Quantcast

IP Subnetting Bangla Tutorial (বাংলা ভাষায় IP Subnetting)

1 টিউমেন্টস 200 দেখা প্রিয়
টিউটোরিয়াল

Advanced Networking যারা শিখছে তাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় হচ্ছে Subnetting। দক্ষ Network Engineer হতে হলে চোখের নিমিষেই Subnet Mask / Network IP/ Block Size / Total Usable IP / 1st Usable IP / Last Usable IP/ Broadcast IP এই গুলা বার করা জানতে হবে। প্রিয় শিক্ষার্থীদের জন্য Subnetting নিয়ে আমার এই সামান্য উপহার। এখানে আমি Class-C এর Subnetting নিয়ে আলোচনা করেছি।

এই ভিডিওটি দেখার পরে আমার মনে হয় না আর কখনও কারো IP Subnetting নিয়ে কোন সমস্যা থাকবে।

Types of Addresses

IPv4 এ তিন ধরণের অ্যাড্রেস আছে।

১। Network Address : Network Address দ্বারা একটি নেটওয়ার্ককে বুঝানো হয়।

২। Broadcast Address : Broadcast Address হলো একটি বিশেষ অ্যাড্রেস যা দ্বারা একটি নেটওয়ার্কের সকল Host এর সাথে কমিউনিকেট করা যায়। Broadcast Address হিসেবে Network Range এর শেষ অ্যাড্রেসটি ব্যবহৃত হয়।

৩। Host Address : আমি আগেই বলেছি, যদি কোন Host একটি নেটওয়ার্কে কমিউনিকেট করতে চায় তাহলে তার একটি স্বতন্ত্র অ্যাড্রেস থাকা প্রয়োজন। আর সেই অ্যাড্রেসটিকেই Host Address বলে। একটি Network Range এর Network Address ও Broadcast Address এর মধ্যবর্তী সকল অ্যাড্রেসসমূহকে Host Address হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

Network Prefix

একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নঃ একটি ৩২ বিট অ্যাড্রেসের কতগুলো বিট নেটওয়ার্ক অংশের এবং কতগুলো বিট হোষ্ট অংশের, তা আমরা কিভাবে জানবো?

যখন আমরা IPv4 অ্যাড্রেস নিয়ে কাজ করি, তখন আমরা নেটওয়ার্ক অ্যাড্রেসের সাথে একটি Prefix যুক্ত করি। যেমনঃ 10.0.0.1/24। এই শেষোক্ত /24 ই হলো Prefix আর এই /24 Prefix দ্বারা বুঝায়, ৩২ বিট অ্যাড্রেসের প্রথম থেকে ২৪টি বিট হলো নেটওয়ার্ক অংশের এবং অবশিষ্ট ৮টি বিট হলো হোষ্ট অংশের।

Network Class

Dotted Decimal ফরম্যাটে IPv4 অ্যাড্রেস ব্লক/রেঞ্জ হলো 0.0.0.0 থেকে 255.255.255.255 পর্যন্ত। এই অ্যাড্রেস ব্লককে কয়েকটি Class এ বিভক্ত করা হয়।

Class - A (0.0.0.0 - 127.255.255.255)
Class - B (128.0.0.0 - 191.255.255.255)
Class - C (192.0.0.0 - 223.255.255.255)
Class - D (224.0.0.0 - 239.255.255.255)
Class - E (240.0.0.0 - 255.255.255.255)

শুধুমাত্র Class - A, Class - B ও Class - C এর অ্যাড্রেসসমূহ Host Address হিসেবে ব্যবহৃত হয়। আর Class – D এর অ্যাড্রেসসমূহ Multicast Address হিসেবে এবং Class – E এর অ্যাড্রেসসমূহ Experimental Address হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

Loopback Address

IPv4 এ 127.0.0.1 এই অ্যাড্রেসটি Loopback অ্যাড্রেস হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এই Loopback অ্যাড্রেস হলো একটি বিশেষ অ্যাড্রেস যা দ্বারা প্রত্যেকটি কম্পিউটার/হোষ্ট তাদের নিজেদেরকেই চিনে থাকে। এই Loopback অ্যাড্রেসকে PING করে কোনো কম্পিউটারের TCP/IP কনফিগারেশন টেষ্ট করা হয়।

Link-local Address

IPv4 এ 169.254.0.0 হতে 169.254.255.255 (অর্থাৎ 169.254.0.0/16) এই অ্যাড্রেস ব্লকটি Link-local Address অ্যাড্রেস হিসেবে ব্যবহৃত হয়। Link-local Address অ্যাড্রেস হলো একটি বিশেষ অ্যাড্রেস ব্লক যদি কোন কম্পিউটারে কোন আই.পি কনফিগারেশন করা না থাকে তাহলে কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেম এই অ্যাড্রেস ব্লকের যেকোন একটি আই.পি কে ঐ কম্পিউটারের আ.পি অ্যাড্রেস হিসেবে অটোমেটিকভাবে অ্যাসাইন করে দেয়।

Public Address and Private Address

IPv4 অ্যাড্রেস ব্লকের (0.0.0.0 থেকে 255.255.255.255) যেসকল অ্যাড্রেসসমূহ ইন্টারনেট থেকে অ্যাকসেস করা যায় তাদেরকে Public Address বলে এবং যেসকল অ্যাড্রেসসমূহ ইন্টারনেট থেকে অ্যাকসেস করা যায় না তাদেরকে Private Address বলে। অধিকাংশ IPv4 হোষ্ট অ্যাড্রেসই হলো Public Address। নিম্নে Private Address এর ব্লকসমূহ দেওয়া হলোঃ

১। 10.0.0.0 থেকে 10.255.255.255 (10.0.0.0/8)
২। 172.16.0.0 থেকে 172.31.255.255 (172.16.0.0/12)
৩। 192.168.0.0 থেকে 192.168.255.255 (192.168.0.0/24)

 

টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

Good but subnet er bepar ta typeing er maddhome dekhale bhalo hoito jai e hok eikhane apnar networki ng er bepare bolechen so dharabahik tune korle better exmple. Rip,Eigrp, CIDR, etc tachara pracktrical vabe CISCO Packet tracer Software deye simulator video baneye dekhale tick hotho r Routing, Switch,hub,Bridge,vlsm etc r kichu networking cable STP.tub,fiver optics r connector rj45 etc neye networking tutorial banan tax go ahed

You must be logged in to post a Tumment.