Quantcast

ফ্রিলেন্সিং গাইড ২০১৮ আপডেট [পর্ব-০২] :: কোন টাকা ইনভেস্ট না করে যেভাবে ফ্রিলেন্সিং শুরু করবেন

0 টিউমেন্টস
3,045 দেখা
জোসস করেছেন
0 0 0 0
আউটসোর্সিং

আসসালামু আলাইকুম, নতুন ফ্রিলেন্সাররা প্রথমেই টাকা ইনভেস্ট করতে চাইবেন না, এমনকি নিজের নামে একটি প্রোর্টফলিও প্রফাইল তৈরি করার জন্য ওয়েবসাইট রেডি করার মতোও টাকা ইনভেস্ট করতে চাইবেন না। এটাই স্বাভাবিক। মজার বিষয় হচ্ছে আপনি যদি কাজ জানেন তবে কোন টাকা ইনভেস্ট না করেই অনলাইনে ইনকাম করা সম্ভব।

আসলে প্রতিটি মাধ্যমেই টাকা ইনভেস্ট করার মতো অনেক ক্ষেত্র রয়েছে। আবার টাকা ইনভেস্ট না করেও শুরু করার মতো অনেক মাধ্যম রয়েছে অনলাইন ফ্রিলেন্সিয়ে। ভালো ডোমেইন নেম কিনে, পার্ক করে সেইল করে অনলাইনে আয় করতে চাইলে অবশ্যই টাকা ইনভেস্ট করতে হবে। কিন্তু আপনি কোন একটি কাজ যদি খুব ভালোভাবে করতে পারেন তবে আপনার সেই প্রতিভাবার অবশ্যই একটি মূল্য রয়েছে। এই প্রতিভাকে কাজে লাগিয়ে অনলাইনে আয় করতে পারেন। আসুন জেনে নেই কি কি কাজ জানা থাকলে কোন টাকা ইনভেস্ট না করেই কাজ পেতে পারেন।

১। ফ্রিলেন্সিং মার্কেটে কাজ হায়ার করে।
২। এফিলিয়েট মার্কেটিং করে।
৩। আরটিকোল রাইটিং কাজ করে।
৪। ইমেল মার্কেটিং করে।
৫। এসইও করে।

ফ্রিলেন্স মার্কেটপ্লেসের কাজ - ফ্রিলেন্স মার্কেটপ্লেসের মধ্যে freelancer.com, upwork.com, fiverr.com, peopleperhour.com,  gigbucks.com এগুলো খুবই জনপ্রিয়। এসব ফ্রিলেন্সিং মার্কেটপ্লেসে আপনি প্রায় সব ধরনের কাজই পাবেন। শুধু তাই নয়, আপনি বড় বড় ফ্রিলেন্সারদের সহকারী হিসেবেও কাজ করতে পারেন। অনেক ফ্রিলেন্সার রয়েছেন যারা দ্রুততম সময়ে তাদের প্রযেক্ট সম্পন্ন করার জন্য সহকারী দিয়ে কাজ করান। একজন ফ্রিলেন্সার হয়ত সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের একটি প্রযেক্টে কাজ করছেন। সার্চ ইঞ্জিনের কাজগুলোর কাজের মধ্যে তার হয়ত লিংক বিল্ডিংয়ের কাজও রয়েছে। সেক্ষেত্রে তিনি হয়ত আপনাকে কিছু লিংক দিয়ে বলবেন, এই লিংকগুলোতে একটি নির্দিষ্ট অন্য লিংকের লিংক বিল্ডিং করে দিন। তাছাড়া ডাটা এন্ট্রির অনেক কাজও অন্য একজন ফ্রিলেন্সার সহকারী হিসেবে কাজ করার সুযোগ পাওয়া যায়। তিনি হয়ত একটি ওয়েবসাইটের ইউজার প্যানেল বা এডমিন প্যানেলের একটি অংশ দিয়ে কিছু প্রডাক্টের লিস্ট দিয়ে সেগুলো সেখানে এড করতে বললেন। এরকম কাজগুলো আপনি করতে পারেন কোন প্রকারের ইনভেষ্ট ছাড়াই।

এফিলিয়েট মার্কেটিং - কোন টাকা ইনভেষ্ট না করেও এফিলিয়েট মার্কেটিং করা সম্ভব। অনেক বড় বড় হোষ্টিং কোম্পানী আছে যারা তাদের এফিলিয়েট মার্কেটারদের অনেক বড় পরিমানের টাকা দিয়ে থাকে। তাদের হয়ে কাজ করতেও পারেন।

আরটিকোল রাইটিং - আপনি শুধু ইংরেজী দক্ষ হলেই যে আরটিকোল রাইটিংয়ের কাজ করবেন শুধু তাই নয়। আপনি বাংলাদেশী নিউজ সাইট, ব্লগ সাইটেও আরটিকোল সেইল করতে পারেন। পারসনালী তাদের সাথে যোগাযোগ করে আপনার আরটিকোলের কিছু অংশ দেখান। একবার একটি কোম্পানীতে আপনার প্রতিভা দেখাতে পারলে দেখবেন অনেক কোম্পানী থেকেই কাজ পাচ্ছেন। আর ইংরেজীতে দক্ষ হলে আপনার তো কাজের অভাব হওয়ার কথা নয়।

ইমেল মার্কেটিং - নিজস্ব কোন সার্ভার না থাকলেও আপনি ইমেল মার্কেটিং করতে পারেন। জিমেল, ইয়াহুর মতো ফ্রি ইমেল সার্ভিস কোম্পানীগুলোতে ১০০/১৫০ একাউন্ট খুলে সেগুলো দিয়েও আপনি ইমেল মার্কেটিং করতে পারেন। কোন একজন ক্লায়েন্টকে আপনার কাজের একটি ফ্রি ডেমো হিসেবে দিন। একদিন তাকে ফ্রিতেই ইমেল মার্কেটিং করে দিন। তারপর দেখবেন আপনাকে দিয়েই সে কাজ করাবে। কেননা, সে জেনে যাবে আপনি আপনার কাজে সৎ এবং পরিশ্রমী।

ইমেল কালেক্টর দিয়ে ১ লক্ষ্য ক্লিন ইমেল সংগ্রহ করুন। ১ লক্ষ্য ইমেল করে যদি মাত্র ১০ পারসেন্ট ক্লিক আনতে পারেন তবে আপনি আপনার ক্লায়েন্টদের অফার করুন যে আপনি তাদের ওয়েব সাইটে ভিজিটর এনে দিতে পারবেন। ১০ হাজার ভিজিটরের জন্য মাত্র ১ ডলার নিন। ধীরে ধীরে আপনার কাজের রেট বাড়ান। প্রথমে ১ ডলার আয় করুন ১ দিনে। তারপর দেখবেন আপনি নিজেকে ধীরে ধীরে গড়ে নিতে পারছেন। আপনি একটি সার্ভার নিয়ে হয়ত মাত্র ১০ মিনিটের একটু পরিশ্রম করে তখন তাদের ১০ হাজার ভিজিটর দিতে পারবেন। তাই শুরু করুন সামান্য করে হলেও। শুরুতে পারিশ্রমিক হিসেব করতে যাওয়াটা ভুল হবে।

এসইও - এসইও বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের কাজের কোন অভাব নাই। এই কাজে পারিশ্রমিক তুলনামূলকভাবে কিছুটা কম হলেও এসইও এক্সপার্টরা জানেন তাদের বসে থাকার কোন সুযোগ নেই। আপনি যদি এসইও জানেন আর আপনার হাতে কোন কাজ না থাকে তবে আমি বলব আপনি ফ্রি একটি ব্লগ সাইট খুলুুন। সে সাইটেকে গুগলের প্রথম পাতায় নিয়ে আসুন। আর গুগলের প্রথম পাতায় আছে এমন একটি ওয়েবসাইটের মাসিক আয় কমপক্ষে ৩ শত ডলার যদি সে সাইটের কিওয়ার্ড ভালো হয়।

আজ এই পর্যন্ত। আগামী পর্বে নতুন আপডেট নিয়ে আসব। ভালো থাকুন।

My Facebook Id- http://www.facebook.com/obaydul.shipon

টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো