Quantcast
ADs by Techtunes tAds
ADs by Techtunes tAds

ইউটিউব MCN এ জয়েন করা উচিত বা উচিত না কেন?

Photo Credit: Tymon Oziemblewski

ইউটিউব এর মাধ্যমে গুগল এডসেন্স থেকে আয়

গুগল এডসেন্স থেকে ইউটিউবের মাধ্যমে আয় করা টাকা নিতে হলে ২ মাস অপেক্ষা করতে হয়। যে মাসে আয় করবেন সেই মাসের টাকা পরের মাসে একাউন্টে জমা হবে এবং তাঁর পরের মাসে টাকা ব্যংকের মাধ্যমে পাবেন যদি মোট আয় ১০০ ডলারের বেশী হয়। এক্ষেত্রে একটা বিকল্প কাজ আপনি করতে পারেন- নিজের এডসেন্স ব্যবহারের পরিবর্তে একটা নেটওয়ার্কের এডসেন্স ব্যবহার করতে পারেন। অনেক বড় বড় ইউটিউবাররা এইসব নেটওয়ার্কের এডসেন্স ব্যবহার করেন। এটাকে বলা হয় MCN বা, মাল্টি চ্যানেল নেটওয়ার্ক। এর সুবিধা এবং অসুবিধা দুই ই আছে।

ADs by Techtunes tAds

মাল্টি চ্যানেল নেটওয়ার্কের অসুবিধা

হ্যাঁ, কিছু অসুবিধা তো আছেই। যেমনঃ
১. এরা আপনার আয় করা টাকা থেকে ২০% থেকে ৩৫% নিয়ে নেবে। আর আপনাকে দেবে ৬৫%-৮০%। আর নিজের এডসেন্স এর ক্ষেত্রে পুরোটাই পাবেন। লস হল শতকরা ৩৫ ভাগ।
২. নিজের এডসেন্সের এনালাইটিকস থেকে Earnings দেখতে পাবেন না। তবে, Youtube থেকে Revenue এবং মাল্টি চ্যানেল নেটওয়ার্ক এর ড্যাশবোর্ড থেকে Earnings দেখতে পাবেন। ফাকিবাজির সুযোগ অবশ্য নেই। ৬৫% টাকা পেলেও, এই কম পারসেন্টেজ আপনাকে আগের চেয়ে বেশী আয়ের সুযোগ করে দিতে পারে। সুবিধাগুলো পড়ুন-

MCN এ জয়েন করলে কি সুবিধা বেশী পাওয়া যাবে?

এতেও ২ মাস পরে টাকা পাবেন। তবে ১০০ ডলার নয়, যদি ১ ডলারও আয় করেন তাও পাবেন Paypal বা, Payza এর মাধ্যমে। আর Payoneer এর মাধ্যমেও টাকা পাবেন যদি আয় ১৫-২০ ডলার হয়(Yoola তে ১৫ এবং Scalelab এ ২০)। অন্যগুলোতেও কাছাকাছি। আরো কিছু সুবিধা আছে যে কারণে MCN এ আপনার জয়েন করা উচিত-

১. এখানে জয়েন করলে এড বেশী দেখাবে এবং CPM(অর্থাৎ প্রতি ১০০০ ভিউতে আগের চেয়ে বেশী টাকা পেতে পারেন) বেশী পাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। কারণ, এখানে দুইটি এড বেশী দেখায়। একটি হচ্ছে- non skipable video ad আরেকটি non skipable long video ad. আমার মতে দ্বিতীয়টা না দেখানোই ভাল। কারণ এটাতে এড অনেক সময় নিয়ে দেখাবে যাতে ভিজিটর কমে যেতে পারে। আপনি নিজেই বেছে নিতে পারবেন আপনার ভিডিওতে কি এড দেখাবে।

২. Content ID পাবেন। এই আইডি থাকলে ইউটিউবে কেউ যদি আপনার ভিডিও চুরি করে আপলোড করে তাঁর সব টাকা আপনি পাবেন। এমনিতেও Content ID পাওয়া যায় সেক্ষেত্রে অনেক আইনি কাগজপত্র থাকা লাগে। MCN জয়েন করলে কিছুই লাগবে না।

৩. অনেক ওয়েবসাইটের Premium সুবিধা পাবেন। যেমনঃ Audiomicro, Epoxy, Epidemic Sound, Outro Maker. এগুলো থেকে Social একাউন্ট যেমন Facebook, Twitter থেকে অনেক ভিউ পাবেন। আর, অনেক মিউজিক ফ্রিতে পাবেন ব্যবহার করার জন্য। ফ্রিতে ভিডিও Outro বানাতে পারবেন। আশা করি আপনার কাছ থেকে ৩৫% নিয়ে নেওয়ার পরেও আপনার কেন লাভ হবে সেটা বুঝাতে পেরেছি।

শেষে কিছু কথাঃ

মাল্টি চ্যানেল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা ১০০% নিরাপদ। কারণ, এগুলো Youtube Certified. এর মানে এই না যে আপনি এখানে জয়েন করলে অন্যের ভিডিও নিজের নামে চালাতে পারবেন। নিজে ভিডিও তৈরি করুন অন্যেরটা ডাউলনোড করে আপলোড করে নিজের নামে চালাতে চাইলে সব জায়গাতেই ধরা খাবেন। যে তিনটি(Content ID, Extra Ad, Free Premium Accounts) সুবিধার কথা বললাম, এগুলো ঠিকমত ব্যবহার করতে পারলে একজন Unique Content Creator এর জন্য MCN অবশ্যই লাভজনক।

লেখাটি পূর্বে প্রকাশিতঃ ইউটিউব MCN এ জয়েন করা কেন উচিত কেনঃ ইউটিউব টিউটোরিয়াল

আমার টিউন গুলো ভালো লাগলে অবশ্যই আমার টিউন বেশি বেশি জোসস করুন

আমার টিউন গুলো আপনার 'টিউন স্ক্রিন' নিয়মিত পেতে অবশ্যই আমাকে ফলো করুন। আমার টিউন গুলো সবার কাছে ছড়িতে দিতে অবশ্যই আমার টিউন গুলো বিভিন্ন সৌশল মিডিয়াতে বেশি বেশি শেয়ার করুন

আমার টিউন সম্পর্কে আপনার যে কোন মতামত, পরামর্শ ও আলোচনা করতে অবশ্যই আমার টিউনে টিউমেন্ট করুন

আমার সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য 'টেকটিউনস ম্যাসেঞ্জারে' আমাকে ম্যাসেজ করুন। আমার সকল টিউন পেতে ভিজিট করুন আমার 'টিউনার পেইজ'

ADs by Techtunes tAds

আমি Tutorialsbangla। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 17 টি টিউন ও 9 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমার ওয়েবসাইট চাইলে দেখতে পারেন- http://www.tutorialsbangla.com


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Comments are closed.