Quantcast
ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

ক্রাউডফান্ডিং বাংলাদেশ- ক্রাউডফান্ডিং কি এবং কিভাবে অপরাজয় প্ল্যাটফর্মটি অর্থ সংগ্রহে কাজ করে – বিস্তারিত আলোচনা

বিশ্বব্যাপী ক্রাউডফান্ডিং এর যাত্রা শুরু বেশ আগে হলেও বাংলাদেশে ক্রাউড ফান্ডিং এর ধারনা এক রকম নতুনই বলা যায়। কিন্তু সম্প্রতি আমাদের দেশেও ক্রাউড ফান্ডিং এর কার্যক্রম শুরু হতে চলেছে, এরই মাঝে কিছু প্রজেক্টও চলছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামীতে এটিই দেশের বড় একটি আস্থার কারণ হয়ে দাড়াবে।

ADs by Techtunes tAds

ক্রাউড ফান্ডিং কিঃ

ক্রাউডফান্ডিং শব্দটি উচ্চারনে যতটা কঠিন মনে হচ্ছে, আসলে এটি একেবারেই সহজ একটি বিষয়। এই ক্রাউডফান্ডিং সিস্টেমটি ব্যবহার করে কয়েকজনের সামান্য কিছু অর্থের অবদানে কোন আর্থিকভাবে বিপদগস্থ ব্যক্তির প্রয়োজনে নির্দিষ্ট পরিমান অর্থ সংগ্রহ করা সম্ভব। যেকোনো ধরনের আথির্ক সমস্যা (মেডিকেল চিকিৎসা, উন্নত শিক্ষা খরচ) সমাধানে অর্থ সংগ্রহ করতে এই সিস্টেমটির সাহায্যে নেওয়া যাবে। বিষয়টা এমন কারো একটি সমস্যার জন্য যদি ১ লক্ষ টাকা প্রয়োজন হয় তাহলে তা ১০০ টাকা করে ১০০০ লোকে দিতে পারেন, আবার ১০ টাকা করে ১০০০০ জন লোকেও দিতে পারেন। উইকিপিডিয়ার তথ্য অনুসারে বিশ্বব্যাপী ২০১৫ সালে ৩৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সমপরিমান অর্থ ক্রাইডফান্ডিং এর মাধ্যমে সংগ্রহ করা হয়।

সারা বিশ্বে ক্রাউডফান্ডিং এর যাত্রা শুরু বেশ আগে হলেও বাংলাদেশে এই প্রথম ক্রাউডফান্ডিং প্লাটফর্ম নিয়ে কাজ শুরু করেছে অপরাজয়। অপরাজয় ক্রাউডফান্ডিং এর ধারনা বাংলাদেশে একেবারেই নতুন। কিন্তু খোদ উন্নত দেশেই বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ক্রাউডফান্ডিং করে অর্থ সংগ্রহ করে অসহায় এবং দরিদ্রদের বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখাচ্ছে এই পদ্ধতি।

অপরাজয় ক্রাউডফান্ডিং এর উৎপত্তিঃ

২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর এই সিস্টেম নিয়ে কাজ শুরু করে অপরাজয় আইটি। বর্তমানে এই প্ল্যাটফর্মটি সম্পূর্নভাবে সচল। অপরাজয় ক্রাউডফান্ডিং প্ল্যাটফর্ম দাতা এবং গ্রহিতা এই দুই পক্ষের মধ্যে একটি সেতু বন্ধন করে দেয়। এখানে একপক্ষ তাদের সমস্যা গুলো এসে তুলে ধরবে এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রচার করবে। এবং সেই সমস্যার জন্য অর্থ তুলবে। অন্য পক্ষ সাহায্য প্রার্থির সমস্যা বুঝে তাকে অর্থ প্রদান করবে। যে প্রদান করবে তিনি এটা অনুদান হিসেবে দিতে পারেন। বা কোন একটি ভালো উদ্যোগে সহযোগীতা করছেন এটা ভেবে একটা মানসিক তৃপ্তি লাভ করতে পারেন।

ক্রাউডফান্ডিং কি এবং অপরাজয় প্ল্যাটফর্ম দ্বারা যেভাবে অর্থ সংগ্রহ করা সম্ভব- এই ভিডিওটির মাধ্যমে সহজ ভাবে ধারনা দেওয়া হয়েছেঃ

ক্রাউডফান্ডিং এর বদৌলতে বাংলাদেশের অর্থনীতিতের কি ধরনের পরিবর্তনের সম্ভাবনা আছেঃ

ক্রাউডফান্ডিং প্লাটফর্ম ব্যবহার করে আমাদের দেশের উদ্যোক্তারা বিশেষ করে নতুন উদ্যোক্তারা নিজেদের ব্যবসার জন্যে প্রয়োজনীয় মুলধন সংগ্রহ করতে পারে। উদ্যোক্তারা ক্ষুদ্র এই সকল বিনিয়োগকারীদের সাথে তাদের ব্যবসার লভাংশ শেয়ার করার মাধ্যমে এই বিনিয়োগ সংগ্রহ করতে পারে। এতে করে দেশে নতুন নতুন অনেক উদ্যোগ বাস্তবায়িত হবার সুযোগ পাবে। অনেক সময় আমরা অনেক গরীব মেধাবী ও অসুস্থ শিক্ষার্থিদের কথা শুনি যারা অর্থের অভাবে চিকিৎসা পাচ্ছে না। অনেকে আবার স্কুল করতে চান। কেউ কেউ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী। সকল ক্ষেত্রেই ক্রাউডফান্ডিং ভূমিকা রাখতে পারে অপরিসীম। যা নিঃসন্দেহে সেশের অর্থনীতিতে গুরুত্ব পুর্ন ভূমিকা রাখবে।

ADs by Techtunes tAds

তহবিল সংগ্রহের বিভিন্ন ক্ষেত্র সমূহঃ

১. দুর্ঘটনা বা ব্যক্তিগত সমস্যা
২. শিশু৩. সম্প্রদায়
৪. উদ্ভাবনী
৫. শিক্ষা
৬. পরিবেশ
৭. খাদ্য এবং ক্ষুধা
৮. স্বাস্থ্য
৯. সঙ্গীত
১০. খেলাধুলা
১১. প্রযুক্তি
১২. নারীর ক্ষমতায়ন

উপরোক্ত বিভিন্ন ক্যাটাগরির আলোকে একজন ব্যক্তি অপরাজয় ক্রাউডফান্ডিং এর মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহ করতে পারবে।

প্রথমে oporajoy.org এই ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। তারপর My Campaigns এ গিয়ে Start a Campaign এ ক্লিক করবেন। ক্যাম্পেইন সম্পর্কিত তথ্য চা্ওয়া হবে সেখানে। এখানে আপনাকে দিতে হবে
১. Category: আপনি কোন Category এর আ্ওতায় ক্যাম্পেইন করতে চান।
২. Title: এখানে অল্প কথায় আপনার সমস্যা টা লিখবেন।
৩. Short Description: যে কারনে অর্থ তুলবেন তার একটি সারাংশ লিখবেন।
৪. Description: এই ঘরে সম্পূর্ন বিবরণ লিখবেন এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস এর ছবি দিবেন।
৫. Goal: আপনার কত টাকা দরকার বা কত টাকা তুলতে চান তার অংক বসাবেন।
৬. Recommended Amount: আপনি চাচ্ছেন সবাই আপনাকে ১০ টাকা বা ৫০ টাকা করে দিক। সেই অংক এই ঘরে লিখবেন।
৭. Amount pre-filled: এই ঘরে কয়েকটা অংক দিবেন যাতে ডোনেটকারী যে কোন একটা পছন্দ করে নিতে পারে।
৮. Campaign end method: এখানে ২টা ঘর আছে একটাতে (ক) After goal achieve মানে আপনার কঙ্খিত অর্থ তোলার পর ক্যাম্পেইন বন্ধ করবেন? (খ) অথবা After end date একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত তুলবেন? আপনার যেটা দরকার সেটাতে ক্লিক করবেন।
৯. Video: আপনি যে কারনে টাকা তুলবেন তার কোন ভিডিও থাকলে সেটা YouTube আপলোড করে এখানে লিংক দিবেন।
১০. Country: বাংলাদেশ দিবেন।
১১. Address: এখানে বর্তমান ঠিকানা দিবেন।
১২. Start date: যে তারিখ থেকে ক্যাম্পেইন শুরু হবে সেই তারিখ দিবেন
১৩. End date: ক্যাম্পেইন যে তারিখে শেষ হবে সেই তারিখ দিবেন।
সব কিছু দেয়া শেষ হলে নিচের Submit new campaign বাটনে ক্লিক করুন।
১৪. Feature Image: এই বক্সে একটি ছবি দিবেন যার Size হবে 1024 X 768 pixel এবং অবশ্যই 500KB এর মধ্যে হতে হবে।

সকল কাজ সম্পন্ন হলে অপরাজয় থেকে আপনাকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে কল দিবে। এবং আপানাকে একটি প্রত্যয়ন পত্রের নমুনা কপি দিবে। সে আলোকে আপনি চেয়ারম্যান বা কাউন্সিলরের থেকে সই করে তার স্ক্যান কপি। সাথে আপনার ভোটার আইডির স্ক্যান অথবা জন্ম নিবন্ধন এর স্ক্যান কপি, অসুস্থ হলে চিকিৎসাপত্রের স্ক্যান কপি, অন্যান্য ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের স্ক্যান কপি, বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা বিবরণ, যে ব্যাংকে আপনার টাকা জমা হবে উক্ত ব্যাংকের হিসাব নং, ব্যাংকের নাম, শাখা, সংযুক্ত করে- support@oporajoy.org ই-মেইলে পাঠাতে হবে।

টাকা পাবেন যেভাবেঃ

ক্যাম্পেইন শেষ হওয়ার পরে আপনার ব্যাংক একা্উন্টে অথবা চেকের মাধ্যমে আপনাকে টাকা বুঝিয়ে দিবে।

মোট টাকার কত ভাগ পাবেনঃ

যে পরিমান অর্থ তুলবে তার ৯৫% পাবে একজন ক্যাম্পেইনকারী। বাকি ৫% পেমেন্ট গেট্ওয়ে এবং অপরাজয় তাদের সিস্টেম এর জন্য কেটে রাখবে।

বাংলাদেশে ক্রাউড ফান্ডিং-য়ের জনপ্রিয়তাঃ

ADs by Techtunes tAds

দেশে মাত্র ক্রাউডফান্ডিং শুরু হয়েছে। এই বিষয় সম্পর্কে এখন্ও অনেকেই কিছু জানেন না। নতুন একটা বিষয় হুট করেই সবাই গ্রহণ করতে পারে না। আমাদের দেশ্ওে এটা জনপ্রিয় হতে সময় লাগবে। যুক্তরাজ্য থেকে ২০১৪ সালের মে মাসে এই বিষয়ে একটি রিপোর্ট বের হযয়েছিল। যেখানে বলা হয় ২০১৪ সালের মার্চেই শুধুমাত্র এক ঘন্টায় ক্রাউড ফান্ডিং-এর মাধ্যমে $60, 000 হাজার ডলার তোলা হয়েছিল। আমাদের দেশে ক্রাউডফান্ডিং ভালোভাবে করতে পারলে অনেক মেধাবীর স্বপ্ন পূরণ হবে। অনেককেই নতুনভাবে ভাবে ভাবতে পারবে, নতুন প্রজন্ম উৎসাহিত হবে উদ্ভাবনী কিছু করতে। তা হলে অবশ্যই দিন বদলের ঘটনা ঘটে যাবে।

অপরাজয় ফেইসবুক লিংক: https://www.facebook.com/oporajoy.org/
টুইটার লিংক: https://twitter.com/oporajoy_org

ADs by Techtunes tAds

আমি aktarkhan। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 2 টি টিউন ও 54 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস