Quantcast
ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

চলে এলো টেকটিউনস এর জোসস বাটন

টিউন বিভাগ টেকটিউনস
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সর্ববৃহৎ টেকনোলজি সৌশল নেটওয়ার্কের নাম আমরা একবারেই বলে দিতে পারি  আর তা হলো - টেকটিউনস

ADs by Techtunes tAds

টেকটিউনস গত ১০ বছরে তৈরি করেছে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় বাংলা সৌশল নেটওয়ার্ক এবং তৈরি করেছে লাখো টেকটিউনসারস। বাংলাদেশে টেকনোলজির এক অনন্য সৌশল নেটওয়ার্ক বিপ্লব তৈরি করেছে - টেকটিউনস এবং কাজ করে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

টেকটিউনসে যোগ হয়েছে ইউজার ফ্রেন্ডলী দারুন সব নতুন ফিচার

বাংলাদেশের একমাত্র কন্টেন্ট ক্রিয়েটিং প্লাটফর্ম হিসেবে টেকটিউনস রিসেন্টলি যোগ করেছে ভিডিও টিউন করার অপশন 'ভিউন (vUne)' যার মাধ্যমে যেকোন টিউনার ভিডিও আপলোড করে টেকটিউনস এ টিউন করতে পারে।

আরো যোগ হয়েছে অডিও টিউন করার অপশন 'এউন (aUne)' অর্থাৎ অডিও টিউন।

ভ্যারাইটি ধরনের কন্টেন্ট ক্রিয়েটিং অপশন। বাংলাদেশের আর কোন প্লাটফর্মে নেই

অডিও টিউনের মাধ্যমে যেকোন টিউনার শুধু মাত্র তার ভয়েজ রেকর্ড করে টিউন করতে পারছে, যা বাংলাদেশের আর কোন প্লাটফর্মে একদমই সম্ভব নয়।

এর সাথে টেকটিউনস এ আরো যোগ হয়েছে স্ট্যাটাস আপডেট করার অপশন 'স্টিউন (stUne)' এবং লিংক শেয়ার করার অপশন 'লিউন (liUne)'।

টেকটিউনস এ ভ্যারাইটি ধরনের কন্টেন্ট ক্রিয়েটিং অপশন তৈরি হয়েছে, সেই সাথে টেকটিউনস এ স্ট্যান্ডার্ড টিউন অপশন তো থাকছেই।

টেকটিউনস 'জোসস বাটন'

নতুনত্ব, অভিনবত্ব এবং প্রযুক্তির সর্বশ্রেষ্ঠ প্রয়োগই টেকটিউনস এর মূল ব্রত, আর সেই ধারাবাহিকতায় টেকটিউনস যোগ করল 'জোসস বাটন'। যার মাধ্যমে যেকোন টিউন এ জোসস রিয়্যাকশন দেয়া যাবে।

ADs by Techtunes tAds

আপনি যে কোন টিউন যখন পড়ে ভাল লাগবে এবং যে টিউনটি আপনার কাছে জোসস মনে হবে সাথে সাথে ক্লিক করুন জোসস বাটনে।

জোসস করুন, জোসস টিউন গুলো

এখন থেকে জোসস বাটন টিউনের র‌্যাংকিং ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করবে। এর ফলে আপনার টিউন স্ক্রিন (Tune Screen) এ জোসস করা টিউনের টিউনার গুলো বেশী দেখা যাবে। এর ফলে আপনি টেকটিউনস এ আপনার টিউন স্ক্রিনে (Tune Screen) অযাচিত টিউন এবং স্প্যাম টিউন গুলো আর দেখতে হবে না।

টেকটিউনস এর জোসস বাটনে ক্লিক করলে আপনি  টিউনের ফুটারে দেখতে পারবেন কে কে টিউন টি জোস করেছে আপনার সাথে।

জোস বাটন এখন থেকে টেকটিউনসের র‌্যাংকিং ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করবে

টেকটিউনস এর জোস বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথে টিউনটি একটি র‌্যাংকিং পাবে, যার ফলে ভালো ভালো টিউন টেকটিউনস এর টিউন স্ক্রিনে (Tune Screen) উপরের দিকে থাকবে এবং টিউন র‌্যাংক (Tune Rank) করতে সাহায্য করবে, আর তাই ক্লিক করুন জোস বাটনে এবং টিউন গুলো র‌্যাংক করুন।

বেশি জোসস পেতে করুন জোসস টিউন

টেকটিউনসারসরা! টিউন করুন ক্রিয়েটিভ, নলেজ বেইজড, মৌলিক এবং অরজিনাল টিউন। টিউজিটরদের জোসস রিয়েকশন পেতে অবশ্যই কোয়ালিটি টিউন করুন, টিউনে বিস্তারিত লিখুন এবং টেকটিউনস এর গাইডলাইন মেনে টিউন করুন। সঠিক ইউজার বেইজ পাওয়ার জন্য আপনার টিউনের শেষে টিউজিটরদের আপনার টিউন জোসস করতে বলুন এবং আপনাকে ফলো করার জন্য বলুন।

তো টিউনাররা টেকটিউনস এই নতুন ফিচার আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে?

আপনারদের ফিডব্যাক দিন এবং আর নতুন কি কি ফিচার আপনি টেকটিউনস এ দেখতে চাচ্ছেন জানান টিউমেন্টের মাধ্যমে। টেকটিউনস আপনার মতামত অবশ্যই বিবেচনা করবে।

"থাকুন টেকটিউস এর  সাথে এবং মেতে উঠুন প্রযুক্তির সুরে"।

ADs by Techtunes tAds

আমার টিউন গুলো ভালো লাগলে অবশ্যই আমার টিউন বেশি বেশি জোসস করুন

আমার টিউন গুলো আপনার 'টিউন স্ক্রিন' নিয়মিত পেতে অবশ্যই আমাকে ফলো করুন। আমার টিউন গুলো সবার কাছে ছড়িতে দিতে অবশ্যই আমার টিউন গুলো বিভিন্ন সৌশল মিডিয়াতে বেশি বেশি শেয়ার করুন

আমার টিউন সম্পর্কে আপনার যে কোন মতামত, পরামর্শ ও আলোচনা করতে অবশ্যই আমার টিউনে টিউমেন্ট করুন

আমার সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য 'টেকটিউনস ম্যাসেঞ্জারে' আমাকে ম্যাসেজ করুন। আমার সকল টিউন পেতে ভিজিট করুন আমার 'টিউনার পেইজ'

ADs by Techtunes tAds

আমি টেকটিউনস। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 125 টি টিউন ও 845 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 229 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1578 টিউনারকে ফলো করি।

মেতে উঠুন প্রযুক্তির সুরে।


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

নতুন ফিচার যোগ করে করবেন টা কি? টেকটিউন্সের হোমপেজটা দেখেছেন? বেশিরভাগ সময় দেখি ডিজাইন ব্রেক হয়ে থাকে। ক্লাস গুলো লোড নেয় না, ফুটারটাও অনেক সময় বিশ্রী হয়ে থাকে। অ্যাডের আর টিউন কোয়ালিটির কথা বাদই দিলাম। পুরা সাইটের ন্যাভিগেশন সিস্টেমই বাজে হয়ে আছে, হোমপেজ ৫মেগাবাইট+
কিভাবে সম্ভব? সাইট তো যে পরিমানে স্লো, সে কথাও না হয় বাদ দিলাম। আগের টেকটিউন্সে হারিয়ে অনেক ব্যাথা লাগে, দুঃখে টিউন করি না, হয়তো কখনোই আর প্রিয় টিটিকে ফেরত পাবো না।

    প্রিয় টিউনার,

    আপনার মূল্যবান মতমতের জন্য অনেক ধন্যবাদ। টেকটিউনস ট্রিনিটি বর্তমানে আলফা ২ ভার্সনে রয়েছে। এখনও টেকটিউনস ট্রিনিটি ফুল ভার্সনে আসেনি। টেকটিউনস ট্রিনিটি আলাফা ১, আলফা ২, আলফা ৩, আলফা ৪, আলফা ৫ আলফা ৬ এর পর বেটা ১-৬ ভার্সনের পর ফুল ভার্সন রিলিজ হবে। তাই এর বেশ বেশ কিছু বিষয় প্রক্রিয়াধীন। টেকটিউনস এর নতুন ট্রিনিটি ভার্সনে যোগ হয়েছে নতুন অনেক সৌশল ফিচার। নুতন ফিচার গুলো অপটিমাইজেশন এর কাজ ও চলছে। যা নিয়ে টেকটিউনস ইঞ্জিনিয়ারিং Ops টিম নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছে। সাইটের মাইনর ও বেসিক সমস্যা গুলো ঠিক হয়ে যাবে দ্রুত।

    আপনি ডিজাইন ব্রেকের একটি স্ক্রিনসট আমাদের দিন যার ফলে টেকটিউনস ইঞ্জিনিয়ারিং Ops টিম সে বিষয় গুলো ঠিক করতে পারে। স্ক্রিনসটটি https://snag.gy/ এর মাধ্যমে টিউমেন্ট এ দিন।

    নিয়মিত টিউন করুন টেকটিউনসে।

      তাহমিদ বোরহান এখানে উদ্দেশ্যমূলক ভাবে টিউমেন্টটি করেছেন। উনাকে টেকটিউনসে আর টিউন করতে দেখেন? বরং উনি নিজের ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত। ব্যবসা করুন তাতেও সমস্যা নেই। কিন্তু উনি টেকটিউনসের বিভিন্ন টিউনাদের মিথ্যা বুঝিয়ে নিয়ে ব্যবসা করার ফন্দি এটেছেন। উনি কখনই আপনাদের স্ক্রিনসট দিবে না। বা এটা তার উদ্দেশ্যও নয়। টেকটিউনস যতই ভালো হোক। এরা নিজেদের স্বার্থে টেকটিউনসকে ব্যবহার করে সবসময়।

      এধরনের টিউনারদের পেইড টিউনার হিসেবে টেকটিউনসে নেবার আগে ব্যাকগ্রাউন্ড চেক করে নেবার অনুরোধ করছি। কারণ এরা সাধারণত টেকটিউনস এর সাথে যুক্ত করতে চায় যাতে টেকটিউনসের ক্ষতি করে কিছু করতে পারে।

        অত্যন্ত দুঃখিত, আপনার আমার সম্পর্কে এরকম ধারণা তৈরি হয়েছে। টেকটিউন্সকে কতোটা ভালবেসেছি টেকটিউন্স কর্তিপক্ষ খুব ভালো করেই জানেন। আর আমি নিজের ব্লগকে টেকটিউন্সের লাখো মাইলের আন্ডারেও ধরি না, আমি পার্সোনাল ব্লগ রান করি, যেখানে গেস্ট রাইটিং করা যায় না, সেটা কোন কমিউনিটি সাইটও না। আমি কাউকে বাগিয়ে নিয়ে যাই নি, তারা ইচ্ছা করেই আমাকে কন্ট্রিবিউট করে। তারা কেন টেকটিউন্সে লিখে না, তাদের কোন খারাপ অভিজ্ঞতা রয়েছে কিনা সেটা তাদের ব্যাক্তিগত ব্যাপার।

        টেকটিউন্সের সাথে দীর্ঘদিন যাবত রয়েছি, ব্যাট সত্যি বলতে এখন লেখার পরিবেশ খুঁজে পাই না, আপনি নিজের হোমপেজ খুঁজে একটা আর্টিকেল দেখান যেটার অনুরুপ আর্টিকেল আপনি পরবর্তীতে পড়ার জন্য আবার ফিরে আসবে! নেই ভাই, বছর খানেক ধরে এই অবস্থা আরো খারাপ। আচ্ছা চলুন আমার কথা বাদ দিলাম, কেন অন্য বাঘা টিউনার’রা আর টিউন করেন না? পরিবেশ পান না ভাই! এই সত্য আপনাকে মেনে নিতেই হবে।

        আমি খুব বেশি কিছু বলতে চাইনা, টেকটিউন্সের সাথে ছিলাম, আর এখনো কোথাও যাই নি, আর আপনি কমিউনিটি সাইটের সাথে দয়াকরে ব্যাক্তিগত ব্লগ তুলনা করবেন না। টেকটিউন্সের ধারে কাছেও যেতে পারি নি, আর টক্কর দেবারও ইচ্ছা নেই। নিজে যতোটুকু পারি কাজ করছি, কেউ কন্ট্রিবিউট করলে আমি মানা করি না। টেকটিউন্সে লেখার পরিবেশ পেলে অবশ্যই লিখবো। ব্যাট “কিছু না করে টাকা ইনকাম করুণ” “অনলাইন থেকে নিশ্চিত আয়” তারপরেও টিউনের ভেতরে ইউটিউব ভিডিও, এরকম পরিবেশে লেখা সম্ভব নয়।

        ধন্যবাদ!

          টেকটিউনসের হোম পেইজে আয় নিয়ে একটা টিউনের স্ক্রিনসট দিন তো পারলে? এটা আগে ছিল এখন এসব টিউন থাকে না। টেকটিউনসে লেখার পরিবেশ সব কিছুই আছে। কিন্তু আপনি টেকটিউনকে ব্যবহার করতে চাইলে তা তো আর হবে না।

          টেকটিউনসের আগের টিউনার বলতে সবাই ১০ বছর আগের টিউনার। ১০ বছর আগের টিউনারা টেকটিউনসে টিউন করবে না এটাই স্বাভাবিক। এটা সরকারি চাকরি না।

          নতুনরাই আসবে পুরনোদের জায়গায়। কিন্তু আপনি যেভাবে নিজের স্বার্থ বাগাচ্ছেন সেটা বেশি দুঃখজনক।

          সবজান্তা ইয়াসিন আরাফাত ভাই, অনুগ্রহ করে টেকটিউন্স হোম পেজ থেকে নিম্নের টিউন গুলো চেক করে দেখুন, এগুলো টিউন, নাকি ঘোড়ার ডিম? জাস্ট ইউটিউব ভিডিও পেস্ট করে টিউনার বিদায় নিয়েছে!! এই আপনার পরিবেশ?? এখানে লিখবো? যাই হোক, আপনার সাথে তর্ক করায় বৃথা। ভালো থাকবেন।

          ৯০ মানুষ ভিডিওটি দেখে ভুল উত্তর দেয় – Brain Games – মস্তিস্ক চর্চা
          কম্পিউটার এর স্পিড বাড়িয়ে নিন – How to make your pc/laptop run faster
          যেকোন ওয়াইফাই এর পাসওয়ার্ড দেখে নিন
          দেখে নিন কীভাবে আপনার পেওনিয়ার কার্ডটি একটিভ করবেন
          এখন থেকে ইউটিউব এর ভিডিও ডাউনলোড করুন কোনর কম সফটওয়্যার ছাড়াই
          নতুন বছরের সাথে সাথে সাজিয়ে নিন আপনার ছবিকেও

          এতো সুন্দর করে কমেন্ট রিপ্লাই করছেন, কিন্তু আফসস, আপনি নিজেই হোমপেজ ভিজিট করে দেখেন না, এগুলোকে আর্টিকেল বলেন আপনি?? তাহলে আর আপনাকে কিছু বলার নাই।

          ধন্যবাদ!

            ভাই আপনি এই বল্লেন অনলাইন আয়ের টিউন এর জন্য নাকি আপনি লেখেন না। কই পারলেন না তো একটাও দিতে? একেক সময় একেক কথা বলেন কেন?

            আর আপনি যে গুলো বলছেন লিংক দিয়ে রেখেছে, ভিডিও লিংক দিয়ে শুধু টিউন করছে আমিও মানি যে এগুলো ভালো টিউন না। কিন্তু আপনি একজন ব্লগার হয়ে এরকম এমেচোর কথা বলবেন আমি চিন্তাও করেনি।

            টেকটিউনস একটি কমিউনিটি সাইট এবং এটি সবার জন্য উন্মুক্ত যে কেউ যে কোন ধরনের টিউন এখানে করতে পারে। আপনি যখন ইউটিউব ব্যবহার করেন সব কি আপনার মনের মত কন্টেন্ট থাকে? সবই কি ভালো কন্টেন্ট? বরং ইউটিউবে বাংলা কোন ভালো কন্টেন্ট নেই বল্লেই চলে। ইউটিউবের ৩ বছর আগের কথাই ধরেন। অশ্লীল আর নিম্নমানের কন্টেন্ট ছাড়া কোন বাংলা কন্টেন্টের অস্তিতও ছিল না। এখনও অবস্থা অত ভালো নয়। আপনি ইউটিউব সার্চ দিন ফালতু কন্টেন্ট এর অভাব হবে না। কারণ এগুলো কমিউনিটি সাইট।

            ইউটিউবে যে সেলিব্রেটি দেখেন তাদের ইউটিউব মোটা অংকের সেলারি দিয়ে আগে কন্টেন্ট ক্রিয়েটর বানিয়েছে। এরপর আমরা সেটা দেখে উঠে পড়ে লেগেছি ইউটিউব সেলিব্রিটি হবার। সব হাই পেইড ইউটিউব কন্টেন্ট ক্রিয়েটর যা আজকে দেখেন সবাইকে এরা সেলারি দিয়ে আগে সেলিব্রেলি বানিয়েছে। হ্যাঁ আপনি এটা বলতে পারেন টেকটিউনস কেন এমন করে না। হ্যাঁ সেটা অন্য বিষয়। সেটা টেকটিউনসের বিষয়।

            আপনি ফেসবুকে সব কন্টেন্টই স্প্যাম ছাড়া। বরং যে কোন গ্রুপে যান, স্প্যাম দিয়ে ভরা।

            তাই এটা বলা অবান্তর যে টেকটিউনসে এসব কন্টেন্ট কেন। ভাই এটা কমিউনিটি সাইট এখানে মডারেশন কয়জনকে করবে? ১-২ হাজার জন এটা সম্ভব না।

            হ্যাঁ আপনি বলতে পারেন টেকটিউনস কন্টেন্ট ফ্লিটারিং করতে পারে বা ইউজারকে এমন অপশন দিতে পারে যাতে সে শুধু নিজের মত করে টিউন হোম পেইজে পেতে পারে সেটা অন্য বিষয়। স্প্যাম রোধে সব সোশাল সাইট গুলো এটা করে।

            কিন্তু টেকটিউনসে অমুক টিউন হয় তাই লিখবো না তমুক টিউন হয় না তাই, লেখবো না। এটা পুরোই নির্বোধের মত কথা।

            আমিও এখন টেকটিউনসে লিখতে পারি না কারণ এখন পেশাগত ব্যস্ততা নিজের পারিবারিক জীবন আগের চেয়ে অনেক বড় হয়েছে। আগে টিউন করার সময় পেতাম, এখন হয়ে উঠে না। কিন্তু তাই বলে টেকটিউনস এর মত একটা প্ল্যাটফরম যেটা নিয়ে আমাদের বাংলাদেশে গর্ব করা উচিত যেটাতে আমাদের কন্ট্রিবিশন থাকা উচিত সেখান উল্টো এর বদনাম করা বা অযৌতিক বিষয় বলে তর্ক করার কোন মানে আমি দেখি না।

            আপনি টেকটিউনসে টিউন করেন না করেন এতে আমারও কিছু যায় আসে না টেকটিউনসে এরও কিছু যায় আসার কথা না। কারণ আমার মত লক্ষ তরুণ শুধুমাত্র টেকটিউনস প্ল্যাটফর্মের জন্যই নিজেদের আবিষ্কার করেছি।

            তাই আপনার মত অকৃতজ্ঞ, ধৃষ্ট ও টেকটিউসকে ব্যবহার করে নিজের স্বার্থ হাসিল করার মানসিকত আমার কখনই গড়ে উঠবে না।

          @তাহমিদ কি ভাই আসল সত্যটা বল্লাম তাই গাঁয়ে লেগে গেলো। টেকটিউনস টিউনারদের টাকা আর তেল দিয়ে বাগিয়ে নিয়ে লেখাচ্ছেন। আর বলছেন গেস্ট ব্লগিং? মিথ্যা বলেন কেন ভাই?

    কেন নতুন ফিচার যোগ হলে আপনার সমস্যাটা কী? আপনি তো আছেন নিজের ব্যবসা নিয়ে। ফেসবুকে দেখলাম আপনি টেকটিউনসে কিছুদিন পেইড রাইটার হিসেবে কাজ করে এখন টেকটিউনস থেকে কিছু টিউনার ভাগিয়ে নিয়ে নিয়ে সাইটে লেখাচ্ছেন। তাদের টেকটিউনস সম্পর্কে উল্টাপাল্টা বোঝাচ্ছেন। মনে করেন না মানুষ কিছু বোঝে না। টেকটিউনসে কিছু দিন কাজ করেছেন এর জন্যই যাতে সেখান থেকে কপি করে নিজের সাইটের জন্য কিছু করতে পারেন। টিউনার কিছু ভাগাতে পারেন। আর করেছেনও তাই। আপনারকে নিয়ে ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপে মানুষ একটাই কথা বলছে। যে নিজের সাইটের জন্য এর আগেও অনেক টিউনার এরকম করেছে টিউনারপেইজের মত। এখন আর তাদের অস্তিত্ব নিই।

    আপনি টিউন ভালো করেন সেটা ভালো। কিন্তু নিজের আদর্শের জায়গা থেকে সরে টেকটিউনসের ক্ষতি করার মেতে উঠেছেন। নিজের স্বার্থে।

      হাসি পাইলাম! আপনার মতে বাংলা টেক ব্লগ তৈরি করা মানেই টেকটিউন্সের কপি করা! আপনি কেন আমাকে টেকটিউন্সের সাথে তুলনা করছেন? টেকটিউন্স কোথায় আর আমি কোথাই? আমি পার্সোনাল ব্লগ চলায় ভাই, দিনে হাজার দশেক ভিউ মুশকিল করে পাই, যেখানে টেকটিউন্স লাখো ভিউ পায়। কেন আমাকে তুলনা করছেন? বাংলা ব্লগ চালিয়ে কি পাপ করছি? নাকি নিজের ব্লগ বানাতে দিবেন না?

      আচ্ছা মানুষ গেস্ট ব্লগিং কেন করে জানেন তো? কি আর বলবো ভাই, আমি তো আপনার মনে ঢুকে আপনাকে ভালোবাসা জাগিয়ে আসতে পারবো না!

        ভাই এতো ভালো সাজার দরকার নাই। আপনার সাইটে যাদের দিয়ে এখন লেখাচ্ছেন এরাও টেকটিউনসে পেইড টিউনার হিসেবে একই টিমে ছিল। আপনি যাস্ট নিজের সাইটে লেখাচ্ছেন তাও টাকার বিনিময়ে, সে খবর সবারই জানা।

        আপনি নিজের সাইট চালান তাতে সমস্যা নেই। কিন্তু আপনি হিপোক্রেসি করে টেকটিউনসের পেইড টিমে ঢুকে নিজের স্বার্থ বাগিয়েছেন আরকি।

        টেকটিউনস পেইড টিউনার হিসেবে এর আগেও অনেক টিউনার কাজ করেছেন। কিন্তু আপনার মত হিপোক্রেসি কেউ করেনি।

        আর গেস্ট ব্লগিং আমাকে শিখায়েন না ভাই। যারা আপনার সাইটে লেখে এরা আগে পেইড টিউনার ছিল টেকটিউনসে এখন আপনি পেইড টিউনার হিসেবে তাদের লেখাচ্ছেন এই যা।

        টেকটিউনসে তাদের না লেখার কারণ কোন খারাপ অভিজ্ঞতা তটা কিছু না জাস্ট আপনি এদেরকে একটু তেল দিয়ে নিজের সাইটে লেখাচ্ছেন।

          তাহলে আপনি তো ভাই অন্তরজামি, আপনাকে আর কি দিয়ে বুঝাবো। আপনি মেনেই নিয়েছেন আমি টিউনার বাগিয়েছি, তো সেই ধারণাই পোষণ করে রাখুন, সমস্যা নেই। আপনার যা ইচ্ছা রায় বানাতে পারেন, ধন্যবাদ!

            এত সাধু কেন সাজতেছেন সেটাই বুঝতেছি না। আপনার কুকর্মের কথা বেশ কয়েকটি গ্রুপে থেকে আমরা জানা হয়ে গিয়েছে।

প্রিয় টেকটিউন্স,
কিছু স্ক্রীনশট প্রদান করলাম একটু দেখে নেবেন,
https://prnt.sc/hswm06
http://prntscr.com/hswmw4
http://prntscr.com/hswotg

আমি ক্রোমে এই সমস্যা গুলো পাচ্ছি, মোবাইলে ঠিক আছে, ব্যাট মাঝে মাঝে ডিজাইন ব্রেক হয়ে যায়। আর্টিকেলের ভেতরে মানে সিঙ্গেল আর্টিকেলে পেজে এক আর্টিকেল কখনো কখনো স্ক্রোল করলে দুই বার আসে, এরকম আরো কিছু সমস্যা রয়েছে যেগুলো মনে পড়ছে না, ব্যাট খুঁজে পেলে জানিয়ে দেবো। হোমপেজেই সাইজটা অস্বাভাবিক বড়, ৫ মেগাবাইট+ অনুগ্রহ করে এগুলোর দিকে একটু নজর রাখবেন, ধন্যবাদ!

    ১. এই লেআউট ব্রেক কি সব সময়ই হচ্ছে?
    ২. আপনি কি ক্রমের লেটেস্ট ভার্সন ব্যবহার করছেন। ভার্সন নাম্বরটি জানান।
    ৩. আপনার মনিটরের স্ক্রিন সাইজটি জানান।
    ৪. আপনি লেআউট ব্রেকের ফুল পেইজ স্ক্রিনসট আমাদের দিতে পারবেন? যত বেশি পেইজের সম্ভব? হোম পেইজ, সিংগেল পেইজ টিউনার পাতা।

    এ বিষয় গুলো আমাদের ইঞ্জিনিয়ার Ops টিমকে বাগ ফিক্স করতে সাহায্য করবে।

      ১) কখনো ব্রেক করে আবার কখনো করে না, বেশিরভাগ সময় হোমপেজ যা ইচ্ছা তা ডিজাইন হয়ে থাকে।
      ২) হ্যাঁ, আপনি লেটেস্ট ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করছি। ভার্সন বর্ণনাঃ Version 63.0.3239.108 (Official Build) (64-bit)
      ৩) আমার ল্যাপটপ স্ক্রীন রেজুলেসন ১৩৬৬ x ৭৬৮ (বেশিরভাগ ল্যাপটপ/এইচডি মনিটরের এটাই রেজুলেসন), আমি ১৯২০ x ১০৮০ রেজুলেসন মনিটর থেকেও একই সমস্যা পেয়েছি।
      ৪) https://prnt.sc/hsxqjv – সিঙ্গেল আর্টিকেলের এই ফুল পেজটি দেখুন, এক টিউন দুইবার আসে।

      আরো সমস্যা খুঁজে পেলে জানাবো।

        অনেক ধন্যবাদ আপনার মতামতের জন্য। টেকটিউনস ইঞ্জিনিয়ার Ops টিম এর কাছে এ বিষয় গুলো পাঠানো হয়েছে।

স্ক্রীনশট লিঙ্ক দেওয়ার ফলে কমেন্ট মডারেশনে চলে গেছে, একটু দেখে নেবেন। ধন্যবাদ।

    ধন্যবাদ টিউমেন্টটি এপ্রুভ করা হয়েছে।

বুঝলাম না, টেকটিউন্সের চেইন টিউন গেল কই। আমার চারটা পর্ব চেইন টিউনে অন্তর্ভুক্ত করার পরে আর কোন পর্বই চেইন করা হচ্ছে না কেন?

    টেকটিউনস ট্রিনিটি ভার্সনে চেইন টিউনকে আরও উন্নত করা হচ্ছে। কিছু সময়ের প্রয়োজন। চেইন টিউন খুব শীঘ্রই ফিরে আসছে।

এটা সত্য যে, টেকটিউনসে এখন আর আগের মত পরিবেশ নেই।
আগে নিয়মিত ভিজিট করতাম,
মনের মত টিউনও পেতাম, বাট এখন আর সেই আগের মত টিউন পাইনা, সব সস্তা টিউন পাই,

তাছাড়া টেকটিউনসের মোবাইল ভার্শন একদমই বাজে, অপেরা মিনি দিয়ে ভিজিট করলে
ঠিকমত কোন টিউন পড়া যায়, পুরো সাইট ভালো করে দেখাও যায়না,
আর ফুটারেতো সব লেখা হিবিজিবি লেগে যায়,
সব মিলিয়ে এখন আর টেকটিউনসে ভিজিট করতে একদমই ভালো লাগেনা।

ঠিক এই সময়ে যদি টেকটিউনসের অধঃপতন দেখা লাগে, তাহলে কিইবা বলার আছে।

আশা করি টেকটিউনস আগের স্বরূপে ফিরবে শীঘ্রই,
আমরাও পাবো সেরা মানের টিউন,
পাশাপাশি আমরা যারা নতুন আছি, তারাও লিখতে উৎসাহী হবো।

“জোসস” বাটন এর পাশাপাশি একটি “পছন্দ হয়নি” “বাজে টিউন” এজাতীয় বাটন রাখা যেতে পারে। শুধুমাত্র ভাল বলা হলে সবাই গন হারে টিউন করবে যেটা একেবারে কাম্য নয়। আমি মনে করি ভাল টিউনারদের উৎসাহিত করার পাশাপাশি, মন্দ টিউনারদের ও অপছন্দের তালিকায় রাখা উচিত। ধন্যবাদ।

অনেকেই ৪-৫ লাইন লিখে নিজের ওয়েব সাইট এর বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন। এগুলো এড়ানোর জন্য টেকটিউন কে কঠোর হতে হবে। জোস এর পাশাপাশি স্প্যাম/বিজ্ঞাপন/নেগেটিভ একটি বাটন দেয়া যেতে পারেন। যেটি ক্লিক করলে সাথে সাথে অ্যাডমিন প্যানেলের কাছে সেই পোস্ট চলে যাবে এবং প্যানেল সেই পোস্ট স্প্যাম বা নীতি বহির্ভূত হলে ডিলিট করতে পারবে। এতে করে টেকটিউনএর সবাই এক হিসেবে ভলান্টিয়ারের কাজ করবে অপরদিকে অ্যাডমিন প্যানেলের অনেক সময় বাঁচবে। আর সবচেয়ে বড় কথা টেকটিউন ফিরে পাবে তার আগের হারানো রুপ। 🙂

ডিজাইনের তো ভয়াবহ অবস্থা! আমি জানিনা আপনাদের ডেভলপার টিম আসলে কি করছে। মাসের পর মাস যদি এইভাবে ফালটু লেআউট আর বস্তা ভর্তি বাগ নিয়ে সাইট চালাতে হয় তাহলে আর কি বলব :/
ভালো ডেভলপার + ডিজাইনার দিয়ে সাইট করান। এখন যারা কাজ করছে তাদের কাজের কোয়ালিটি ভয়াবহ! না আছে ডিজাইন না ভালো মার্কআপ!

    প্রিয় টিউনার,

    আপনার মূল্যবান মতমতের জন্য অনেক ধন্যবাদ। টেকটিউনস ট্রিনিটি বর্তমানে আলফা ২ ভার্সনে রয়েছে। এখনও টেকটিউনস ট্রিনিটি ফুল ভার্সনে আসেনি। টেকটিউনস ট্রিনিটি আলাফা ১, আলফা ২, আলফা ৩, আলফা ৪, আলফা ৫ আলফা ৬ এর পর বেটা ১-৬ ভার্সনের পর ফুল ভার্সন রিলিজ হবে। তাই এর বেশ বেশ কিছু বিষয় প্রক্রিয়াধীন। টেকটিউনস এর নতুন ট্রিনিটি ভার্সনে যোগ হয়েছে নতুন অনেক সৌশল ফিচার। নুতন ফিচার গুলো অপটিমাইজেশন এর কাজ ও চলছে। যা নিয়ে টেকটিউনস ইঞ্জিনিয়ারিং Ops টিম নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছে। সাইটের মাইনর ও বেসিক সমস্যা গুলো ঠিক হয়ে যাবে দ্রুত।

    আপনি ডিজাইন ব্রেকের একটি স্ক্রিনসট আমাদের দিন যার ফলে টেকটিউনস ইঞ্জিনিয়ারিং Ops টিম সে বিষয় গুলো ঠিক করতে পারে। স্ক্রিনসটটি https://snag.gy/ এর মাধ্যমে টিউমেন্ট এ দিন।

    নিয়মিত টিউন করুন টেকটিউনসে।

সাইটে প্রচুর বাগ…. account খোলার সময় রিদমিক কিবোর্ড দিয়ে বাংলাতে নাম লিখলে account খোলা যায় না। এর পরে নাম চেইনজ করতে যেয়ে হলো না। প্রফাইল পিক পুরো আসে না। কভার ফটো দিলাম আসলো না। মুসিবতে পরলাম।।

ager techtune r nai bhai. Bhai age khob visit kortam, bolte gele onliner hatekhori techtunes thake, tai kost lage dekhle bhai present condition, Ultra update korte giye olto hoiche result,