুস্থ মানুষ ই গ্রহন করতে পারেনা। এই সমস্যার কারনে আমরা ভালো বন্ধু ও জীবনসঙ্গী খুঁজতে গিয়েও আশাহত হই।

শুধুমাত্র মাদকের কারনে দাঁতের উপর প্রভাবঃ
যখন আমরা মাদকের বিরুদ্ধে সংগ্রাম এ নামি তখন ভুলে যাই দাঁতের সাস্থ ও পুষ্টির কথা। তখন আমরা প্রতিদিন দুইবার ব্রাশ করতে পারলেই ভাবি দাঁতের যত্ন নেয়া হচ্ছে। আসক্তির কারনে শরীরের অন্যান্য অঙ্গের মত দাঁতের উপর ব্যাপক কুপ্রভাব বিস্তার করে। বিশেষজ্ঞরা বলেন "মাদক এর অপব্যবহারে মুখ গহ্বরে এক ধরনের লালা (saliva) তৈরিতে ব্যাঘাত ঘটাই যা মুখের পরিচ্ছন্নতা কার্যাবলী বন্ধ করে এবং এটি দাঁত ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা বাড়ায়। সর্বনাশা ইয়াবা এর ধোঁয়া, পাশাপাশি সিগারেটের ধোঁয়া দাঁতের এনামেলকে সরাসরি আক্রমণ করে। এলকোহল এবং ধূমপান একত্রে মুখের অভ্যন্তরীণ তকের কোষ বিভাজনে বাঁধা দেয় যা ভবিষ্যতে ক্যান্সার এর দিকে ধাবিত করে।

স্বাস্থের উন্নতির ক্ষেত্রে করনীয়ঃ
এ সকল তথ্য আপনার রিকভারি জীবন কে বিষণ্ণ করে তুলতে পারে তবে আপনার মৌখিক স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ পূর্বক পরিকল্পনা মাফিক চলা শুরু করুন। যা আপনাকে খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন নিয়া আসবে দাঁতের যত্নে পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমানে পানি পান, যথাযথ ভাবে ব্রাশ করা, মেসওয়াক ব্যবহার করা, ফ্লসিং করা। প্রত্যেকদিনের খাবার তালিকায় অতিরিক্ত ক্যালসিয়াম জাতীয় খাবার যোগ করতে হবে। খুব বেশী জরুরী হলে দাঁতের ফিলিং ও প্রয়োজনীয় সার্জারি করাতে হবে। আরও বিস্তারিত জানতে এবং মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে যোগাযোগ করুন. https://proshantirehabbd.com/

ADs by Techtunes tAds
Level 0

আমি খোরশেদ আলম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 সপ্তাহ 1 দিন যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 1 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

We at PROSHANTI Treatment Centre are very confident of the value that we offer to our clients. We are able to offer an exceptional treatment experience, with an excellent staff, location and programs.


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস