Quantcast

ডিপ ওয়েব কি? কেন? কিভাবে? জানতে চাইলে পড়ে ফেলুন

0 0 0 0 0
0 টিউমেন্টস 2,570 দেখা প্রিয়
টিউটোরিয়াল

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

সতর্কতাঃ

আপনি বা আপনারা এই টিউন দ্বারা কোনো প্রকার ক্ষতির সম্মুখীন হলে আমি বা টেকটিউনস কোনো ভাবে দায়ী থাকবে না। এই ব্লগে সর্বপ্রথম প্রকাশিত হতে যাচ্ছে।
তো কথা বাড়াতে চাই না। আগের টিউনে বিস্তারিত আলোচনা করতে পারি নাই। সে জন্য আন্তরিক ভাবে দুঃখিত।

বিশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন মাহিন চৌধুরি রাজ ভাই।

ডার্ক ওয়েব হল ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব উপাদান যা ডার্ক নেটে বিদ্যমান। আচ্ছাদিত নেটওয়ার্ক, যা পাবলিক ইন্টারনেট ব্যবহার করে কিন্তু এতে প্রবেশ করতে নির্দিষ্ট সফটওয়্যার, কনফিগারেশন বা অনুমোদনের প্রয়োজন হয়। ডার্ক ওয়েব ডিপ ওয়েবের একটি অংশ মাত্র, সে অংশ সাধারন সার্চ ইঞ্জিন ইন্ডেক্স করতে পারে না। যদিও কখনও কখনও "ডিপ ওয়েব" শব্দটি ভুল করে ডার্ক ওয়েবকে বুঝাতে ব্যবহার করা হয়।
ডার্ক ওয়েবকে গঠনকারী ডার্কনেটে থাকে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ফ্রেন্ড-টু-ফ্রেন্ড, পিয়ার-টু-পিয়ার নেটওয়ার্ক, সেইসাথে থাকে ফ্রিনেট, আইটুপি ও টরের মতো বড় বড় নেটওয়ার্ক, এবং এসব নেটওয়ার্ক পরিচালিত হয় পাবলিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদের দ্বারা। ডার্ক ওয়েব ব্যবহারকারীরা তাদের এনক্রিপশনবিহীন প্রকৃতির কারনে সাধারন ওয়েবে ক্লিয়ারনেট হিসাবে পরিচিত। টর নেটওয়ার্ক অনিয়ন ল্যান্ড হিসাবেও পরিচিত, এর কারন ডিপ ওয়েবের একটি উচ্চ পর্যায়ের ডোমেইন সাফিক্স ডট অনিয়ন এবং নিজেকে আড়াল করে ইন্টারনেট ব্যবহার করার পদ্ধতি অনিয়ন রাউটিং।
বিস্তারিত উইকিপিডিয়া থেকে পড়ে আসুন।

Deep Web বা Dark Web, Hidden Web যাই বলেব এইটা একটা মিস্ট্রি।
কি ? অন্য রকম মনে হলো তাই না?
না না থাক হতাশ হওয়ার দরকার নাই। শোনেন যা রটে তার কিছু তো ঘটে!
এইবার একটু আরাম করে বসেন। পরে আবার উত্তেজিত হতে পারেন !
যা বলছিলাম, ডার্ক ওয়েব কিন্তু সত্যি আছে।
বিশ্বাস হয় না?
ঠিক আছে বিশ্বাস করার দরকার নাই;যা লিখি সেটা পড়ে গেলেই বুঝবেন।
ডার্ক ওয়েব প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৯৯৪ সালে হিডেন ওয়েব নামে। তারপর ২০০১ সালে এর নাম হয় ডিপ ওয়েব। তবে ডার্ক ওয়েব নামেই বেশি পরিচিত। ভেতরে অনেক অন্ধকার কিনা!
আমরা যে ওয়েব ব্যবহার করি তা সমগ্র ওয়েবের মাত্র ৩৫%। আর বাকিটা? সেটাই ডার্ক ওয়েবে।
ছবিটা দেখে লোভ লেগে যেতে পারে কিন্তু খুব সাবধান। এই রকম অনেক ওয়েব সাইট পাবেন সেখানে।

আপনি সাগরে বরফ ভাসতে দেখেছেন? বরফের অল্পই কিন্তু পানির উপর ভাসে। সবটুকুই পানির নিচে রয়ে যায়। ডার্ক ওয়েব এমনই। এর কোনো কুল-কিনারা খুঁজে পাবেন না। প্রশ্ন করতে পারেন কি আছে এতে?
আমি প্রশ্ন করব কি নেই এখানে?
আপনি যা চাইবেন তার সব পাবেন এখানে। তবে ভালোর চাইতে খারাপটাই বেশি। যেকোন ওয়ার্ল্ড ক্লাস মুভি রিলিজ হবার সাথে সাথেই পাবেন এখানে; আগেও পেতে পারেন। চুরি-ডাকাতি, খুন-খারাবি সব কিছুই পাবেন। চাইলে ভাড়ায় খুনিও পাবেন; যদি লাগে আরকি। যেসব কর্মকান্ড আপনি কল্পনাতেও আনতে পারেন না সেগুলোই ধুমছে চলছে সেখানে। পাইরেসি, চাইল্ড পর্নোগ্রাফি, অস্ত্র ব্যবসা, মাদক,prostitute (দুঃখিত), হ্যাকিং, চোরাই মাল বিক্রি সহ আরো হাজারো কর্মকান্ড চলে সেখানে প্রতিনিয়ত।
শুনে অবাক হবেন নতুন অ্যাপল সিক্স এজ প্লাস সেখানে বিক্রি হইয়েছিলো ২০% ডিসকাউন্টে।
আপনি যেসব ওয়ার্ল্ড ক্লাস গোপন খবর আজ শুনে এলাকা মাতিয়ে তুলছেন বছর দুয়েক আগেই সেগুলো পচা বাসি হয়ে গেছে ডিপ ওয়েবে।
বিশ্ববিখ্যাত Wikileaks আমাদের সামনে প্রকাশ হওয়ার আগে ডার্ক ওয়েবে ছিল আরো অনেক দিন। আরো নাম না জানা অনেক কিছুই আছে ডার্ক ওয়েবে আপনি বা আমি যার টিকিটিরও খোঁজ জানি না।
এখন ডার্ক ওয়েবে যেতে গুগলিং করছেন?
আরে থামেন ভাই। লাভ নাই।
এই সাইটটাও গুগল মামা গত দুইদিন আগে চিনত না জানত না। অথচ প্রায় চার বছর আগেই সাইটটা তৈরি করা হয়। গতকাল গুগল মামুর সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার পর সে এখন সাইটটাকে কিছুটা চেনে। তাই বলি খালি গুগলে গুতাইয়েন না। পৃথিবীতে অনেক কিছুই আছে যার নাম পর্যন্ত গুগল মামু জানে না।
ডার্ক ওয়েবে যাওয়া এতো সহজ না। কিন্তু কঠিনও না। আগে নিজের উদ্দেশ্য ঠিক করেন। তারপর এখানে আসবেন।
ডার্ক ওয়েব এক্সেস করবো কিভাবে?
ডার্ক ওয়েবের জন্য ওনিওন নামে একটা নেটওয়ার্ক আছে। যা ডার্ক ওয়েবে এক্সেস করার গেটওয়ে হিসেবে কাজ করে। এছাড়াও আরো কয়েকটা নেটওয়ার্ক আছে; তবে এটাই বেশি ব্যাবহৃত। এর url শেষ হয় .onion দিয়ে। আর এ নেটওয়ার্কে প্রবেশের একমাত্র উপায় Tor Browser যা আপনি এখান থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

পেজটিতে আপনার অপারেটিং সিস্টেম অনুযায়ী ডাউনলোড লিঙ্ক পাবেন। ডাউনলোডের পর ইন্সটল করে সফটওয়্যারটি ওপেন করুন। এবার আপনার টর ব্রাউজার নিজে নিজেই কনফিগার করে নেবে এবং কংগ্রেটস জানাবে। টর বুঝিয়ে দেবে আপনি ডুর্কে প্রবেশ এর জন্য ১০০ ভাগ প্রস্তুত। এবার পছন্দমত একটা ডার্ক ওয়েবের সাইটের লিঙ্ক দিয়ে প্রবেশ করুন।
জনপ্রিয় সোশাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুকও কিন্তু ডার্ক ওয়েবে পাবেন। লিঙ্ক: https://facebokcorewwi.onion/

এবার এন্ড্রয়েড ইউজারদের পালাঃ

আপনি যদি এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন ইউজ করেন তাহলে প্রথমে এখান থেকে Orbot ডাউনলোড করে সেটাপ করে নিন। একটা ব্রাউজার ডাউনলোড করতে বলবে আপনাকে। সেটা ডাউনলোড করে ইন্সটল করুন। এই ব্রাউজারটার সাহায্যেই আপনি আপনার এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন থেকে ডার্ক ওয়েব এক্সেস করতে পারবেন।
এই নেন কালো দুনিয়ার সার্চইঞ্জিন
ডিপ সার্চ–> http://xycpusearchon2mc.onion/
টর্চ —> http://xmh57jrzrnw6insl.onion/
তবে সাবধান আপনার আসল পরিচয় ভুল করেও প্রকাশ বা ব্যবহার করবেন না। এতে আপনার বিরুদ্ধে আইন-প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো কঠোর ব্যবস্থা নিতে পারে।
আর অবশ্যই ডার্ক ওয়েবে প্রবেশের আগে আপনার আইপি এড্রেস হাইড অথবা চেঞ্জ করে নেবেন। সম্ভব হলে ম্যাক এড্রেসটাও চেঞ্জ করে নেবেন।
টেনশন নেয়ার দরকার নাই টর এই গুলা ইন্সটল করার সাথে সাথেই করে দিয়েছে। অযথা
ভয় না পেলেও চলবে।

এবার দেখুন ভিডিওতে কি কি থাকছেঃ

শেষ কিছু কথা।
অনেকেই এই ডীপ ওয়েব নিয়ে টিউন করেছেন অনেকের টিউনের সাথেই বেশ কিছু কথা মিলে যেতে পারে। যদি মিলে থাকে তাহলে আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখিত।

এখন বিদায় নিচ্ছি। দেখা হবে পরের টিউনে। ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন, মেতে থাকুন প্রযিক্তির সুরে। আমি মেহেদী। খোদা হাফিয। যদি কোনো সমস্যা হয়ে থাকে আমাকে মেসেজ করতে পারেন।
কষ্ট করে পড়ার জন্য ধন্যবাদ মেহেদী হাসানমামুন

প্লাস করুন আমাকে
ফলো করুন আমাকে
ডীপ ওয়েব সম্পর্কে জানতে সাবস্ক্রাইব করুন এখানে ক্লিক করুন
ট্রিক্স বিষয়ক টিপস পেতে এখানে ক্লিক করুন

কিছু জানা থাকলে জানাও, না জানলে জেনে নাও। সকল টিপস এবং টিউটোরিয়াল ইউটিউবে পেতে সার্চ করুন "Tech Tube Infinite" টেকি কিছুই পাবেন।

টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

You must be logged in to post a Tumment.