Quantcast
ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

টেলিকমিউনিকেশন বা যোগাযোগ প্রযুক্তির খুঁটিনাটি [পর্ব-০২] :: মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক যেভাবে কাজ করে

টেলিকমিউনিকেশন প্রযুক্তির খুঁটিনাটি

আজকে আমরা দেখব মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক কিভাবে কাজ করে। তার আগে বলে রাখি, মোবাইল ফোন এর বিস্তারিত কার্যপদ্ধতি একটু বিশাল। তাই আমি চেষ্টা করব ধীরে ধীরে গভীরে যেতে। আপনারা আমার এই ধারাবাহিকতায় পাশে থাকলে আশাকরি উপকৃত হবেন।

ADs by Techtunes tAds

যারা পর্বঃ ১ দেখতে চান, নিচের লিংক এ যানঃ

আমাদের দেশে নিম্নোক্ত দুই ধরনের মোবাইল অপারেটর আছেঃ

  • ১। GSM (Global System for Mobile Communication) (যেমনঃ টেলিটক, বংলালিংক, জিপি, রবি, এয়ারটেল)
  • ২। CDMA (Code Division Multiple Access) (সিটিসেল একমাত্র CDMA অ্পারেটর)

এই দুই প্রযুক্তিরই সুবিধা/অসুবিধা আছে যার আলোচনায় এখন যাচ্ছিনা। আমাদের চারপাশে প্রচুর মোবাইল এর টাওয়ার দেখি। কিন্তু একবারও কি ভেবে দেখেছেন BTV কিংবা বাংলাদেশ বেতার এর এতো টাওয়ার দরকার হয় না কেন? অথচ সারা দেশেই তো BTV দেখা যায়, রেডিও শোনা যায়।

তার কারণ, প্রথমত, BTV/Radio এর ক্ষেত্রে প্রতি Station থেকে কেবল একটা মাত্র Frequency/কম্পাংকেই বাতাসে Signal পাঠাচ্ছে এবং সবাই সেই একই জিনিস দেখছে/শুনছে। কিন্তু মোবাইল এর ক্ষেত্রে যদি একই Frequency তে সবার কথা আদান প্রদান হতো তাহলে কি ঘটত??? FM Radio এর RJ দের মত সবার কথা সবাই শুনতে পেত। যদিও প্রচুর Noise হতো যা কিনা সবার একসাথে চেঁচামেচির মত। আর এই সমস্যা দূর করার জন্য প্রথমত, অনেকগুলো Frequency ব্যবহার করা হয় এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে ব্যাপার তা হচ্ছে এই Frequency গুলোর পনরাবৃত্তি করে ব্যবহার। নিচের চিত্র থেকে কছুটা ধারনা পাবেন। মানে হচ্ছে, আপনার কথা যে Frequency তে পাঠানো হচ্ছে সেই Frequency টা আপনার টাওয়ার বা BTS এর চারপাশের BTS গুলো ছাড়া পরবর্তি কোনো BTS এ আবারো ব্যবহার করা হচ্ছে।

মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক এর আর্কিটেকচারটা শুরুতে একটু দেখে নেয়া যাকঃ

এর চাইতে একটু সহজ করে যদি দেখি তাহলে, আর্কিটেকচারটা নিচের মত দেখাবেঃ

মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক এর আর্কিটেকচার

চলুন দেখে নিই, মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক এর প্রধান প্রধান অংশগুলো কী কী।

যে কোন মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক প্রধানত নিচের চারটি অংশের সমন্বয়ে গঠিতঃ

  • ১। Radio Access Network (RAN) --> মোবাইল ফোন সরাসরি এই নেটওয়ার্ক এর সাথে যোগাযোগ করে
  • ২। Switching Network বা Core Network --> যাকে কল করছেন তার কাছে সুইচিং করে দেয় বা সংযোগ স্থাপন করে দেয়
  • ৩। Intelligent Network (IN) এবং --> মোবাইল ইউজার এর সব তথ্য জমা রাখে এবং Verify করে
  • ৪। Transmission Network --> তথ্য আদান প্রদান এর মাধ্যম হিসেবে কাজ করে

১। Radio Access Network (RAN):

আমরা যখন কাউকে কল করি তখন তা আমাদের মোবাইল ফোন থেকে বাতাসের মধ্য দিয়ে সরাসরি নিকটস্থ কোন একটা BTS/টাওয়ার এ যায়। এই টাওয়ার বা BTS গুলোকে কন্ট্রোল করে BSC (Base Station Controller). এক একটা BSC প্রায় ১৫০-২০০ BTS কে কন্ট্রোল করতে পারে। আর এই BTS এবং BSC গুলো মিলেই গড়ে উঠে গোটা মোবাইল নেটওয়ার্ক এর সবচেয়ে বড় নেটওয়ার্ক – Radio Access Network (RAN).

২। Switching Network বা Core Network:

যারা পূর্বের T&T (বর্তমান BTCL) এর এক্সচেঞ্জ (Telephone Exchange) এর সাথে পরিচিত আছেন, তারা জানেন যে, T&T তে কল করলে প্রথমে একজন অপারেটর কল ধরত এবং আপনার কাছে এক্সটেনশন নাম্বার জিজ্ঞেস করত। এবং সে আপনার কাংখিত এক্সটেনশন নাম্বার এ সংযোগ দিয়ে দিত। অর্থাৎ সুইচিংটা সে করে দিত।
এখন একটু ভাবুন তো, প্রতি দিন মোবাইল টু মোবাইল এ যে পরিমান কল হয়, তা যদি অপারেটর দিয়ে এক্সচেঞ্জ করতে হত, তাহলে কত কোটি অপারেটর লাগত???
মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক এ এই এক্সচেঞ্জ এর কাজটি করে দেয় Mobile Switching Center (MSC).

৩। Intelligent Network (IN):

এবার আসি Intelligent Network (IN) এ। আমাদের দুই ধরনের কানেকশন পাওয়া যায়

ADs by Techtunes tAds
  • ক) প্রি-পেইড
  • খ) পোস্ট-পেইড

যারা প্রি-পেইড ইউজার তাদের মোবাইল এ balance/টাকা আছে কিনা, সে বৈধ ইউজার কিনা, সে যে Service টা ব্যবহার করতে চাচ্ছে তার জন্য Registration করা আছে কিনা এর সব জন্য সংরক্ষিত থাকে IN এ। আপনার কল সংযোগ দেয়ার আগেই এই সমস্ত খোঁজ খবর নিয়েই আপনাকে কল করার অনুমতি দেয়া হয়।

৪। Transmission Network:

Transmit করা মানে হচ্ছে কোন কিছু এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পাঠানো। মোবাইল ফোন আমাদের কথা(Voice) অথবা Data (SMS/Internet/Multimedia Data) নিয়ে কাজ করে। আর আমাদের এই কথা (Voice) অথবা Data (SMS/Internet/Multimedia Data) স্থানান্তর অর্থাৎ যাকে কল করছেন তার কাছে পৌছে দেয়ার জন্য মাধ্যম হিসেবে কাজ করে Transmission Network ।

এই Transmission Network এ মাধ্যম হিসেবে Micro Wave Link (মোবাইল এর টাওয়ার এ যে গোলাকার এন্টেনা দেখা যায় তাই হচ্ছে Micro Wave এন্টেনা) কিংবা Optical Fiber (সরু কাচ তন্ত) ব্যবহার করা হয়।

ধন্যবাদ সবাইকে। ভাল থাকবেন আর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সাথেই থাকবেন।

"যে অন্যের অর্জনকে স্বীকৃতি দিল, সে যেন নিজের অর্জনের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেল।" একটা অনুরোধ, এই টিউন গুলো করার উদ্দেশ্য হচছে আমি যা জানি, তা অন্যদের সাথে শেয়ার করা। দয়া করে কেউ টিউন কপি করবেন না। নিজের মেধাকে কাজে লাগান, আপনি আরো অনেক ভাল লিখতে পারবেন আশাকরি।

আমার টিউন গুলো ভালো লাগলে অবশ্যই আমার টিউন বেশি বেশি জোসস করুন

আমার টিউন গুলো আপনার 'টিউন স্ক্রিন' নিয়মিত পেতে অবশ্যই আমাকে ফলো করুন। আমার টিউন গুলো সবার কাছে ছড়িতে দিতে অবশ্যই আমার টিউন গুলো বিভিন্ন সৌশল মিডিয়াতে বেশি বেশি শেয়ার করুন

আমার টিউন সম্পর্কে আপনার যে কোন মতামত, পরামর্শ ও আলোচনা করতে অবশ্যই আমার টিউনে টিউমেন্ট করুন

আমার সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য 'টেকটিউনস ম্যাসেঞ্জারে' আমাকে ম্যাসেজ করুন। আমার সকল টিউন পেতে ভিজিট করুন আমার 'টিউনার পেইজ'

ADs by Techtunes tAds

আমি Arafat। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 12 টি টিউন ও 34 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

চমৎকার! A+ Tune!

    @নিয়াজ মেহেদী খান: ধন্যবাদ।

দারুন

Tune tir jonno wait kortesilam. Thanks dear. 🙂

টিউন টি পড়ে খুবই ভাল লাগল। আরো কিছু শেখার অনুপ্রেরণা জাগালো। আশা করি হেল্প করবেন এরকম টিউন পোস্ট করে।

kiso bojlam r kiso na… but valo laglo….

    ভাই, কিছু অংশ না বুঝাই স্বাভাবিক। কোন জিনিসটা বুঝেননি বলেন, আমি দেখি বুঝাতে পারি কিনা।

khob darun laglo

সবাইকে ধন্যবাদ সুন্দর সুন্দর কমেন্ট করার জন্য। আরো অনুপ্রাণিত হলাম। আপনাদের ভাল লাগলে আমি চালিয়ে যাব বলে আশাকরি।

ধন্যবাদ ভাই আপনার tune এর জন্য অপেক্ষাই ছিলাম।

দারুন টিউন

খুব ভাল হয়েছে।

hmm. thanks.

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি টেকটিউনস চেইন টিউন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অভিনন্দন আপনাকে!

টেকটিউনসে চেইন টিউন কীভাবে প্রক্রিয়া হয় তা জানতে টেকটিউনস সজিপ্র এর http://www.techtunes.com.bd/faq “চেইন টিউন” অংশ দেখুন।

নিয়মিত চেইন টিউন করুন। এখন থেকে আপনার নতুন করা চেইন টিউন গুলো টেকটিউনস থেকে চেইন এ যুক্ত করা হবে। চেইন টিউনে যুক্ত হবার ফলে চেইনের প্রতিটি পর্ব একসাথে থাকবে।

চেইনে নতুন পর্ব যুক্ত হলে তা টেকটিউনসের প্রথম পাতায় দেখা যাবে এবং “সকল চেইন টিউনস” http://www.techtunes.com.bd/chain-tunes/ পাতায় চেইন টিউনটি যুক্ত হবে।

নিয়মিত চেইন টিউন করে নতুন নতুন টিউন আপনার চেইনে যুক্ত করুন এবং অসম্পূর্ণ না রেখে আপনার চেইন টিউনে নিয়মিত পূর্ণাঙ্গ রূপ দিন।

মেতে থাকুন প্রযুক্তির সুরে আর নিয়মিত করুন চেইন টিউন!

টেকটিউনস কে অনেক অনেক ধন্যবাদ আমার ধারাবাহিকটিকে চেইন টিউন হিসেবে নির্বাচিত করার জন্য।

আশাকরি সবার অনুপ্রেরণা পেলে আরো সুন্দর সুন্দর টিউন নিয়ে উপস্থিত হতে পারব।

ধন্যবাদ আপনাকে । সুন্দর একটি টিউন উপহার দেবার জন্য।