Quantcast

বিশ্বের সবচাইতে দামী ও ব্যয়বহুল ১০টি স্মার্টফোন অ্যাপ!

0 0 0 0 0
0 টিউমেন্টস 1,037 দেখা প্রিয়
টেক ফিকশান

টেকনোলজির এই যুগে আমরা কম্পিউটারে, স্মার্টফোনে, স্মার্ট ঘড়িতে এমনকি আমাদের গাড়িতে বাড়িতেও বিভিন্ন ধরণের এপ্লিকেশন ব্যবহার করে থাকি। এপ্লিকেশন বলতে বেশ কয়েকটি প্রোগ্রামিং কোড সম্ভলিত একটি নির্দেশ বক্সকে বুঝায় যেটা আমাদের কমান্ড অনুযায়ী যাবতীয় কাজ অনুসরণ করে থাকে। এপ্লিকেশন মূলত দুই প্রকারের হয়ে থাকে। একটি ফ্রি এবং অপরটি হচ্ছে পেইড। সাধারণতই পেইড এপ্লিকেশনগুলো ভালো মানের এবং জটিল জটিল কার্য নির্বাহ করতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। এপ্লিকেশনের জটিলতা এবং তার কাজের ধরণের উপর এর মূল্য নির্ধারণ করা হয়। আর আমাদেরকে দেখুন! পাইরেটেড উপায়ে আমরা পেইড এপ্লিকেশনগুলো ফ্রিতেই ব্যবহার করে আসতেছি! উদাহরণ স্বরূণ মাইক্রোসফট উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম যেটি এখন আপনার পিসিতে ব্যবহার করতেছেন তার জন্য আপনি কত টাকা খরচ করেছেন? ৬০/৭০ টাকার একটি ডিভিডি কিনেই খরচ শেষ! অথচ একটি জেনুইন উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের দাম বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২৭০০০ টাকা! আরেকটি উদাহরণ দিচ্ছি, এই যে বাংলা টাইপিংয়ের জন্য যে বিজয় সফটওয়্যারটি ইন্সটল করে চালাচ্ছেন সেটা জেনুইন মূল্য হলো ৫০০০ টাকা! আর আপনি কত টাকা দিয়েছেন?

যাই হোক আজকে টেকটিউনসে আমি বিশ্বের শীর্ষ ১০টি ব্যয়বহুল এপ্লিকেশন নিয়ে কিছু কথা বলতে এসেছি। আশা করি আজকের আমার এই ব্যতিক্রমী টিউনটি আপনাদের কাছে ভালো লাগবে। তো চলুন ভূমিকা আর না বাড়িয়ে সরাসরি টিউনে চলে যাই!

১০) এগ্রো - AGRO - $299.99

আজকের আমার টিউনটি শুরু করছি এগ্রো এপ্লিকেশনটি দিয়ে। এগ্রো একটি কৃষিজাতীয় ইমেইল ভিত্তিক অটোমেশন সার্ভিস যেটার বিক্রয় মূল্য প্রায় ৩০০ মার্কিন ডলারের কাছাকাছি! এগ্রো এপ্লিকেশনটি শুধুমাত্র তাদের জন্য যারা কৃষি নিয়ে বিভিন্ন গবেষণা করে থাকেন। এপ্লিকেশনটিতে গবেষণা বিষয়বস্তু একটি প্রবেশ করিয়ে দিলে এটি গবেষনার কৃষি জাতীয় বস্তুগুলোকে নিজে নিজেই পর্যবেক্ষণ করবে এবং নির্দিষ্ট সময় অন্তর ব্যবহারকারীকে ইমেইলের মাধ্যমে রির্পোট পাঠাতে পারবে। এভাবে এপ্লিকেশনটি সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে যেকোনো গবেষক তার প্রতি সপ্তাহে প্রায় ১৫ ঘন্টার কাজ বাঁচাতে পারবেন বলে নির্মাতারা দাবী করেছেন।

৯) ট্যাপ মেন্যু - Tap Menu - $399.99

আমাদের লিস্টের পরবর্তী স্থানে রয়েছে ট্যাপ মেন্যু নামের একটি এপ্লিকেশন যেটার বিক্রয় মূল্য রাখা হয়েছে প্রায় ৪০০ মার্কিন ডলারের কাছাকাছি। ট্যাপ মেন্যু একটি ডিজাইন ভিক্তিক মডিফাইড এপপ যেটি রেস্টুরেন্ট, হোটেল এবং রিসোর্ট মালিকদের জন্য বিশেষ ভাবে বানানো হয়েছে। এই এপ্লিকেশনটির মাধ্যমে কোনো হোটেল, রেস্টুরেন্ট কিংবা রিসোর্টে কিছু খেতে গেলে আর খাবারের মেন্যুতে আপনাকে আলাদা করে লক্ষ্য করতে হবে না, এই এপ্লিকেশন অটোমেটিক্যালি রেস্টুরেন্টের লাইভ সব মেন্যু আপনার স্মার্টফোনের পর্দা নিয়ে চলে আসবে। আর কাস্টমাররা চাইলে তাদের নিজেদের মতো করে আলাদা মিক্সড মেন্যু লিস্ট তৈরি করে নিতে পারবেন। এমনকি তারা বাসা থেকেও আগে থেকে মেন্যুতে অর্ডার দিয়ে রাখতে পারেন। এপ্লিকেশনটির সর্বশেষ আপডেট নভেম্বর, ২০১৩ তে আসার পর বর্তমান পর্যন্ত এপপটির কোনো আপগ্রেড আসে নি।

৮) কে গলফ - KGULF - $499.99

প্রায় ৫০০ মার্কিন ডলারের প্রাইস ট্যাগ নিয়ে কেগলফ এপ্লিকেশনটি আমাদের লিস্টের ৮তম স্থানে রয়েছে। এই দামী এপ্লিকেশনটি দুনিয়ার বিশেষ কিছু মানুষদের জন্য আলাদা করে বানানো হয়েছে। এই এপ্লিকেশনটি শুধুমাত্র আরব মহাদেশের গলফ ফিল্ডের বর্তমান অতীত এবং ২০৩৮ সাল পর্যন্ত যাবতীয় আপডেট আপনাকে দিতে পারবেন। যেমন এদের পানির মাত্রা, আবহাওয়া, চাষাবাদের উপুযুক্ততা ইত্যাদি!

৭) ডিডিএস জিপি ইয়েস! - DDS GP YES! - $499.99

ডিডিএস জিপি ইয়েস একটি আইপ্যাড এপপ যেটার মাধ্যমে ডেন্টিস ডাক্তাররা তাদের ডাক্তারি প্রাকটিসকে আরো নিখুঁত এবং সুন্দর করে তুলতে পারবেন। প্রায় ৫০০ মার্কিন ডলারের প্রাইস ট্যাগ নিয়ে এপ্লিকেশনটি আমাদের লিস্টের ৭তম স্থানে রয়েছে। ডেন্টিস ডাক্তারদের জন্য তৈরি এই বিশেষ এপপটি কোনো রোগী অবস্থা কে সরাসরি এপে প্রবেশ করিয়ে এর থেকে সমাধানের কয়েকটি উপায়সমূহকে ডেন্টিসকে ভিজুয়্যাল রির্পোটের মাধ্যমে উপস্থাপন করতে সক্ষম। যেমন দাত অর্ধেক ক্ষয় হয়ে গেছে, এই তথ্যটি দাতের ছবি সহ এপপটিতে প্রবেশ করালে এপপ এর থেকে সমাধাণের কয়েকটি পথ বলে দিবে। এছাড়াও কোন পথে গেলে সম্ভাব্য রেজাল্ট কি হবে সেটাও এই এপপটি অনুমান করতে সক্ষম!

৬) QSFFSTATS - $999.99

প্রায় হাজার মার্কিন ডলারের প্রাইস ট্যাগ নিয়ে QSFFSTATS এপ্লিকেশনটি আমাদের আজকের লিস্টে ৬ষ্ঠ তম স্থানে রয়েছে। ফ্ল্যাগ ফুটবল স্টাফদের জন্য তৈরিকৃত বিশেষ এই এপপটি দিয়ে স্টাফরা তাদের ফ্ল্যাগ ফুটবল টিমের সকল তথ্য যেমন লোকেশণ, ফিল্ড তথ্য, ডেট টাইম, খেলার টাইম, গোল লিস্ট, প্লেয়ারদের লিস্ট, প্লেয়ারের হেলথ লিস্ট ইত্যাদি সবকিছুই এই এপ্লিকেশনটি দিয়ে অটোমেটিক ম্যানেজ করা যাবে। অর্থ্যাৎ এই এপ্লিকেশনটি ফ্ল্যাগ ফুটবলের কোনো টিমের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করতে সক্ষম!

৫) এপপ ক্যাশ - APP.CASH - $999.99

প্রায় হাজার মার্কিন ডলারের প্রাইস ট্যাগ নিয়ে এপপ ক্যাশ এপ্লিকেশনটি আমাদের লিস্টের ৫তম স্থানে রয়েছে। রহস্যজনক এই এপ্লিকেশনটি অ্যাপেল স্টোরে শুধুমাত্র একটি স্ক্রিণশট এবং একটি লাইনের তথ্য নিয়ে বসে আছে। আমরা একটুকু জানি যে এই এপ্লিকেশনটি বিজনেস ক্যাশিয়ার জাতীয় কাজের জন্য বানানো হয়েছে।

৪) সাইবার টিউনার - $999.99

আরেকটি হাজার মার্কিন ডলারের প্রাইসট্যাগযুক্ত এপ্লিকেশন সাইবার টিউনার আমাদের আজকের লিস্টে ৪র্থ স্থানে রয়েছে। সাইবার টিউনার হচ্ছে একটি প্রফেশনাল পিয়ানো টিউনিং এপপ যেটি নির্মাণে প্রায় ৩ বছর লেগেছে এবং আরো এক বছর এপ্লিকেশনটি বিশ্বের নামীদামী পিয়ানো আর্টিসদের কে নিয়ে টেস্ট করানো হয়েছে। তাই পিয়ানো টিউনিং এর ক্ষেত্রে এর থেকে প্রিমিয়াম কোনো এপ্লিকেশন হতে পারে না।

৩) বারম্যাক্স - Barmax - $999.99

শুধুমাত্র ল স্টুডেন্ট এবং আইনজীবিদের জন্য তৈরি এই বিশেষ এপপটি দিয়ে আপনি ল আইনের প্রায় সকল ক্ষেত্র আপনার স্মার্টফোনে পেয়ে যাবেন শিখার জন্য কিংবা প্রাকটিস করার জন্য। প্রায় ৯৯৯.৯৯ মার্কিন ডলারের প্রাইস ট্যাগ নিয়ে বারম্যাক এপপটি আমাদের আজকের লিস্টের ৩য় স্থানে রয়েছে। তবে হাজার ডলার খরচ করে এই এপ্লিকেশনটি আপনাকে সেই পরিমাণের সার্ভিসও দিবে। তাই এটি হাজার ডলার মূল্যে প্রথম এপ্লিকেশন হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে যেটায় আসলেই হাজার ডলার খরচ করা যায়।

২) ভিআইপি ব্ল্যাক - $999.99

কোটিপতিদের জন্য বানানো এই বিশেষ লাইফস্টাইল এপপটি হাজার মার্কিন ডলার প্রাইস ট্যাগ নিয়ে আমাদের আজকের লিস্টের ২য় স্থানে রয়েছে। এই এপ্লিকেশনটি আপনার আধুনিক উচ্চাভিলাসী লাইফস্টাইলের একজন ডিজিটাল গাইডার হতে প্রস্তুত! পারসোনাল সার্ভিস থেকে শুরু করে স্টাইলিং, ট্রেইনিং, ট্রাভেলিং, রেস্টুরেন্ট বুকিং, প্রপার্টি ম্যানেজমেন্ট ইত্যাদি সবকিছুই এই এপপ দিয়ে ম্যানেজ করা যাবে! টাকা থাকলে কি না করা যায়!

১) LOGMEIN IGNITION - $1399.99

এইতো! আজকের বিশ্বে শীর্ষ ১০টি ব্যয়বহুল এপ্লিকেশন লিস্টের প্রথম স্থানে রয়েছে LogMeIn Ignition এপপটি। প্রায় ১৪০০ মার্কিন ডলারের প্রাইসট্যাগ যুক্ত এই এপ্লিকেশনটি দিয়ে আপনি আপনার সকল পিসিকে আপনার স্মার্টফোন কিংবা ট্যাবলেট দিয়ে সবসময় মনিটরিং করতে পারবেন। শুনতে সাধারণ হলেও এই এপ্লিকেশনটি দিয়ে পৃথিবীর যেখানেই আপনি থাকেন না কেন আপনার স্মার্টফোন দিয়ে আপনার সকল পিসিকে আপনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন, হোক সে পিসি দুনিয়ার অন্য কোনো প্রান্তে! ১৪০০ ডলারের মূল্যের কারণ এই এপ্লিকেশনে মিলিটারী গ্রেডের টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে।

ধরুণ, ঢাকায় আপনার একটি কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র রয়েছে, খুলনায় একটি সাইবার ক্যাফে রয়েছে এবং কানাডায় আপনার নিজের বাসায় দুটি কম্পিউটার এবং একটি ল্যাপটপ রয়েছে। আপনি একজন ব্যস্ত বিজনেস ম্যান। সব সময় আপনি এক দেশ থেকে অন্য দেশে ভ্রমণে ব্যস্ত থাকেন।  এখন আপনাকে এই তিনটি স্থানের মোট ৫৩টি কম্পিউটারকে মনিটর করার দরকার হয় কিন্তু বাস্তবে সেটি করা সম্ভব হবে না। তখন আপনার দরকার হবে এই ১৪০০ ডলারের এপপটি। এই এপ্লিকেশনটি দিয়ে আপনি আনলিমিটেড পরিমানের পিসিকে আপনার স্মার্টফোনের মাধ্যমে মনিটরিং এবং নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। নিয়ন্ত্রণ মানে পূর্ণাঙ্গ নিয়ন্ত্রণ বুঝায়। যেমন মাউস দিয়ে কমান্ড দেওয়া, কিবোর্ড দিয়ে টাইপ করা সহ একটি পিসির সামনে বসে যে সমস্ত কাজ করতে পারতেন সে সকল কাজ আপনি এই এপ্লিকেশনটির মাধ্যমে দুনিয়ার যেকোনো প্রান্তে বসে আপনার স্মার্টফোনে কিংবা ট্যাবলেটে সম্পন্ন করতে পারবেন!

তো আজকের টিউনটি আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে? এই হাই প্রাইস যুক্ত এপ্লিকেশনগুলো কি আসলেই আমাদের জীবনের জন্য উপযুক্ত? আপনার মতামত নিচের টিউমেন্ট বক্সে জানান! ব্যক্তিগত ভাবে ১ম সফটওয়্যার এবং ওই ডেন্টিস সফটওয়্যার এই দুটো এপ্লিকেশনগুলোকে আমার কাজের মনে হয়েছে। আজ তাহলে এ পর্যন্তই। আগামীতে অন্য কোনো টপিক নিয়ে আমি টিউনার গেমওয়ালা চলে আসবো আপনাদেরই প্রিয় টেকনোলজি সৌশাল নেটওয়ার্ক কটিউনসে!

টিউনটি পরখ করে দেখবার জন্য ধন্যবাদ!

টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

You must be logged in to post a Tumment.